বুধবার ৫ অগাস্ট ২০২০



সংবাদ সম্মেলন করেই দায় সারছে বিএনপি


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
31.07.2020

নিউজ ডেস্ক: করোনা ও বন্যা পরিস্থিতিসহ বিভিন্ন ইস্যুতে জনগণের জন্য কোনো উদ্যোগ গ্রহণ না করে প্রেস রিলিজ ও সংবাদ সম্মেলন করেই দায় সারছে বিএনপি। কেন্দ্রের প্রতি বিএনপির তৃণমূলের অভিযোগ, দেশের ক্রান্তিকালে কেন্দ্রীয় নেতারা দলের কর্মীদের কোনো খোঁজ-খবর রাখেন না। তাদের পাশে না থেকে করোনার ভয়ে ঘরে অবস্থান করছেন নেতারা।

তারা বলেন, বিএনপিতে অনেক বিত্তশালী নেতা থাকলেও দেশের ক্রান্তিকালে জনগণ দূরের কথা কর্মীদেরও পাশে দাঁড়ান না। তাদের কার্যক্রম শুধুমাত্র প্রেস রিলিজ আর সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে সরকারের সমালোচনা করা। নিজেরা উদ্যোগী হয়ে কার্যত কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ করেন না। ফলে এসব প্রাকৃতিক দুর্যোগে নেতারা পাশে না থাকায় রাজনীতি থেকে দূরে সরে যাচ্ছেন দলটির তৃণমূল নেতাকর্মীরা।

সংশ্লিষ্ট সূত্র মতে, মাঠের রাজনীতি থেকে সরে এসে বিএনপির নেতাকর্মীরা এখন প্রচার-প্রচারণা বা প্রতিবাদ জানায় অনলাইন বা ফেসবুকে। দলটির অধিকাংশ নেতাই আজ স্বেচ্ছায় ঘরবন্দী।

দেশে করোনা ও বন্যা পরিস্থিতি মোকাবিলায় বিএনপির ভূমিকা সম্পর্কে জানতে চাইলে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিএনপির একজন ভাইস-চেয়ারম্যান বলেন, বিএনপিতে রিজভী আর ফখরুল ছাড়া কোনো নেতা নেই।

তিনি বলেন, ৫ শতাধিক নির্বাহী কমিটির সদস্যদের কোনো কাজ নেই। যেকোনো ইস্যুতেই প্রতিবাদ জানাতে হবে শুধুমাত্র ফখরুল আর রিজভীকেই। দলের সম্পাদকমণ্ডলী ও উপদেষ্টামণ্ডলীর কাজ কী তাহলে?

তিনি আরো বলেন, এই দলের এখন কোনো সাংগঠনিক কর্মকাণ্ড নেই। দেশের যেকোনো পরিস্থিতিতে শুধু প্রতিবাদ জানানোর মধ্যেই সীমাবদ্ধ নেতারা।

এ বিষয়ে সুশীল সমাজ ও বুদ্ধিজীবীরা বলেন, একটা বিরোধী দল হিসেবে জনগণের যে আকাঙ্ক্ষা থাকে বিএনপি তা পূরণে পুরোপুরি ব্যর্থ।

তারা বলেন, দেশের মানুষ খুব সহজেই যেকোনো ইস্যুতে ঐক্যবদ্ধ হয়। কিন্তু বিএনপি গত ১৫ বছরেও জনগণকে পাশে নিয়ে আন্দোলন করতে পারেনি। তার কারণ বিএনপি জনগণের জন্য চিন্তা-ভাবনা করে না। তারা শুধু দায় সারা কাজ করে থাকে। ফলে জনগণও তাদের প্রতি আস্থা হারিয়ে ফেলেছে। বিএনপিকে আবার ঘুরে দাঁড়াতে হলে জনগণের আস্থা অর্জন করতে হবে।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি