রবিবার ১৭ নভেম্বর ২০১৯



ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের ‘সভাপতি হচ্ছেন’ সৌরভ


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
14.10.2019

নিউজ ডেস্ক: বাঙালি বলে যে সৌরভ গাঙ্গুলি ভারতীয় ক্রিকেটের অনেক ‘নিষ্ঠুর’ পথ দেখেছেন, সেই তিনি দেশটির জাতীয় ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি হতে যাচ্ছেন!

ভারতের একাধিক গণমাধ্যমে এ বিষয়ে খবর প্রকাশিত হয়েছে। প্রভাবশালী ইংরেজি দৈনিক টাইমস অব ইন্ডিয়া লিখেছে, ভারতের সাবেক অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলি নাটকীয়ভাবে বিসিসিআইয়ের সভাপতি হতে যাচ্ছেন।

টাইমস অব ইন্ডিয়ার আগে দেশটির বাংলা দৈনিক সংবাদ প্রতিদিন সৌরভের সভাপতির পদ নিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ করে। পত্রিকাটির ক্রীড়া সম্পাদক গৌতম ভট্টাচার্য এবং প্রতিবেদক রাজর্ষি গঙ্গোপাধ্যায় ওই প্রতিবেদনটি লিখেছেন।

জনপ্রিয় সাংবাদিক গৌতম ভট্টাচার্য ভারতীয় ক্রিকেট অঙ্গনে সৌরভ গাঙ্গুলির ‘বন্ধু’ বলে পরিচিত। তিনি লিখেছেন, ‘চোদ্দো বছর আগে ভারত অধিনায়কত্ব থেকে বিদেশে সিরিজ জয় এবং সেঞ্চুরি সত্ত্বেও অন্যায়ভাবে বিতাড়িত হওয়ার ক্রিকেটীয় ন্যায়বিচার কি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের সামনে অপেক্ষা করে রয়েছে? ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের অলিন্দের জল্পনা সত্যি হলে উত্তর, হ্যাঁ। ক্রিকেট প্রশাসন মসনদের মুকুট থেকে তিনি আর মাত্র কয়েক ফুট দূরে। বোর্ড প্রেসিডেন্ট হওয়ার সম্ভাবনা প্রবল। একান্ত না হলে সচিব।’

১৪ অক্টোবর মনোনয়ন জমা দেওয়ার শেষ দিন। এদিনই সৌরভের মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার কথা। একাধিক প্রার্থী না থাকলে পদটিতে নির্বাচন হবে না। দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ সেই পথ সৌরভকে তৈরি করে দিয়েছেন। ২৩ অক্টোবর চূড়ান্ত নির্বাচন হওয়ার কথা।

শনিবার সন্ধ্যায় দিল্লিতে গুরুত্বপূর্ণ একটি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে অমিত শাহর সঙ্গে দেখা করেন সৌরভ। অমিত এবং সৌরভ এই ধরনের বৈঠক এর আগে কখনো করেননি।

প্রথমে শোনা যাচ্ছিল বৈঠক হয়েছে বসন্তকুঞ্জের বসন্ত ইন্টারকন্টিনেন্টাল হোটেলে। অতীতে ভারতের অনেক রাজনৈতিক বৈঠকের গোপনীয়তা রক্ষার কারণে যে হোটেল ব্যবহৃত হয়েছে বলে শোনা যায়। পরে অবশ্য জানা যায় কোনো হোটেল নয়, বৈঠক হয়েছে খোদ অমিত শাহর বাসভবনে।

এর আগে শোনা যাচ্ছিল কর্ণাটকের ব্রিজেশ প্যাটেল হবেন সভাপতি। কিন্তু বৈঠকে সবাই ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন অব বেঙ্গলের বর্তমান প্রধান সৌরভের বিষয়ে একমত হয়েছেন। ব্রিজেশ হচ্ছেন আইপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের চেয়ারম্যান। অমিতের ছেলে জয় শাহ পাচ্ছেন সচিবের দায়িত্ব। হিমাচলের অরুণ সিং ঠাকুর কোষাধ্যক্ষ।

অমিত এখন ভারতীয় ক্রিকেট রাজনীতির হর্তাকর্তা। তার ছেলে ক্রিকেটের সঙ্গে প্রত্যক্ষভাবে জড়িত। বোর্ড প্রেসিডেন্ট সমীকরণ থেকে তিনিই মূলত অন্যদের অদৃশ্য করে দিয়েছেন। আর টেনে এনেছেন ‘বাঙালিবাবুকে’।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি