মঙ্গলবার ২ জুন ২০২০
  • প্রচ্ছদ » Lead 2 » প্রণোদনা পেয়েও পতিতাবৃত্তি করছেন বিএনপির একাধিক নারী নেত্রী



প্রণোদনা পেয়েও পতিতাবৃত্তি করছেন বিএনপির একাধিক নারী নেত্রী


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
22.05.2020

নিউজ ডেস্ক : দলমত নির্বিশেষে করোনা সংকটে সরকার কর্মহীন মানুষদের পাশে দাঁড়িয়ে ত্রাণ সহায়তা করে যাচ্ছে। কওমি অঙ্গন, মসজিদ-মন্দির সহ প্রত্যন্ত অঞ্চলে সরকার পৌঁছে দিয়েছে ত্রাণ এবং অর্থ সহায়তা। সরকারের সহায়তায় সাধারণ মানুষ তুষ্ট হলেও যাদের কম পরিশ্রমে অধিক মুনাফা প্রয়োজন, তাদের সংসার চলছে না। তাই এই করোনাকালীন সময়ে অনেকেই বেছে নিয়েছেন পতিতাবৃত্তির পথ।

জানা গেছে, বিএনপি নেত্রী ও বাংলাদেশের অশ্লীল যুগের চিত্রনায়িকা শাহরিয়ার ইসলাম শায়লার নেতৃত্বে এই পতিতাবৃত্তি কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে একটি সংঘবদ্ধ চক্র।

এ প্রসঙ্গে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক শায়লার অধস্তন এক ২১ বছরের তরুণী বলেন, তিন বছর আগে আমি এ পেশায় আসি। গরীব ঘরে জন্ম হলেও আমার স্বপ্ন ছিলো আকাশচুম্বী। অতঃপর শায়লা আপার সঙ্গে দেখা হলে তিনি আমাকে নায়িকা বানানোর লোভ দেখিয়ে এই অপকর্ম জড়াতে বাধ্য করেন। এখন এমন এক অবস্থা হয়েছে যে, পরিবার সামলাতে গিয়ে এই পতিতাবৃত্তিকেই পেশা হিসেবে গ্রহণ করেছি। আমার সঙ্গে আরো অনেকেই এই পেশায় করোনাকালীন সময়েও যুক্ত রয়েছেন।

পতিতাবৃত্তির সঙ্গে জড়িত শায়লার অধস্তন অপর এক নারী বলেন, বিএনপির বড় নেত্রী হওয়ায় ক্যাডার বাহিনীর সহায়তায় শায়লা আপা খানিকটা অবাধেই এই কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন। এছাড়া বিএনপির একাধিক নেতার আলুর দোষ রয়েছে। কিন্তু নেতা হবার কারণে সবাইকে তাদের মনের সুপ্ত আকাঙ্ক্ষা বলতে পারে না। এক্ষেত্রে উক্ত নেতাদের চাহিদা পূরণ করেন বিএনপি নেত্রী শায়লা। বিএনপির বড় নেতারা তার কাছে আবদার করলে শায়লা আপার সমন্বয়ে আমরা তাদের চাহিদা পূরণ করি। এখনো এই চাহিদা পূরণে আমরা কার্যকরী ভূমিকা রেখে চলেছি। আমি আশা করছি ভবিষ্যতে বিএনপির একজন সৎ নেত্রী হতে পারবো।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি