বই মেলা হচ্ছে বাঙালির প্রাণের মেলা: প্রধানমন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক: আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বই মেলা হচ্ছে বাঙালির প্রাণের মেলা। নিরাপত্তা ব্যবস্থার কারণে অন্যের অসুবিধা হয়। সেই বিবেচনা করে মেলায় আসা হয় না। তবে সত্যি কথা বলতে কি মনটা পড়ে থাকে এই বই মেলায়।

শুক্রবার (১ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে বাংলা একাডেমিতে মাসব্যাপী অমর একুশে গ্রন্থমেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

বইয়ের চাহিদা শেষ হওয়ার নয় মন্তব্য করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বর্তমান যুগ, ডিজিটাল যুগ। এখন মোবাইল ফোনেই সব কিছু পাওয়া যায়। তরুণ প্রজন্ম মোবাইল ফোন, ডিভাইস ব্যবহার করে। কিন্তু মোবাইলে বা ডিভাইসে বই পড়ে শান্তি পাওয়া যায় না। বইয়ের পাতা উল্টে উল্টে পড়ার মধ্যে যে আনন্দ আছে সেটা অন্যরকম। বইয়ের চাহিদা কখনো শেষ হবে না এটা আমি বলতে পারি। যতই আমরা যান্ত্রিকভাবে ব্যবহার করি না কেন বইয়ের পাতা মলাট এগুলা পড়ার মধ্যে যে আনন্দ আছে সেটা আমরা পেতে চাই। তবে অনলাইনে থাকলে গোটা বিশ্বের যেকোন প্রান্ত থেকেই বই পড়া যায়। তাই ‘ডিজিটাল লাইব্রেরি’ গড়ে তোলাটাও অনেক গুরুত্বপূর্ণ।

ভাষা আন্দোলন, স্বাধিকার আন্দোলনের স্মৃতিচারণা করে শেখ হাসিনা বলেন, বাঙালির ইতিহাস ত্যাগের ইতিহাস, সে ত্যাগের মধ্য দিয়ে আমাদের অর্জন। বাংলা ভাষা আমাদের মাতৃভাষ। মাতৃভাষার সম্মান রক্ষা করতে আমাদের দীর্ঘ সংগ্রাম করতে হয়েছে। ভাষা আন্দোলনের দেখানো পথে এসেছে স্বাধিকার আন্দোলন।

বক্তব্য শেষে মেলার শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করে স্মারক টিকেটে স্বাক্ষর করেন প্রধানমন্ত্রী। এরপর তিনি গ্রন্থমেলার কয়েকটি স্টল ঘুরে দেখেন। প্রকাশক ও বিক্রেতাদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন।

এর আগে সমবেত কণ্ঠে জাতীয় সংগীতের মধ্য দিয়ে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শুরু হয়। এরপর চার ধর্মগ্রন্থ থেকে কিছু অংশ পাঠ, সূচনা সঙ্গীত পরিবেশন, ভাষা শহীদদের স্মরণে এক মিনিট নীরাবতা পালন ও সিক্রেটস ডকুমেন্টস অব ইন্টেলিজেন্স ব্রাঞ্চ অন ফাদার অব দ্যা নেশন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ভলিউম-২ (১৯৫১-১৯৫২) শীর্ষক বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করা হয়।

বাংলা একাডেমির সভাপতি জাতীয় অধ্যাপক আনিসুজ্জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন একাডেমির মহাপরিচালক কবি হাবিবুল্লাহ সিরাজী, শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব আবু হেনা মোস্তফা কামাল, বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ, সম্মানিত অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন ভারতের পশ্চিমবঙ্গের প্রখ্যাত কবি শঙ্খ ঘোষ এবং মিসরের লেখক, গবেষক ও সাংবাদিক মোহসেন আল-আরিশি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন

বাঙালি আবারও অপরাজনীতিকে রুখে দিবে : ডেপুটি স্পিকার

ডেপুটি স্পিকার মো শামসুল হক টুকু বলেছেন, বাঙালি আবারও অপরাজনীতিকে রুখে দিবে। ডেপুটি স্পিকার শামসুল হক টুকু সাঁথিয়া থিয়েটারের ৪০ বছর পূর্তি উপলক্ষে লোকনাট্য উৎসব অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন। ‘হাতের মুঠোয় হাজার বছর, আমরা চলেছি সামনে’ প্রতিপাদ্যে সাঁথিয়া গ্রাম থিয়েটারের উদ্যোগে অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর […]

বিস্তারিত

প্রধানমন্ত্রীর সফরে মোতায়েন থাকবে সাড়ে ৭ হাজার পুলিশ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার চট্টগ্রাম সফরকে ঘিরে বিশেষ পরিকল্পনা নিয়েছে চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশ (সিএমপি)। প্রধানমন্ত্রীর সফরকে ঘিরে নগরজুড়ে মোতায়েন থাকবে সাড়ে সাত হাজার পুলিশ। প্রযুক্তি এবং গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে সাজানো হয়েছে নিরাপত্তা পরিকল্পনা। সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রীর সমাবেশস্থল পলোগ্রাউন্ড মাঠ পরিদর্শন করে এ তথ্য জানান সিএমপি কমিশনার কৃষ্ণ পদ রায়। এ সময় সিএমপি কমিশনার বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তা ব্যবস্থা […]

বিস্তারিত

পলাতক আসামি এখন প্রধানমন্ত্রী হতে চান: হানিফ

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সমালোচনা করে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ বলেছেন, তারেক রহমান মুচলেকা দিয়ে দেশ ছেড়ে চলে গেছেন। পলাতক আসামি, এখন আবার প্রধানমন্ত্রী হতে চান। তাদের স্বপ্ন কোনোদিন পূরণ হবে না। সম্প্রতি চট্টগ্রাম মহানগরীর কাজির দেউরি ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সেন্টারে এক সভায় এসব কথা বলেন তিনি। ৪ ডিসেম্বর পলোগ্রাউন্ড ময়দানে […]

বিস্তারিত