বলিউড তারকা তনুশ্রী দত্ত ডাক পেলেন হার্ভার্ডে

নিউজ ডেস্ক: ২০০৪ সালের ‘মিস ইন্ডিয়া’ ও একসময়ের বলিউড তারকা তনুশ্রী দত্ত বলিউডের শক্তিমান অভিনেতা নানা পাটেকারের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ তুলে হইচই ফেলে দেন। ১০ বছর আগে ‘হর্ন ওকে প্লিজ’ ছবির শুটিংয়ের সময় নানা পাটেকার তাঁকে যৌন হয়রানি করেছেন বলে অভিযোগ। ২০০৫ সালে ‘চকলেট’ ছবির শুটিংয়ের সময় পরিচালক বিবেক অগ্নিহোত্রী তাঁকে জামা খুলে অন্য দুই শিল্পী সুনীল শেঠি আর ইরফান খানের সামনে নাচার জন্য বলেছিলেন। এরপরই বলিউডের অনেক অভিনেত্রী ‘#মি টু’ নিয়ে মুখ খোলেন। এবার সেই তনুশ্রী দত্ত ডাক পেলেন হার্ভার্ড বিজনেস স্কুল থেকে। লড়াকু জীবনের কথা তাঁর মুখ থেকে শুনতে ডাক পাঠাল হার্ভার্ড বিজনেস স্কুল।

হিন্দুস্তান টাইমসের খবরে বলা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের বোস্টনের ম্যাসাচুসেটসের হার্ভার্ড বিজনেস স্কুল থেকে তনুশ্রী দত্ত আমন্ত্রণ পেয়েছেন। শনিবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) সেখানে ‘ইন্ডিয়া কনফারেন্স ২০১৯’-এর উদ্বোধন করবেন হার্ভার্ড বিজনেস স্কুল ও কেনেডি স্কুলের স্নাতকোত্তরের শিক্ষার্থীরা। সেই অনুষ্ঠানেই তনুশ্রী দত্ত তাঁর অভিজ্ঞতার কথা জানাবেন। ওই অনুষ্ঠানে বক্তা হিসেবে আরও উপস্থিত থাকবেন সমাজসেবী অরুণা রায়, সাংবাদিক বারখা দত্ত, বাহুবলীর পরিচালক এস এস রাজামৌলি এবং রাজনীতিবিদ আসাদ উদ্দিন ওয়াইসি।

রোববার ইনস্টাগ্রামে নিজেই হার্ভার্ড বিজনেস স্কুল থেকে আমন্ত্রণের কথা জানান তনুশ্রী দত্ত।

এই আমন্ত্রণের কারণে তনুশ্রী দত্তের পরিচিতি একটু বদলে গেল। যৌন হেনস্তার অভিযোগ এনে ‘#মি টু’ আন্দোলন নিয়ে মুখ খুলে আন্তর্জাতিক খবরের শিরোনামে উঠে আসেন তিনি। সেই কষ্টের কথা শুনতেই এবার ডাক এল হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয় থেকে। লড়াকু জীবনের কথা তাঁরই মুখ থেকে শুনতেই হার্ভার্ড বিজনেস স্কুল তাঁকে ডেকে পাঠিয়েছে।

২০০৪ সালে ‘ফেমিনা মিস ইন্ডিয়া ইউনিভার্স’ ও সাবেক বলিউড তারকা তনুশ্রী দত্ত অভিযোগ করেন, ২০০৯ সালে মুক্তি পাওয়া ‘হর্ন ওকে প্লিজ’ ছবি করতে গিয়ে নানা পাটেকার তাঁকে যৌন হেনস্তা করেছেন। এরপর অপ্রত্যাশিত নানা প্রশ্নের মুখোমুখি হতে হচ্ছে নানা পাটেকারকে। এ সময়ের তুমুল জনপ্রিয় কয়েকজন বলিউড তারকা তাঁর সঙ্গে কাজ করার ব্যাপারে আপত্তি জানিয়েছেন। প্রখ্যাত এই অভিনেতার অভিনয়জীবনের ভবিষ্যৎ এখন প্রশ্নের মুখে পড়েছে। চুক্তি হয়েছে, এমন কয়েকটি ছবি থেকে তাঁকে বাদ দেওয়া হয়েছে। এদিকে তিনি খুব প্রয়োজন ছাড়া বাড়ির বাইরে বের হন না। সাংবাদিক, টিভি ক্যামেরা ও সংবাদমাধ্যমকে এড়িয়ে চলছেন।

বিশ্বের অনেক দেশেই যখন হ্যাশট্যাগ মি টু আন্দোলন জনপ্রিয় হয়ে উঠছিল, ঠিক তখন প্রায় ১০ বছর আগে ঘটে যাওয়া একটি ঘটনা সামনে এনে ভারতে এই আন্দোলনের সূচনা করেন তনুশ্রী দত্ত। তিনি মুখ খোলার পর চরম বিরোধিতার মুখে পড়েন। অল্প দিনেই ভারতে এই আন্দোলন শক্তিশালী রূপ নেয়। ভারতে হ্যাশট্যাগ মি টু আন্দোলনের সূচনার শতভাগ কৃতিত্ব দেওয়া হয় তনুশ্রী দত্তকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরও দেখুন

বিএনপি বিদেশিদের দিয়ে সরকার উৎখাত করার স্বপ্ন দেখছে: হানিফ

Share this… Facebook 0 Twitter Telegram Linkedin বিএনপি বিদেশিদের দিয়ে সরকার উৎখাত করার স্বপ্ন দেখছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ। তিনি বলেন, মহান মুক্তিযুদ্ধে পাকিস্তানের পরাজয় হলেও বর্তমান বাংলাদেশে তাদের এজেন্টরা এখনো বেঁচে আছে। তারা (বিএনপি) নানান সময়ে নানা মিথ্যাচার করে, অভিযোগ করে বিদেশিদের দিয়ে সরকার উৎখাত করার স্বপ্ন […]

বিস্তারিত

ষড়যন্ত্র প্রতিরোধে শপথ নিতে হবে: কৃষিমন্ত্রী

Share this… Facebook 0 Twitter Telegram Linkedin আওয়ামী লীগ সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর খুনিরা আজও ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে। মুক্তিযুদ্ধবিরোধী জামায়াত-বিএনপির সব ষড়যন্ত্র প্রতিরোধ করতে সবাইকে শপথ নিতে হবে। বৃহস্পতিবার রাজধানীর জহির রায়হান সাংস্কৃতিক কেন্দ্রে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে গেন্ডারিয়া থানা আওয়ামী লীগ আয়োজিত আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে এসব […]

বিস্তারিত

চৌদ্দগ্রামে বিএনপি কার্যালয় ভাঙচুর করলেন যুবদল নেতা

Share this… Facebook 0 Twitter Telegram Linkedin কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে দলীয় কর্মসূচিতে দাওয়াত না পেয়ে বিএনপি কার্যালয়ের আসবাবপত্র ভাঙচুর করেছেন যুবদল নেতা নাজমুল হক। তিনি চৌদ্দগ্রাম উপজেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক। জানা গেছে, বুধবার সন্ধ্যায় চৌদ্দগ্রাম বাজারের বিএনপির কার্যালয়ে উপজেলা ও পৌর বিএনপির উদ্যোগে এক দোয়া মাহফিল ও আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। পৌর বিএনপির সদস্য সচিব […]

বিস্তারিত