বগুড়ার বিএনপি নেতা শোকরানার দল ত্যাগের গুঞ্জন

নিউজ ডেস্ক: বিএনপির কেন্দ্রীয় সদস্য ও বগুড়া জেলা শাখার উপদেষ্টা মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ শোকরানার দেশ এবং দল ছাড়ার গুঞ্জন উঠেছে। এ গুঞ্জনে দলের নেতাকর্মী ও সমর্থকদের মধ্যে বিরূপ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে।

সমর্থকরা জানান, মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ শোকরানা দেশ স্বাধীনের পর বগুড়ায় ছাত্রলীগ ও যুবলীগের সক্রিয় রাজনীতি করতেন। ১৯৯৯ সালে বিএনপিতে যোগদান করেন তিনি। সফল ব্যবসায়ী শোকরানা সবসময় বিএনপির রাজনীতিতে যুক্ত ছিলেন।

২০০৭ সালে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময় ব্যবসায় দূর্নীতির কারণে গ্রেফতার হন। ২০০৮ সালের নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বগুড়া-১ (সারিয়াকান্দি-সোনাতলা) আসনে আওয়ামী লীগের আবদুল মান্নানের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করে হেরে যান।

সর্বশেষ একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নিতে ব্যাপক প্রচারণা চালান। কিন্তু হাইকমান্ড সাবেক এমপি কাজী রফিকুল ইসলামকে টিকিট দেয়ায় তিনি হতাশ হন। এরপর থেকে রাজনীতি থেকে কিছুটা দূরে থাকেন। তাকে দলের সভা-সমাবেশে তেমন দেখা যায়নি।

তখন থেকে প্রচারণা ছড়িয়ে পড়ে শোকরানা শহরতলির ছিলিমপুরে তার তারকা হোটেল নাজ গার্ডেনসহ সব ব্যবসা প্রতিষ্ঠান   বিক্রি বা তার পরিবারের সদস্যদের নামে দলিল করে দিচ্ছেন। পরে তিনি স্ত্রী নাজনীন শোকরানাকে সঙ্গে নিয়ে কানাডা প্রবাসী ছেলে শাফিন আহমেদ রন্টির কাছে চলে যাবেন।

তবে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক জেলা বিএনপির দায়িত্বশীল এক নেতা জানান, পারিবারিক সমস্যা ও জাতীয় সংসদ নির্বাচনে টিকিট বঞ্চিত হওয়ায় শোকরানা প্রচণ্ড হতাশ। এ কারণে তিনি দল ও রাজনীতি ছাড়ার সিদ্ধান্ত নেন। তাই তিনি তার হোটেল ও বাড়ি বিক্রির চেষ্টা করছেন। ঢাকা ও বগুড়ার বড় ব্যবসায়ীরা দরদাম করছেন। শিগগিরই এসব বিক্রি হয়ে যাবে। শোকরানার ফোন বন্ধ থাকায় তার বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

এ প্রসঙ্গে শোকরানার ঘনিষ্টজন সারিয়াকান্দি উপজেলা বিএনপির সভাপতি সুজাউদ্দৌলা সঞ্জু জানান, তার নেতা (শোকরানা) কানাডা প্রবাসী ছেলের জমজ সন্তানকে দেখতে শনিবার সকালে বিমানে বাংলাদেশ ত্যাগ করেছেন।

ফোন বন্ধ রাখায় জেলা বিএনপির সভাপতি সাইফুল ইসলামের বক্তব্য পাওয়া যায়নি। সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আবেদীন চাঁন জানান, মুখে মুখে এমন কথা শোনা গেলেও এর কোনো সত্যতা পাওয়া যায়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরও দেখুন

জাহেলিয়াতের যুগকেও হার মানায় বিএনপির শাসনামল

Share this… Facebook 0 Twitter Telegram Linkedin নিউজ ডেস্ক: যুদ্ধাপরাধী, স্বাধীনতাবিরোধী চক্রের সাথে জোট বেধে ২০০১ সালের কারচুপির নির্বাচনে জয়ী হয় বিএনপি। বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের শ্রেষ্ঠ অর্জন ছিল দুর্নীতি এবং দুঃশাসন। জানা গেছে, রাষ্ট্রীয় দুর্নীতি, দুঃশাসন, সীমাহীন লুটপাটে নিজের সন্তান তারেক রহমান ও মন্ত্রী-এমপিদের পৃষ্ঠপোষকতা করে তৎকালীন নিরক্ষর প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া দেশ-বিদেশি কুখ্যাতি অর্জন […]

বিস্তারিত

মির্জা ফখরুলের পারফর্মেন্সে চরম অসন্তুষ্ট বেগম জিয়া

Share this… Facebook 0 Twitter Telegram Linkedin নিউজ ডেস্ক: বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলামের ধীরে চলা নীতি, জামায়াত বিরোধিতার কারণে তার প্রতি চরম ক্ষুব্ধ বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। বিশেষ করে কোনো প্রকারের আন্দোলন না করে কেবল বক্তৃতায় নিজেকে আবদ্ধ রাখায় মির্জা ফখরুলের পারফর্মেন্সে চরম অসন্তুষ্ট বেগম জিয়া। গুঞ্জন উঠেছে, শিগগিরই তাকে ডেকে এনে মহাসচিবের […]

বিস্তারিত

যেভাবে বিএনপিকে মাটিতে মিশিয়ে দিলেন তারেক রহমান

Share this… Facebook 0 Twitter Telegram Linkedin নিউজ ডেস্ক: বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের কারণে বেহাল হয়ে পড়েছে বিএনপি। দুর্নীতির বিভিন্ন অভিযোগে তারেক রহমান বছর দেড়েক কারাগারে থেকে ২০০৮ সালে চিকিৎসার জন্য লন্ডনে চলে আসেন এবং ১৪ বছর ধরে লন্ডনেই আছেন। জানা গেছে, দলের সিনিয়র নেতাদের প্রতি অসম্মান, অন্য দল ও প্রশাসনের দায়িত্বশীলদের তুচ্ছ-তাচ্ছিল্য এবং […]

বিস্তারিত