রবিবার ৮ ডিসেম্বর ২০১৯



সৌম্য-শান্তর ব্যাটে ভারতকে হেসেখেলে হারাল বাংলাদেশ


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
16.11.2019

নিউজ ডেস্ক: একদিকে ভারতের মাটিতে জাতীয় দল ইনিংস পরাজয়ের লজ্জায়, আরেকদিনে ঘরের মাঠে ভারতকে নাকানি চুবানি খাওয়ালেন সৌম্য সরকার-নাজমুল হোসেন শান্তরা। কী বৈপরীত্য!

ইন্দোরে আজ (শনিবার) ভারতের কাছে সিরিজের প্রথম টেস্টে এক ইনিংস আর ১৩০ রানের বড় ব্যবধানে হেরেছে বাংলাদেশ। আর এদিকে সাভারে ইমার্জিং এশিয়া কাপে ভারতকে ৬ উইকেট আর ৬৭ বল হাতে রেখে হারিয়েছে বাংলাদেশ ইমার্জিং দল।

সাভার বিকেএসপির তিন নম্বর মাঠে টস জিতে প্রথমে ভারতকে ব্যাটিংয়ে পাঠায় বাংলাদেশ। পুরো ৫০ ওভার খেলতে পারলেও ২৪৬ রানেই গুটিয়ে যায় ভারতীয় দলের ইনিংস। আরমান জাফর ১০৫ রান না করলে আরও বড় বিপদেই পড়তো ভারত।

বাংলাদেশের পক্ষে বল হাতে সবচেয়ে সফল ছিলেন তরুণ পেসার সুমন খান। ৬৪ রান খরচায় তিনি নেন ৪টি উইকেট। ২টি করে উইকেট পান তানভীর ইসলাম আর সৌম্য সরকার।

লক্ষ্য ২৪৬ রানের। শুরুতেই মারকুটে নাইম শেখকে হারিয়ে বসে বাংলাদেশ। ৯ বলে ১৪ রান করে নাইম যখন ফেরেন, দলের রান তখন মাত্র ১৫। তবে দ্বিতীয় উইকেটে সেই চাপ দারুণভাবে সামলে ওঠেন সৌম্য সরকার আর অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত।

এই উইকেটে তারা গড়েন ১৪৪ রানের ম্যাচ জেতানো এক জুটি। ৬৮ বলে ৭ বাউন্ডারি আর ৩ ছক্কায় সৌম্য ৭৩ রানের এক ঝড়ো ইনিংস খেলে ফিরলে ভাঙে এই জুটি।

মারকুটে ব্যাটিংয়ে সেঞ্চুরির পথে এগিয়ে যাচ্ছিলেন শান্ত। কিন্তু মাত্র ৬ রানের জন্য তার সে আশা পূরণ হয়নি। ৮৮ বলে ১৪ চার আর ২ ছক্কায় ৯৪ রানে থাকার সময় রাথোরের শিকার হন বাংলাদেশ অধিনায়ক।

তবে ততক্ষণে জয়ের বেশ কাছে চলে গেছে টাইগাররা। রান পার হয়ে গেছে দুইশর ঘর। লক্ষ্য থেকে মাত্র ৫ রান দূরে থাকার সময় ইয়াসির আলী (৩৯ বলে ২১) না ফিরলে জয়টা আরও বড় হতে পারতো। আফিফ হোসেন ৩৪ আর জাকির হোসেন ২ রান নিয়ে বিজয়ীর বেশেই মাঠ ছাড়েন।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি