রবিবার ৮ ডিসেম্বর ২০১৯
  • প্রচ্ছদ » » এইচবিও অরিজিনাল সিরিজে বাংলাদেশের দীপ



এইচবিও অরিজিনাল সিরিজে বাংলাদেশের দীপ


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
17.11.2019

নিউজ ডেস্ক: বিশ্বখ্যাত টিভি চ্যানেল এইচবিও’র অরিজিনাল সিরিজে অভিনয়ের সুযোগ পেলেন বাংলাদেশের তরুণ অভিনেতা সুদীপ বিশ্বাস দীপ। ‘ইনভিজিবল স্টোরিজ’ নামের ছয় পর্বের এই সিরিজের একটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে দেখা যাবে তাকে। সিঙ্গাপুরে প্রবাসী বাংলাদেশির চরিত্রে এতে অভিনয় করেছেন দীপ।

এতদিন এই তরুণ অভিনেতা খবরটি চেপে রাখলেও সম্প্রতি সেটি প্রকাশ পায় সিরিজের বিহাইন্ড দ্য সিন প্রকাশের পর। এদিন এইচবিও এশিয়ার ফেসবুক পেজ ও ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশ পায় ‘মেকিং অব ইনভিজিবল স্টোরিজ’। আড়াই মিনিট ব্যাপ্তির ভিডিওতে বেশ কয়েকটি দৃশ্যে দেখা মিলেছে ঢাকার অভিনেতা দীপের। তার সঙ্গে ছিলেন সিঙ্গাপুর, মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়ার শিল্পীরাও।

কিন্তু কবে, কখন, কেমন করে এত বড় প্রজেক্টে যুক্ত হলেন তরুণ অভিনেতা দীপ, সেটি ভেবেই অনেকে বিস্মিত। খবরটি জানতে পেরে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করছেন তার সতীর্থরা। এই চুপ থাকার পেছনের কারণ হিসেবে দীপ বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘আসলে এইচবিও থেকে এ বিষয়ে আগাম কথা বলায় নিষেধ আছে। কারণ, তাদের সবকিছুই সুপরিকল্পিত। সে জন্যই পুরো কাজের অভিজ্ঞতা সম্পর্কে বিস্তারিত বলতে পারছি না। সেটি বলতে হলে আরও দুটো দিন সময় লাগবে।’

এদিকে দীপ এরইমধ্যে দেশের একটি টিভি মিডিয়ার সঙ্গে এ বিষয়ে খানিকটা আলাপ করেন। সেখানে তিনি বললেন, ‘‘অনেক আগে আমি দেশে কয়েকটি শর্টফিল্ম করেছি। তো সেগুলো বিভিন্ন উৎসবেও গেছে। সেই শর্টফিল্ম থেকেই মূলত আমার খোঁজ নেয় ‘ইনভিজিবল স্টোরিজ’-এর রচয়িতা ও নির্মাতা লার জিয়ান। গত এপ্রিলে তারা সরাসরি আমার সঙ্গে যোগাযোগ করে। এরপর অডিশন নেয় অনলাইনে। এখান থেকে আর কারও অডিশন নিয়েছে কিনা আমি জানি না। তবে কিছুদিন পর আমাকে তারা কাজটির জন্য চূড়ান্ত করে এবং সিঙ্গাপুর যেতে বলে।’’

আরেকটি দৃশ্যে দীপদীপ আরও জানান, ‘গেল জুন মাসে আমি প্রথম লটের শুটিং করি সেখানে। একই মাসে ফিরে আসি। আবার জুলাই মাসে যাই। শেষ করে ঢাকায় ফিরি আগস্টে। পুরো কাজ হয়েছে সিঙ্গাপুরে।’

কাজটি করতে গিয়ে অভিজ্ঞতা প্রসঙ্গে দীপ বলেন, ‘অসাধারণ অভিজ্ঞতা। সেটা তো আর বলে প্রকাশ করা যাবে না। তারা আসলে প্রতিটি মানুষ নিজ নিজ কাজ সম্পর্কে অবগত থাকে। এটাই হলো তাদের মূল সৌন্দর্য। বাড়তি পাওনা হলো, এই সিরিজটি অনেক দেশের শিল্পীর সমন্বয়ে তৈরি হয়েছে। এরমধ্যে আমার সহশিল্পী ছিল ইন্দোনেশিয়ার এক অভিনেত্রী। অসাধারণ অভিজ্ঞতা হয়েছে কাজটি করে।’

জানা গেছে, ছয়টি কনসেপ্ট নিয়ে তৈরি হয়েছে সিরিজটি। এরমধ্যে দীপের কণ্ঠে ইংরেজির পাশাপাশি কিছু বাংলা সংলাপও রয়েছে। এইচবিও এশিয়া কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, সিরিজটির প্রিমিয়ার হচ্ছে ৫ জানুয়ারি রাত ১০টায় এইচবিও চ্যানেল এবং এইচবিও-গো নামের ওয়েবে। তারও আগে প্রকাশ পাচ্ছে সিরিজের ট্রেলার।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি