ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে কর্মহীনতার রেকর্ড

নিউজ ডেস্ক: জাতীয় পরিসংখ্যান কমিশনের (এনএসসি) যে প্রতিবেদন প্রকাশে কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে অনীহার অভিযোগ দুই পরিসংখ্যানবিদ পদত্যাগ করেছেন , বৃহস্পতিবার তার নির্যাস প্রকাশ্যে এল। সেই প্রতিবেদন অনুযায়ী, গত ৪৫ বছরে দেশে বেকারত্বের হার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির জমানায় সর্বোচ্চ। ভারতের অর্থনৈতিক দৈনিক ‘বিজনেস স্ট্যান্ডার্ড’ পত্রিকা এই দাবি করেছে। তারা বলেছে, অপ্রকাশিত ওই প্রতিবেদন তাদের হাতে এসেছে। সেই প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২০১৭–১৮ সালে সারা দেশে বেকারত্বের হার ছিল ৬ দশমিক ১ শতাংশ, যা গত ৪৫ বছরের যাবতীয় রেকর্ড তছনছ করে দিয়েছে।

স্বশাসিত সংস্থা এনএসসির দুই পরিসংখ্যানবিদ সদস্য ভারপ্রাপ্ত প্রধান পি সি মোহানন ও জে ভি মীনাক্ষী গতকাল বুধবার পদত্যাগ করেন। তাঁদের অভিযোগ, চূড়ান্ত হওয়া সত্ত্বেও কেন্দ্রীয় সরকার গত ডিসেম্বর থেকে কর্মসংস্থান–সংক্রান্ত এই প্রতিবেদন প্রকাশ করছে না। সংস্থাকে বিন্দুমাত্র গুরুত্বও দিচ্ছে না। দেশে কর্মসংস্থানের পরিসংখ্যান সম্পর্কে তাঁরা কোনো মন্তব্য না করলেও বিজনেস স্ট্যান্ডার্ড পত্রিকা জানিয়েছে, ২০১৭–১৮ সালে দেশে বেকারত্বের হার আকাশ ছুঁয়েছে। ওই সালে শহরাঞ্চলের বেকারত্ব ছিল ৭ দশমিক ৮ শতাংশ, গ্রামাঞ্চলে কিছুটা কম, ৫ দশমিক ৩ শতাংশ। গড় ৬ দশমিক ১ শতাংশ।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ২০১৬ সালে আচমকাই ১ হাজার ও ৫০০ রুপির নোট বাতিল করেন। ওই সিদ্ধান্তই গগনচুম্বী বেকারত্বের একমাত্র কারণ বলে বিরোধীরা মনে করেন। বিরোধী দাবি অনুযায়ী, নোট বাতিলের পাশাপাশি সারা দেশে অভিন্ন পণ্য ও পরিষেবা কর (জিএসটি) চালুর সিদ্ধান্ত বোঝার ওপর শাকের আঁটি হয়ে দাঁড়ায়। অথচ সরকার এই বাস্তবতাকে স্বীকার করতে চাইছে না। কংগ্রেস নেতা পি চিদাম্বরম বলেছেন, বছরে ২ কোটি চাকরির প্রতিশ্রুতি দিয়ে নরেন্দ্র মোদি প্রধানমন্ত্রী হয়েছিলেন। এনএসসির রিপোর্ট সত্য প্রকাশ করে দিয়েছে। এই রিপোর্ট সরকারের ব্যর্থতার দলিল।

বিজনেস স্ট্যান্ডার্ড জানিয়েছে, প্রতিবেদন অনুযায়ী গ্রামের ১৫–২৯ বছর বয়সী যুবকদের মধ্যে বেকারত্বের হার সবচেয়ে বেশি। ২০১১–১২ সালে এই বয়সীদের মধ্যে বেকারত্বের হার ছিল ৫ শতাংশ। ২০১৭–১৮–তে তা বেড়ে হয়েছে তিন গুণেরও বেশি, ১৭ দশমিক ৪ শতাংশ। ওই বয়সী গ্রামীণ মহিলাদের বেকারত্বের হার গত ৬ বছরে ৪ দশমিক ৮ শতাংশ থেকে বেড়ে হয়েছে ১৩ দশমিক ৬ শতাংশ। গ্রামের শিক্ষিত পুরুষদের মধ্যে বেকারত্বের হার ২০১৭–১৮ সালে ১০ দশমিক ৫ শতাংশ। ছয় বছর আগে ওই হার ছিল মাত্র ৪ দশমিক ৪ শতাংশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন

বাংলাদেশে জঙ্গি ছিনতাই: তারেককে নিয়ে এফবিআইয়ের সতর্কতা

নিউজ ডেস্ক : ঢাকার আদালত এলাকায় ‘পুলিশকে স্প্রে মেরে’ ছিনতাই করা হয়েছে জাগৃতি প্রকাশনীর প্রকাশক ফয়সল আরেফিন দীপন এবং লেখক অভিজিৎ রায় হত্যায় মৃতুদণ্ডপ্রাপ্ত দুই জঙ্গিকে। রোববার ২০ নভেম্বর দুপুরে পুরান ঢাকার আদালত পাড়ায় এ ঘটনার পর রেড অ্যালার্ট জারি করে ইতিমধ্যে দুই আসামিকে ধরিয়ে দিতে পুরস্কার ঘোষণা করা হয়েছে। এ ঘটনা ঘটার পর থেকে […]

বিস্তারিত

গোপন খবর ফাঁস! জো বাইডেনের ছেলেকে পরামর্শক হিসেবে নিয়োগ দিচ্ছে তারেক রহমান

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে লবিং করতে নতুন পদক্ষেপ নিয়েছে বাংলাদেশ জাতীয়বাদী দল বিএনপি। বর্তমান মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের প্রশাসনকে হাত করতে বাইডেনেরই এক পুত্রের সঙ্গে বিপুল অর্থের বিনিময়ে নিয়োগ দিতে চাচ্ছে বিএনপির দণ্ডপ্রাপ্ত পলাতক ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান। উইকলি ব্লিটজে প্রকাশিত এক প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, বাইডেন প্রশাসনকে বাগে আনতে হান্টার বাইডেনের সঙ্গে চুক্তি করছে বিএনপি। […]

বিস্তারিত

পিনাকী ভট্টাচার্যের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা

বিদেশে অবস্থানরত লেখক ও অনলাইন অ্যাকটিভিস্ট পিনাকী ভট্টাচার্যের বিরুদ্ধে ঢাকায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা হয়েছে। ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্স ন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) বিভাগ গত ১৫ অক্টোবর রাজধানীর রমনা থানায় তাঁর বিরুদ্ধে মামলা করে। মামলায় পিনাকী ভট্টাচার্যসহ তিনজনের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করার চক্রান্তে জড়িত থাকার অভিযোগ আনা হয়। এ মামলায় পিনাকীর […]

বিস্তারিত