‘বড় সাহেবরা ঘুষ খাওয়া বন্ধ করলে ছোটরা সোজা হবে’

নিউজ ডেস্ক: স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম বলেছেন, অফিসের বড় সাহেব যদি ঘুষ থেকে বিরত থাকেন, তাহলে ছোট সাহেবরা ঘুষ খেতে পারবে না। কারণ প্রকৃতির নিয়ম অনুসারে পানি সব সময় ওপর থেকে নিচে নামে, নিচ থেকে ওপরে উঠে না। কাজেই বড় সাহেবরা ঘুষ খাওয়া বন্ধ করেন; দেখবেন ছোট সাহেবরা সোজা হয়ে গেছে।

তিনি বলেন, দারিদ্র্য চলে যাবে। যদি সেটা পরিকল্পিতভাবে যায় তাহলে আমরা ভালো ফল ভোগ করতে পারব। দেশটাকে ঠিক রাখতে পারলে সবাই ভালো থাকব। আর যদি না পারি আমি একা ভালো থাকার কোনো স্বার্থকতা নেই।

বৃহস্পতিবার কুমিল্লায় বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন একাডেমিতে (বার্ড) প্রতিটি গ্রামে আধুনিক নগর সুবিধা পৌঁছে দেয়ায় কর্মপন্থা শীর্ষক কর্মশালায় এসব কথা বলেন তিনি।

তিনি বলেন, একসময় আমাদের দেশে খাদ্য ঘাটতি ছিল। বর্তমানে আমরা খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ জাতি। খাদ্য উন্নয়নে আমাদের যথেষ্ট সম্ভাবনা রয়েছে। গরিব ও দারিদ্র্যসীমার মানুষগুলোকে আধুনিক নগরায়ণের মাধ্যমে দারিদ্র্যমুক্ত করতে হবে। বাংলাদেশকে একটি সুন্দর দেশে রূপান্তর করতে হলে আমাদেরকে সুন্দর মানুষ হতে হবে।

কর্মশালায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন- স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগের সচিব মো. কামাল উদ্দিন তালুকদার, কুমিল্লা বার্ডের মহাপরিচালক ড. এম মিজানুর রহমান ও যুগ্ম পরিচালক আবদুল কাদের প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন

বিএনপি কার্যালয়ের সামনে ককটেল বিস্ফোরণ করেছে রিজভীর কর্মীরা

বিএনপির নয়াপল্টন কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে কয়েকটি ককটেল বিস্ফোরণ করেছে দলটির নেতাকর্মীরা। তবে এতে কেনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। শনিবার (৩ ডিসেম্বর) সন্ধ্যা সোয়া ৬টার দিকে কার্যালয়ের সামনের সড়কে ডিভাইডারের পাশে এই বিস্ফোরণ ঘটে। কে বা কারা এই ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে তা জানা যায়নি। এ বিষয়ে পল্টন থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সেন্টু মিয়া বলেন, আমরা শুনেছি সন্ধ্যার দিকে […]

বিস্তারিত

বিভক্ত বিএনপি, কেন্দ্রীয় নেতাদের সামনেই দু’পক্ষের সংঘর্ষ

রাজশাহীর মাদ্রাসা মাঠে বিএনপির গণসমাবেশে কেন্দ্রীয় নেতাদের সামনেই দুই পক্ষের মধ্যে মারামারি ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ সময় প্ল্যাকার্ড ছোড়াছুড়ি করেন উভয়পক্ষের নেতাকর্মীরা। ব্যক্তিগত শো-ডাউনকে কেন্দ্র করে সাবেক সংসদ সদস্য নাদিম মোস্তফার বক্তব্য চলাকালে এ ঘটনা ঘটে। কেন্দ্রীয় নেতারা এ সময় বারবার তাদের নিবৃত্ত করার নির্দেশ দিলেও মারামারি চলতে থাকে। দুই পক্ষই সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। […]

বিস্তারিত

লাশের সন্ধানে বিএনপি

আগামী ১০ ডিসেম্বর ঢাকায় মহাসমাবেশে সন্ধানে বিএনপি। যেকোনো মূল্যে লাশ পড়তে হবে এটিই বিএনপির মূল আরাধ্য এবং এ ব্যাপারে বিএনপির নেতা কর্মীদেরকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। আগামী ১০ ডিসেম্বর ঢাকার মহাসমাবেশকে সামনে রেখে বিভিন্ন পর্যায়ে বিএনপি এখন সমাবেশ করছে। ওয়ার্ডে এবং থানাগুলোতে বিএনপির এই সমস্ত কর্মীসভা গুলোতে কোনো রকম ছাড় না দেওয়া এবং পুলিশ যদি সামান্যতম […]

বিস্তারিত