সোমবার ১ জুন ২০২০



হোম কোয়ারেন্টাইন তোয়াক্কা করছেন না বেগম জিয়া, উদাসীন কর্মীরাও


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
28.03.2020

নিউজ ডেস্ক: দুর্নীতি মামলায় দুই বছরের অধিক সময় জেল খাটার পর সরকারে মহানুভবতায় মুক্তি পেয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। মুক্তি পেয়েই তিনি ওঠেন তার নিজ বাসভবন ফিরোজায়। কথা ছিলো- হোম কোয়ারেন্টাইন থাকবেন বিএনপি নেত্রী। কিন্তু কথা রাখছেন না তিনি। কোয়ারেন্টাইনের নামে অবাধে সাক্ষাত দিচ্ছেন দলীয় নেতা-কর্মীদের সাথে।

বিএনপি নেত্রীর বাড়ি ফিরোজার ঘনিষ্ঠ সূত্রের বরাতে জানা গেছে, লন্ডন থেকে তারেক রহমান মির্জা ফখরুলদের বিএনপি নেত্রীর সাথে আপাতত ১৪ দিন দেখা-সাক্ষাত না করার নির্দেশ দিলেও সেটি মানছেন না কেউ। বেগম জিয়াকে অসুস্থ দাবি করলেও এই করোনা মৌসুমেও বিএনপি নেত্রীর বাড়ি ‘ফিরোজা’ যেন হয়ে উঠেছে ভাইরাস ছড়ানোর ক্ষেত্র। দলটির প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় সারির নেতারা দলবেঁধে দেখা করছেন বিএনপি নেত্রীর সাথে। সেক্ষেত্রে মুক্তির শর্ত লঙ্ঘন করছেন বেগম জিয়া। রাজনীতি না করার শর্ত থাকলেও তিনি সাক্ষাতের আড়ালে বিএনপি নেতাদের করোনা পরবর্তী রাজনৈতিক কর্মসূচিরও পরামর্শ দিচ্ছেন বলে জানা গেছে।

বেগম জিয়ার কোয়ারেন্টাইনের বিষয়ে জানতে চাইলে বিএনপিপন্থী চিকিৎসকদের সংগঠন ড্যাবের নেতা ডা. এ জেড এম জাহিদ বলেন, নেত্রী কোয়ারেন্টাইনেই আছেন। তবে দূরত্ব বজায় নেতা-কর্মীদের সাথে কথা বলছেন ও দিকনির্দেশনা দিচ্ছেন। এখানে ঝুঁকির কিছু নেই। কারণ বাড়িতে আসা নেতা-কর্মীদের জন্য যথেষ্ট মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজারের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।

একই মাস্ক ও গাউন ব্যবহার করে বিএনপি নেত্রীর সাথে কর্মীদের সাক্ষাতের অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে ডা. জাহিদ বলেন, দেখুন সবাই সতর্কতা অবলম্বন করেই কাজ করছি। তবে কিছু নেতা আছেন যারা না বুঝেই ব্যবহৃত মাস্ক মুখে দিয়ে নেত্রীর সাথে দেখা করছেন বলে আমিও জানতে পেরেছি। বিষয়টি অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ। এরকম যেন ভুল না হয়, সেই বিষয়ে আমরা আরো সতর্ক থাকবো।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি