সোমবার ৬ জুলাই ২০২০
  • প্রচ্ছদ » other important » দেশ-বিদেশের সম্পদের হিসাব মেলাতে না পারায় জাকাত দিচ্ছেন না বেগম জিয়া



দেশ-বিদেশের সম্পদের হিসাব মেলাতে না পারায় জাকাত দিচ্ছেন না বেগম জিয়া


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
25.05.2020

নিউজ ডেস্ক: দুর্নীতি মামলায় দুবছরের বেশি কারাভোগের পর সাময়িক মুক্তি পেয়ে রাজধানীর গুলশানের ভাড়াবাড়ি ফিরোজায় হোম কোয়ারেন্টিনে রয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। রমজান মাসেও রোজা না থাকা নিয়ে নানা গুঞ্জন রয়েছে বেগম জিয়ার বিপক্ষে। তবে তার চেয়ে বড় সমস্যা হলো, রমজান শেষ হয়ে এলেও পর্যন্ত সম্পদের জাকাত পুরোপুরি আদায় করতে পারেননি বিএনপি নেত্রী। দেশ-বিদেশি নামে-বেনামি সম্পদ বৈধ ও অবৈধ সম্পদ থাকায় জাকাত আদায় নিয়ে তাই বেকায়দায় পড়েছেন বেগম জিয়া।

জানা গেছে, ১৯৯১ সালে প্রথমবার ক্ষমতায় এসে খুব বেশি দুর্নীতি ও সম্পদ বিদেশি পাচার করতে পারেননি বেগম জিয়া। ৫ বছর কেটেছিল দুর্নীতির জায়গা নির্ধারণ, কমিশন আদায় ও বিদেশে বিনিয়োগের নিরাপদ স্থান খোঁজ করতে। ২০০১ সালে ক্ষমতায় এসে দুর্নীতির সাথে সরাসরি জড়িয়ে পড়েন বেগম জিয়া ও তারেক রহমান। ৫ বছরে সৌদি আরব, যুক্তরাজ্য, কাতার, মালয়েশিয়া, সিঙ্গাপুর, থাইল্যান্ড, কেইম্যান আইল্যান্ডের মতো ছোট বড় দেশে ব্যাংক, বিমা ও নির্মাণ শিল্পে কয়েক হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগ করেন বেগম জিয়া। যেগুলো লভ্যাংশ খেয়ে এখনও রাজার হালে চলছেন তিনি ও তার সন্তান তারেক রহমান। এসব অবৈধ বিনিয়োগ নিয়ে তাই তিনি এই রমজানে পড়েছেন বিপাকে। মোট সম্পদের আড়াই শতাংশ করে জাকাত দিলে কয়েকশ কোটি টাকা জাকাত দিতে হবে বিএনপি নেত্রীকে। আবার এসব সম্পদের জাকাত দিলে তার অবৈধ সম্পদ অর্জনের বিষয়ে জানাজানি হয়ে নতুন করে কেলেঙ্কারি হবে। আবার জাকাত আদায় না করলে ধর্মীয় দৃষ্টিকোণ থেকে সেটি পাপ হবে। এছাড়া তার নিজস্ব কতো টাকা ও বিনিয়োগ রয়েছে, সেই বিষয়েও সঠিক হিসাব জানেন না খালেদা। যার কারণে আপাতত দেশে অবস্থিত সম্পদের জাকাত দিলেও বিদেশে বিনিয়োগ করা সম্পদের হিসাব মেলাতে না পারায় জাকাত দিতে পারছেন না বেগম জিয়া। বিষয়টি নিয়ে মানসিকভাবে দুশ্চিন্তায় পড়েছেন তিনি বলেও বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে।

এদিকে বেগম জিয়ার জাকাত আদায়ে সমস্যার বিষয়ে জানতে চাইলে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, নির্দিষ্ট পরিমাণ সম্পদ থাকলে প্রত্যেক মুসলমানকে জাকাত দিতে হবে। ম্যাডাম এবারও জাকাত দিয়েছেন। এখন বিদেশে তার কতো বিনিয়োগ সেটি তো আমি বলতে পারব না। তবে যদি থেকে থাকে তবে অবশ্যই জাকাত দেয়া উচিত। কে কি বললো সেদিকে খেয়াল না করে জাকাত দিয়ে দায়িত্ব পালন করাটাই উত্তম কাজ হবে।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি