সোমবার ১৪ অক্টোবর ২০১৯
  • প্রচ্ছদ » Lead 2 » আবরার হত্যা: সনির কথা মনে নেই বিএনপির, ভালো সাজতে আইনজীবীকে বহিষ্কার!



আবরার হত্যা: সনির কথা মনে নেই বিএনপির, ভালো সাজতে আইনজীবীকে বহিষ্কার!


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
09.10.2019

নিউজ ডেস্ক: বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যা মামলার এক আসামি পক্ষের আইনজীবী মোর্শেদা খাতুন শিল্পীকে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম থেকে বহিষ্কার করেছে বিএনপি। এ নিয়ে সমালোচনা উঠেছে রাজনৈতিক মহলে।

মঙ্গলবার (৮ অক্টোবর) দিবাগত রাত দেড়টার দিকে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবীর রিজভী স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘সংগঠন বিরোধী তৎপরতার জন্য বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের কেন্দ্রীয় আহ্বায়ক কমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট মোর্শেদা খাতুন শিল্পীকে সংগঠনের সকল পর্যায়ের পদ থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। এখন থেকে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের সাংগঠনিক কার্যক্রমের সাথে অ্যাডভোকেট মোর্শেদা খাতুন শিল্পীর কোনো সম্পর্ক থাকবে না।’

বিএনপির এমন তৎপরতায় বলা হচ্ছে, সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের পীঠস্থান হিসেবে খ্যাত বিএনপি নিজেদের অপকর্মের কথা ভুলে গিয়ে আবরার হত্যাকাণ্ড নিয়ে রাজনৈতিক কৌশল করছে। আসামি পক্ষের আইনজীবী হওয়ায় দলীয় এক আইনজবীবীকে বহিষ্কার করে ভালো সাজতে চাইছে তারা। যেটি তাদের পুরনো কৌশল। অথচ এই বিএনপিই একদিন ছাত্রদলের ক্যাডারদের হাতে বুয়েটের ছাত্রী সাবিকুন নাহার সনির মৃত্যুতে ছাত্রদের আন্দোলন তো দূরের কথা একটা শব্দও করতে দেয়নি।

এ প্রসঙ্গে একজন রাজনৈতিক বিশ্লেষক বলেন, বরাবরই বিএনপির এই তৎপরতাগুলো খুবই হাস্যকর। অথচ ২০০২ সালের ৮ জুন টেন্ডার নিয়ে বুয়েট ছাত্রদলের মুকি এবং এসএম হল ছাত্রদলের টগর গ্রুপের বন্দুকযুদ্ধে ক্রসফায়ারে পড়ে নিহত হন কেমিকৌশল ১৯৯৯ ব্যাচের ছাত্রী সনি। তখন এ নিয়ে ছাত্ররা আন্দোলন করতে চাইলেও তাদের প্রতিহত করা হয়। একটি ছাত্রও মুখ খুলতে পারেনি সেসময়। তখনকার কথা মনে নেই বিএনপির!

উল্লেখ্য, আবরার ফাহাদ হত্যা মামলার আসামি মুজাহিদুলের পক্ষে আইনি লড়াইয়ে অংশ নিয়ে ফেসবুকে তীব্রভাবে সমালোচিত হন মোর্শেদা খাতুন শিল্পী। এরপর তাকে বহিষ্কারের দাবি জানায় নবগঠিত বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের বেশ কয়েকজন সদস্য।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি