বুধবার ৫ অগাস্ট ২০২০
  • প্রচ্ছদ » Lead 1 » পাক দূতাবাসের চাপে জামায়াতকে নিয়ে দ্বিধায় তারেক!



পাক দূতাবাসের চাপে জামায়াতকে নিয়ে দ্বিধায় তারেক!


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
29.07.2020

নিউজ ডেস্ক: যুদ্ধাপরাধ, মুক্তিযুদ্ধের বিরোধীতাকারী জামায়াতকে সঙ্গী বানানোর কারণে দীর্ঘদিন ধরেই নেতিবাচক সমালোচনার মুখে পড়েছে বিএনপি। দুর্নাম ঘুচাতে অনেক দিন ধরেই জামায়াতকে ছাড়ার চেষ্টা করছে বিএনপি। সর্বশেষ ১৮ জুলাই বিএনপির স্থায়ী কমিটির বৈঠকে তারেককে জামায়াতের সঙ্গ ত্যাগ করার পরামর্শ দিয়ে আল্টিমেটাম দেন ফখরুলরা। কিন্তু অজানা কারণে এখনও জামায়াতের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিচ্ছেন না তারেক। তবে পাকিস্তানের চাপের কারণে হঠাৎ করেই জামায়াতকে ছাড়তে পারছেন না-এমনটাই জানা গেছে বিভিন্ন সূত্রে।

লন্ডনভিত্তিক একটি গোপন সূত্র বলছে, ১৮ জুলাই স্থায়ী কমিটির বৈঠকে মির্জা ফখরুলরা জামায়াতকে ছাড়তে জোর দাবি জানালে শিগগিরই এই বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত দিবেন বলে উত্তেজিত নেতাদের শান্ত করেন তারেক। কিন্তু চাইলেও জামায়াতের বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে পারছেন না বিএনপির এই শীর্ষ নেতা। কারণ জোট থেকে বের করে দেয়ার খবরটি জানার পরপরই জামায়াতের তরফ থেকে পাকিস্তানে যোগাযোগ করা হয়। যার কারণে ২৫ জুলাই লন্ডনস্থ পাকিস্তান দূতাবাস থেকে তারেক রহমানকে ফোন করে জামায়াতের ব্যাপারে তড়িঘড়ি সিদ্ধান্ত না নেয়ার অনুরোধ করা হয়।

তাদের মতে, জামায়াতকে যদি বিএনপি ত্যাগ করে তবে রাজনীতিতে অনাথ হয়ে পড়বে পাকিস্তানপন্থী জামায়াত। তাই পরিস্থিতি বিবেচনা করে অন্তত ২০ দলীয় জোট থেকে জামায়াতকে বের করে না দিয়ে বরং রাজনীতিতে ব্যালেন্স করার অনুরোধ করা হয়েছে তারেককে। শুধু তাই নয়, ঈদের পর বাংলাদেশে উদ্ভূত বন্যা পরিস্থিতিতে দেশবাসীকে সহায়তা করতে জামায়াতের পক্ষ থেকে বিএনপির ফান্ডে ২০ কোটি টাকা অনুদান দেয়ারও ঘোষণা দিয়েছে পাকিস্তান দূতাবাস। যাতে করে বৈরী রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে জামায়াতকে ছেড়ে না দেয় বিএনপি। মূলত পাকিস্তান দূতাবাসের এমন অনুরোধ ও অফারের কারণে জামায়াতের বিষয়ে এখনই কোন চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত চাচ্ছেন না তারেক। দলীয় নেতাদের বুঝিয়ে জামায়াত ইস্যু নিয়ে আপাতত রাজনীতিতে বিদ্বেষ না ছড়াতে অনুরোধ করবেন বিএনপির এই শীর্ষ নেতা।

অন্যদিকে লন্ডন বিএনপির রাজনীতির খোঁজ রাখে এমন একটি গোপন সূত্র বলছে, পাকিস্তান দূতাবাসের অনুরোধ ও চাপের কারণে অন্তত চলতি বছর জামায়াতকে ছাড়বেন না তারেক রহমান। আগামী বছর বিএনপি জোটের রাজনীতিতে জামায়াত যদি অবদান না রাখে সেক্ষেত্রে কারণ অনুসন্ধান করে দলটিকে জোট থেকে বের করে দিলে আপত্তি করবে না পাকিস্তান। তাই জামায়াতকে শেষবার একটি সুযোগ দেয়ার অনুরোধের কারণেই তারেক অন্তত নিজ থেকে জামায়াতকে ত্যাগ করবেন না। পাশাপাশি বড় ধরনের আর্থিক সুবিধার বিষয়টি মাথায় থাকায় সহসাই এই ধরনের বড় সিদ্ধান্ত নেয়ার ক্ষমতা তারেকের নেই বলেও মনে করছেন অনেকেই।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি