অভিনয়ে সেরা জুটি থেকে ভালোবেসে স্বামী-স্ত্রী শাবনাজ-নাঈম

নিউজ ডেস্ক: একে অপরকে ভালোবেসে প্রেম, পরে বিয়ে করে সুখে সংসার করছেন নব্বই দশকের সেরা জুটি শাবনাজ-নাঈম। টানা অভিনয় করতে গিয়ে সম্পর্ক গড়ে ওঠে তাঁদের। অল্প সময়ের মধ্যে তাঁরা বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন। বিয়ের পর দুজনই অভিনয় থেকে দূরে সরে দাঁড়ান। কীভাবে তাঁদের মধ্যে প্রেম হয়েছে, সে বিষয়ে কথা বলেন তাঁরা।

নাঈম বলেন, “১৯৯১ সালে ‘চাঁদনী’ চলচ্চিত্রটি মুক্তি পায়। তারপর একের পর এক চলচ্চিত্রে আমরা চুক্তিবদ্ধ হতে থাকি। শুটিং করতে করতে দিনে প্রায় ১৬ ঘণ্টা একসঙ্গে থাকতে হয়েছে আমাদের। তখন আমাদের মধ্যে এক ধরনের বন্ধুত্ব তৈরি হয়। আমরা নিজেদের মধ্যে ভালোলাগা, মন্দলাগা শেয়ার করতাম। আবার ঝগড়া-বিবাদও হয়েছে অনেক বিষয় নিয়ে। পরক্ষণে আবার মিটেও গেছে। এভাবেই আমাদের মধ্যে সুসম্পর্ক গড়ে ওঠে। আমাদের মধ্যে বোঝাপড়া দিন দিন ভালো হতে থাকে। এসময় শাবনাজের পরিবারের সঙ্গে আমার ঘনিষ্ঠতা তৈরি হয়। পারিবারিক ঘনিষ্ঠতা এবং একাধিক ছবিতে একসঙ্গে কাজ করতে করতে দুজনের মধ্যে ভালোলাগা এবং ভালোবাসার সম্পর্ক গড়ে ওঠে।’

শাবনাজ বলেন, ‘সিলেটে আমরা একটি ছবির শুটিং করছিলাম। শট দেওয়ার পর সুন্দর একটি জায়গায় বসে আছি। এমন সময় নাঈম আমাকে প্রপোজ করে। কথা শুনে আমি অনেক লজ্জা পাই। সিনেমায় আমরা অনেকবার এমন কথা বলেছি। তবে বাস্তবে বিষয়টি একেবারেই আলাদা মনে হয়েছে। অবশ্য আমি এর আগে থেকেই মনে মনে ভালোবেসে ফেলেছি। এরপর আমি আমার পরিবারের সঙ্গে বলি। এরই মধ্যে আমাদের পরিবারের কাছে নাঈম অনেক ভালো ছেলে হিসেবে গ্রহণযোগ্যতা পেয়ে গিয়েছিল।’

শাবনাজের কথা টেনে নিয়ে নাঈম বলেন, ‘আমিও বহু সিনেমায় শাবনাজকে এমন প্রেমের কথা বলেছি। তবে বাস্তবে বিষয়টা একেবারেই আলাদা। আমি শাবনাজের মুখ দেখেই বুঝে গেলাম, সে আমাকে ভালোবাসে। তারপর আমরা দুজনই পরিবারের সঙ্গে কথা বলে, সবার সম্মতি নিয়ে বিয়ে করি। বিয়ে করার পর সবার দোয়ায়, সুখে-শান্তিতে ঘর করছি।’

প্রেমিক অভিনেতা থেকে স্বামী নাঈম সম্পর্কে শাবনাজ বলেন, ‘পর্দায় নাঈমকে আমি যেমন পেয়েছি। বাস্তব জীবনেও তা পেয়েছি। আমরা সুখে-শান্তিতে এতগুলো দিন পার করেছি।’

প্রসঙ্গত, বাংলা চলচ্চিত্রের অন্যতম সেরা রোমান্টিক এ জুটি শাবনাজ-নাঈম বাংলা সিনেমাকে নিয়ে গিয়েছিলেন অনন্য এক উচ্চতায়। নব্বইয়ের দশকের শুরুতে এহতেশাম পরিচালিত ‘চাঁদনী’ ছবির মাধ্যমে চলচ্চিত্রে আসেন তাঁরা। প্রথম ছবিতেই জুটি হিসেবে ব্যাপক সাড়া জাগান নাঈম-শাবনাজ। এরপর জুটি হিসেবে তাঁরা অভিনয় করেন ‘লাভ’, ‘চোখে চোখে’, ‘দিল’, ‘টাকার অহংকার’, ‘ঘরে ঘরে যুদ্ধ’, ‘সোনিয়া’, ‘অনুতপ্ত’সহ বেশ কয়েকটি ছবি। প্রায় ২০টির মতো ছবিতে এই জুটি অভিনয় করে। প্রতিটি ছবিই হয় জনপ্রিয় ও ব্যবসা সফল।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরও দেখুন

লতা মঙ্গেশকর আর নেই

Share this… Facebook 0 Twitter Telegram Linkedin ৯২ বছরে শেষ হলো কিংবদন্তিতুল্য কণ্ঠশিল্পী লতা মঙ্গেশকরের কর্মময় পথচলা। হাসপাতালে দীর্ঘ লড়াইয়ের পর চলে গেলেন উপমহাদেশের সংগীতের এই প্রবীণ মহাতারকা। রোববার সকাল ৮টা ১২ মিনিটে মধ্য মুম্বাইয়ের ব্রিচ ক্যান্ডি হাসপাতালে শেষনিশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। টাইমস অব ইন্ডিয়া, হিন্দুস্তান টাইমসসহ বেশ কিছু ভারতীয় গনমাধ্যম খবরটি নিশ্চিত করেছে। নিশ্চিত […]

বিস্তারিত

মা হচ্ছেন পরীমণি, বাবা চিত্রনায়ক রাজ

Share this… Facebook 0 Twitter Telegram Linkedin বছরের শুরুতেই সুখবর দিলেন ঢাকাই ছবির আলোচিত নায়িকা পরীমণি। জানালেন, মা হচ্ছেন তিনি। বাবা চিত্রনায়ক শরিফুল রাজ। কিছু দিন আগে তারা বিয়েও করেছেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পরিচালক গিয়াসউদ্দিন সেলিম। মূলত তার ছবি ‘গুনিন’-এ কাজ করতে গিয়েই এই তারকারা প্রেমে পড়েন ও বিয়ে করেন। পরীমণি জানান, গিয়াসউদ্দিন সেলিমের ছবির […]

বিস্তারিত

পরীমনির মত খালেদা জিয়ারও সুন্দরী কোটায় মুক্তি দাবি!

Share this… Facebook 0 Twitter Telegram Linkedin ডেস্ক রিপোর্ট: মাদক মামলা থেকে সম্প্রতি জামিন পেয়েছেন চিত্রনায়িকা পরীমনি। বিষয়টি নিয়ে সারাদেশে নানা আলোচনা চলছে। পক্ষে-বিপক্ষে নানাজন নানা কথা বলছেন। তবে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা জাফরুল্লাহ চৌধুরী বিষয়টিকে অন্যভাবে দেখছেন। পরীমনি একজন সুন্দরী নায়িকা, তাই দ্রুত তার মুক্তি হয়েছে উল্লেখ করে জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেছেন, বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াও […]

বিস্তারিত