সোমবার ৯ ডিসেম্বর ২০১৯
  • প্রচ্ছদ » Breaking » আবরার হত্যার দায় স্বীকার করেছেন গ্রেপ্তারকৃতরা



আবরার হত্যার দায় স্বীকার করেছেন গ্রেপ্তারকৃতরা


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
08.10.2019

বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যার দায় স্বীকার করেছেন গ্রেপ্তার হওয়া ছাত্রলীগের ১০ নেতাকর্মী।

মঙ্গলবার দুপুরে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের যুগ্ম কমিশনার মাহবুবুর রহমান গণমাধ্যমকে জানান, গ্রেপ্তারকৃত ১০ জনকে ঘটনার পর থেকে বিভিন্নভাবে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। তারা হত্যাকাণ্ডের সময় কে কী করেছেন, কার ভূমিকা কী ছিল, হত্যাকাণ্ড থেকে শুরু করে লাশ বের করা পর্যন্ত সব তথ্য দিয়েছেন তারা।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, অন্য যে আসামি রয়েছে তাদের ব্যাপারে নজরদারি শুরু হয়েছে। তারাও যেকোনো সময় গ্রেপ্তার হতে পারে। এজন্য পুলিশের একাধিক টিম কাজ করছে। এ ঘটনার সঙ্গে যেই জড়িত থাকুক তাকে অবশ্যই আইনের আওতায় আনা হবে।

যে ১০ জন পুলিশের হেফাজতে আছেন তারা হলেন- বুয়েট ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান রাসেল (সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং, দ্বিতীয় বর্ষ), সহ-সভাপতি মুহতাসিম ফুয়াদ (সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং, দ্বিতীয় বর্ষ), সাংগঠনিক সম্পাদক মেহেদী হাসান রবিন (মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং, চতুর্থ বর্ষ), তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক অনিক সরকার (মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং, চতুর্থ বর্ষ), ক্রীড়া সম্পাদক মেফতাহুল ইসলাম জিয়ন (নেভাল আর্কিটেকচার অ্যান্ড মেরিন ইঞ্জিনিয়ারিং, চতুর্থ বর্ষ), উপ-সমাজসেবা সম্পাদক ইফতি মোশাররফ সকাল (বায়োমেডিক‌্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং, তৃতীয় বর্ষ), সদস্য মুনতাসির আল জেমি (মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং, দ্বিতীয় বর্ষ), মো. মুজাহিদুর রহমান মুজাহিদ (ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেক্ট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং, তৃতীয় বর্ষ) এবং মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের তৃতীয় বর্ষের খন্দকার তাবাখখারুল ইসলাম তানভির।

রোববার রাতে বুয়েটের শেরেবাংলা হলের একটি কক্ষে আবরারকে পিটিয়ে সিঁড়ির মাঝখানে ফেলে যায় দুর্বৃত্তরা। তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি