আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর জালে আরও দুই ভুয়া প্রশ্নপত্র ফাঁসকারী সদস্য আটক

নিউজ ডেস্ক: ২০১৯ সালের এসএসসি পরীক্ষা চলছে। গত ২ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হওয়া চলমান এসএসসি পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে প্রশ্নপত্র ফাঁস ও ফাঁসের গুঞ্জন বিষয়ে কঠোর অবস্থান নিয়েছে সরকার। এই পদক্ষেপের ফলে বিভিন্ন সময় ধরা পড়েছে চক্রের একাধিক সদস্য। প্রশ্ন ফাঁসের মতো ভয়াবহ সামাজিক ব্যাধি রুখে দিতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর এই তৎপরতা অব্যাহত রাখা হবে। একে যুগান্তকারী পদক্ষেপ বলে বিচেনা করেছেন শিক্ষাবিদরা।

প্রসঙ্গত, ৯ ফেব্রুয়ারি টাঙ্গাইলের ঘাটাইলে গণিত পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁসের ঘটনায় দুইজনকে আটক করেছে পুলিশ। আটককৃতরা হলেন, সাগরদিঘী শ্যামল কোচিং সেন্টারের পরিচালক শ্যামল সাহা ও সাগরদিঘী উচ্চ বিদ্যালয়ের দপ্তরি আব্দুর রহমান।

ঘাটাইলের সাগরদিঘী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের পরিদর্শক (ওসি) আশরাফুল ইসলাম জানান, সাগরদিঘী এসএসসি পরীক্ষা কেন্দ্রের বাইরে শ্যামল সাহা ও দপ্তরি আব্দুর রহমানকে আজকের গণিত পরীক্ষার প্রশ্নপত্রসহ হাতে নাতে ধরে পুলিশ। পরে তাদের আটক করে পুলিশি হেফাজতে নেয়া হয়।

এর আগে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর তথ্য অনুযায়ী, এসএসসি পরীক্ষা শুরুর আগে থেকেই সামাজিক যোগাযোগের বিভিন্ন মাধ্যমসহ বোর্ড পরীক্ষায় প্রশ্নপত্র ফাঁস চক্রের সঙ্গে জড়িত সন্দেহভাজনদের চিহ্নিত করে নানামুখী পদক্ষেপ গ্রহণ করায় ভুয়া প্রশ্নপত্র ফাঁস সংক্রান্ত তৎপরতায় সাতক্ষীরা, মুন্সিগঞ্জ, গাজীপুর, যশোর, জামালপুরসহ দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে অন্তত ১০ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। যারা প্রত্যেকেই প্রশ্নপত্র ফাঁসের গুজব ছড়িয়ে বিভিন্নভাবে অর্থ হাতিয়ে নেয়ার চেষ্টা চালাচ্ছিল। টাঙ্গাইলের ঘটনায় এখন পর্যন্ত ১২ জনকে আটক করল আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা।

আসন্ন প্রতিটি পরীক্ষাতেই এমন তৎপরতা অব্যাহত থাকবে জানিয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বলেন, প্রশ্নপত্র ফাঁস একটি সামাজিক ব্যাধিতে রূপান্তরিত হয়েছিল। যা এখন প্রায় শূন্যের কোটায় নেমে এসেছে। এর পেছনে যেমন সরকার, শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে শুরু করে শিক্ষা সংশ্লিষ্ট সকলের অবদান রয়েছে তেমনি সফলতার পেছনেও সমাজের সকল স্তরের মানুষেরও ভূমিকা কম নয়। তাই আগামীতেও এই ধারা অব্যাহত রেখে শিক্ষার সুষ্ঠু পরিবেশ নিশ্চিত করা এখন আমাদের সকলের দায়িত্বের আওতায় পড়ে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন

সোহরাওয়ার্দীতে রাজি মির্জা আব্বাস, আপত্তি ফখরুলদের

নিউজ ডেস্ক : ১০ ডিসেম্বরের গণসমাবেশ নিয়ে শুরু থেকেই একর পর এক নাটক করে যাচ্ছে বিএনপি। এদিন সরকারকে টেনে নামাবে বলে ঘোষণা দিয়েছে দলটির নেতারা। অথচ বিএনপির দাবি অনুযায়ী সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশ করার অনুমতি দিয়েছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)। এতেই বাধে বিপত্তি। দলের একটি অংশ সোহরাওয়ার্দীতে সমাবেশ করতে রাজী হলেও বাকীরা চায় দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয় […]

বিস্তারিত

যে কারণে সমাবেশের জন্য ১০ ডিসেম্বর বেছে নিল বিএনপি

নিউজ ডেস্ক: স্বাধীনতাবিরোধী ও জনবিচ্ছিন্ন দল বিএনপি তাদের সমাবেশের তারিখ ১৬ ডিসেম্বর অর্থাৎ বাংলাদেশের বিজয় দিবসের পর না দিয়ে কেন ১০ ডিসেম্বর বেছে নিয়েছে, এই প্রশ্ন এখন জনমনে। তারা বলছেন, বিএনপি কি জানে না বাংলাদেশের ইতিহাস? ১৯৭১ সালের ১০ ডিসেম্বর বুদ্ধিজীবী হত্যার নীলনকশা বাস্তবায়নের প্রক্রিয়া শুরু হয়। ১০ থেকে ১৪ ডিসেম্বর পর্যন্ত এ বুদ্ধিজীবী হত্যার […]

বিস্তারিত

সুসংগঠিত না হয়ে কাঁচের মতো টুকরো টুকরো বিএনপি

নিউজ ডেস্ক: দেয়ালে পিঠ ঠেকে গেলে সবাই-ই মুখ খোলে। খুলতে বাধ্য হয়। বিএনপি নেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার ক্ষেত্রেও তার ব্যতিক্রম হলো না। গুলশানের বাসায় গৃহপরিচারিকা ফাতেমার কাছে আক্ষেপ করে তিনি বললেন, আজ যা এতকিছু। সব কিছুর জন্য তারেকই দায়ী। তার জন্যই দলটা শেষ হয়ে গেছে। নেতাকর্মীরা কেউই এখন আর কোন আন্দোলন-সংগ্রামে আসতে চান না। আর […]

বিস্তারিত