রোহিঙ্গাদের নিরাপদ প্রত্যাবাসনে যুক্তরাষ্ট্রের আহ্বান

নিউজ ডেস্ক: রোহিঙ্গাদের নিরাপদ ও টেকসই প্রত্যাবাসন নিশ্চিত করতে মিয়ানমার ও বাংলাদেশের প্রতি জোরালো আহ্বান জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের ২১ জন প্রভাবশালী সিনেটর। ডেমোক্রেটিক ও রিপাবলিকান উভয় দলের এই সিনেটরদের আনা একটি প্রস্তাবে মিয়ানমারে অন্যায়ভাবে বন্দি রাখা সাংবাদিকদের মুক্তি দেওয়ারও আহ্বান জানানো হয়েছে।

সিনেটর জেফ মার্কলির নেতৃত্বে এই প্রস্তাবটি বৃহস্পতিবার (৩১ জানুয়ারি) আনা হয়েছে। এতে মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর তাণ্ডবের মুখে জীবন হাতের মুঠোয় নিয়ে পালিয়ে এসে বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের সম্মানজনক প্রত্যাবাসন চাওয়া হয়েছে। একইসঙ্গে প্রস্তাবে বলা হয়েছে, এই প্রত্যাবাসন যেন স্বতঃস্ফূর্ত হয়।

মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর তাণ্ডবের মুখে গত দেড় বছরে দেড় লাখের বেশি রোহিঙ্গা পালিয়ে এসে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে। সেনাবাহিনীর সদস্যরা রোহিঙ্গাদের গ্রামের পর গ্রাম জ্বালিয়ে দিয়েছে, তাদের ভিটেমাটি নিশ্চিহ্ন করেছে। এ ছাড়া ব্যাপক নারী ধর্ষণ, হত্যা ও জোরপূর্বক দেশত্যাগে বাধ্য করার জোরালো অভিযোগ আছে। এসব তথ্য উল্লেখ করে যুক্তরাষ্ট্রের সিনেটের এই প্রস্তাবে আরসার (এআরএসএ) হামলারও নিন্দা করা হয়েছে।

মার্কিন সিনেটরদের এই প্রস্তাবে মিয়ানমারের সামরিক বাহিনীর অপরাধ মানবতাবিরোধী নাকি গণহত্যা, তা নির্ধারণে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে। একইসঙ্গে মিয়ানমারের সিনিয়র জেনারেল মিন অং হ্লিংসহ এই র্ঘণ্য অপরাধের জন্য দায়ী ব্যক্তিদের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপও চেয়েছেন দ্বিদলীয় এই সিনেটররা।

রাখাইন রাজ্যে জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআরকে প্রবেশের পূর্ণ নিশ্চয়তা দেওয়াসহ তাদের কাজে পূর্ণ সহযোগিতা করতে মিয়ানমার সরকারের প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে প্রস্তাবে। এর পাশাপাশি রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেওয়াসহ তাদের ভরণপোষনে বাংলাদেশ সরকারের ইতিবাচক ভূমিকার প্রশংসা করা হয়েছে।

সিনেটর জেফ মার্কলে বলেন, ‘দেড় বছরের বেশি সময় ধরে মিয়ানমারের আর্মি রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে ভয়াবহ দমনপীড়নমূলক অভিযান পরিচালনা করছে।’

তিনি বলেন, ‘মিয়ানমারে মানবাধিকার লঙ্ঘন ও মুক্ত গণমাধ্যমের কণ্ঠরোধ কর্তৃত্ববাদী শাসনব্যবস্থার পরিচায়ক, গণতন্ত্রের নয়। আমরা তাদের এ অবস্থান মেনে নিতে পারি না।’

জেফ মার্কলে ছাড়া এই প্রস্তাবের পক্ষে থাকা সিনেটররা হলেন মার্কো রুবিও, ডিক ডারবিন, সুসান কলিনস, ডিয়ানে ফিয়েনস্টেইন, টড ইয়াং, বেন কার্ডিন, থম টিলিস, এলিজাবেথ ওয়ারেন, টিম কিয়ানে, ক্রিস ভ্যান হোলেন, শেরড ব্রাউন, এডওয়ার্ড জে. মারকে, রন উইডেন, বার্নি স্যানডারস, পেটি মুরে, ক্রিস কুনস, অ্যামি ক্লুবুচার, ক্যাথারাইন কর্টস মাসতো, ব্রেইন শাটজ, কমলা হ্যারিস এবং টিনা স্মিথ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন

বাংলাদেশে জঙ্গি ছিনতাই: তারেককে নিয়ে এফবিআইয়ের সতর্কতা

নিউজ ডেস্ক : ঢাকার আদালত এলাকায় ‘পুলিশকে স্প্রে মেরে’ ছিনতাই করা হয়েছে জাগৃতি প্রকাশনীর প্রকাশক ফয়সল আরেফিন দীপন এবং লেখক অভিজিৎ রায় হত্যায় মৃতুদণ্ডপ্রাপ্ত দুই জঙ্গিকে। রোববার ২০ নভেম্বর দুপুরে পুরান ঢাকার আদালত পাড়ায় এ ঘটনার পর রেড অ্যালার্ট জারি করে ইতিমধ্যে দুই আসামিকে ধরিয়ে দিতে পুরস্কার ঘোষণা করা হয়েছে। এ ঘটনা ঘটার পর থেকে […]

বিস্তারিত

গোপন খবর ফাঁস! জো বাইডেনের ছেলেকে পরামর্শক হিসেবে নিয়োগ দিচ্ছে তারেক রহমান

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে লবিং করতে নতুন পদক্ষেপ নিয়েছে বাংলাদেশ জাতীয়বাদী দল বিএনপি। বর্তমান মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের প্রশাসনকে হাত করতে বাইডেনেরই এক পুত্রের সঙ্গে বিপুল অর্থের বিনিময়ে নিয়োগ দিতে চাচ্ছে বিএনপির দণ্ডপ্রাপ্ত পলাতক ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান। উইকলি ব্লিটজে প্রকাশিত এক প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, বাইডেন প্রশাসনকে বাগে আনতে হান্টার বাইডেনের সঙ্গে চুক্তি করছে বিএনপি। […]

বিস্তারিত

পিনাকী ভট্টাচার্যের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা

বিদেশে অবস্থানরত লেখক ও অনলাইন অ্যাকটিভিস্ট পিনাকী ভট্টাচার্যের বিরুদ্ধে ঢাকায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা হয়েছে। ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্স ন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) বিভাগ গত ১৫ অক্টোবর রাজধানীর রমনা থানায় তাঁর বিরুদ্ধে মামলা করে। মামলায় পিনাকী ভট্টাচার্যসহ তিনজনের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করার চক্রান্তে জড়িত থাকার অভিযোগ আনা হয়। এ মামলায় পিনাকীর […]

বিস্তারিত