বুধবার ১২ অগাস্ট ২০২০



মাত্র ২০ মিনিটে নিজেকে চিনিয়েছিল রশিদ খান


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
09.07.2020

সানরাইজার্স হায়দরাবাদের নেট সেশনে মাত্র ২০ মিনিট বোলিং করেই নিজের জাত চিনিয়ে ফেলেছিলেন আফগানিস্তানের লেগস্পিনার রশিদ খান। নেট সেশনের সেই ২০ মিনিটেই তার সম্পর্কে ধারণা পেয়ে যান হায়দরাবাদের তখনকার হেড কোচ টম মুডি।

ক্রিকেটভিত্তিক ওয়েবসাইট ক্রিকবাজের সঙ্গে আলাপে সেই স্মৃতিচারণ করেছেন মুডি। আইপিএলের ২০১৭ সালের আসর থেকে হায়দরাবাদেই খেলছেন বর্তমান সময়ের অন্যতম বোলার রশিদ খান। তাকে শুরু থেকেই দেখেছেন টম মুডি।

সেই অভিজ্ঞতা থেকে এ অসি কোচ বলেন, ‘আমি দলে একজন লেগস্পিনার চাইছিলাম। আমি জানি ম্যাচের যেকোন সময় চিত্রপট বদলে দিতে লেগস্পিনারদের ভূমিকা অনেক। আমি তাই হায়দরাবাদের এনালিস্টের সঙ্গে কথা বলে জিজ্ঞেস করলাম যে এখন কাকে নিলে ভালো হবে। অনেক অনেক ভিডিও দেখার পর রশিদ খানের বোলিং দেখলাম। আমি এনালিস্টকে বলে রাখলাম যে রশিদের ভিডিও আমাকে দিতে থাকে যেন। আমি ওর (রশিদ) বোলিং বোঝার চেষ্টা করছিলাম।’

মুডি আরও যোগ করেন, ‘আমি ওকে নিতে বলি দলে। হয়তো ভিডিওতে যেসব বোলিং দেখেছি, সেসবের প্রতিপক্ষ আইপিএলের মতো শক্তিশালি ছিল না, কিন্তু রশিদের ধারাবাহিকতা ছিল অসাধারণ। তাই আমি ভাবলাম যে, ওকে নিয়ে একটা জুয়া খেলাই যায়। শুধু একটাই চিন্তা ছিল যে এত বড় মঞ্চে ঘাবড়ে যায় কি না। কিন্তু আইপিএলে আসার পর যা হলো, তা তো রীতিমতো ইতিহাস।’

২০১৭ সালের আইপিএল শুরুর আগে রশিদ খানের সঙ্গে হায়দরাবাদের নেট সেশনের স্মৃতি মনে করে মুডি বলেছেন, ‘ওর প্রথম মৌসুমের আগে একদম প্রথম নেট সেশনে আমাদের মনে কিছু প্রশ্ন তো ছিলোই। হুট করে আইপিএলে সুযোগ পাওয়া ১৯ বছরের ছেলে কেমন কী করতে পারবে, এ বিষয়ে খানিক সংশয় ছিলোই সত্যি বলতে।’

‘এরপর নেট সেশনে ডেভিড ওয়ার্নারসহ বেশ কয়েকজন সিনিয়র খেলোয়াড়দের বিপক্ষে বোলিং করাই। মাত্র ২০ মিনিট দেখেই আমি চিনে ফেলেছিলাম, আমরা একটা খাটি রত্নই নিয়েছি। নেট সেশনেও যে জেতার ইচ্ছাটা দেখা গেছে, তাতেই বোঝা গেছে যেকোন পর্যায়ে খেলার যোগ্যতা আছে রশিদের। মাত্র ২০ মিনিটেই সব সংশয় দূর করে দিয়েছিল রশিদ।’



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি