এবার সৌদি যুবরাজকে ঘিরে পাকিস্তানে হাজার আয়োজন

নিউজ ডেস্ক: সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান ১৭ ফেব্রুয়ারি দুই দিনের সফরে পাকিস্তান যাবেন। এই সময় দুই দেশের মধ্যে তিনটি বড় সমঝোতা স্মারক ও ১ হাজার কোটি ডলারের বেশি অর্থের বিভিন্ন চুক্তি সম্পন্ন হবে। এসব ছাপিয়ে যুবরাজের সফরের জাঁকাল আয়োজন সবার দৃষ্টি কেড়েছে। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য বিষয় এখানে তুলে ধরা হলো।

পাকিস্তানের পিএম হাউসে থাকা প্রথম রাষ্ট্রীয় অতিথি হবেন যুবরাজ বিন সালমান।
রাজকীয় রক্ষীসহ ৪০ সদস্যের বিশাল এক দলের নেতৃত্ব দেবেন যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান।
নূর খান এয়ারবেস থেকে হেলিকপ্টারে করে পিএম হাউসে উড়ে যাবেন যুবরাজ।
পিএম হাউসের নিরাপত্তায় পাকিস্তানি নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে থাকবে সৌদি নিরাপত্তা দলও।
এরই মধ্যে দুটি সি-১৩০ এয়ারক্রাফট উড়ে গেছে পাকিস্তানে। এগুলোতে করে নেওয়া হয়েছে বিএমডব্লিউ সেভেন সিরিজের সাতটি বিলাসবহুল গাড়ি ও একটি ল্যান্ড ক্রুজার।
যুবরাজ সঙ্গে করে নিয়ে এসেছেন আসবাব, ব্যায়ামের সরঞ্জামসহ প্রচুর ব্যক্তিগত ব্যবহার্য জিনিস। এগুলো পিএম হাউসে নিয়ে যেতে আটটি কনটেইনার লেগেছে।
যুবরাজ ও তাঁর প্রতিনিধিদলের জন্য ইসলামাবাদের আটটি হোটেলের ৭৫০টি কক্ষ ভাড়া করা হয়েছে। এসব হোটেলে আগের বুকিং বাতিল করা হয়েছে।
নিরাপত্তার খাতিরে হোটেলগুলো বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। সরকারি কর্মকর্তারা নিরাপত্তার দায়িত্ব নিয়েছেন।
যুবরাজের চারপাশে থাকবেন রাজকীয় প্রতিনিধি, গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রী ও শীর্ষ ব্যবসায়ীরা।
এ সফরের খরচ বহন করবে সৌদি সরকার।
যুবরাজ যেসব যানবাহন ব্যবহার করবেন, সেগুলো একটি বিশেষ ফ্লাইটে করে আনা হয়।
এই সফরে সৌদি চিকিৎসক, গণমাধ্যমের কর্মীও রয়েছেন।
যুবরাজের সফরকে ঘিরে দুটি শহরে উচ্চ সতর্কতা জারি করা হয়েছে।
রাজধানী ইসলামাবাদে ১৭ ও ১৮ ফেব্রুয়ারি ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে।
ইসলামাবাদের আকাশসীমা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।
নূর খান এয়ারবেসের চারপাশে চিরুনি তল্লাশি ও অভিযান চলছে।
দুদিনের জন্য মোবাইল সার্ভিস আংশিক স্থগিত করা হয়েছে।
পুলিশের ছুটি বাতিল করা হয়েছে।
দুটি শহরে এক হাজার তল্লাশি চৌকি বসানো হয়েছে। প্রতিটি পুলিশ স্টেশনে পাঁচটি করে চৌকি বসানো হয়েছে।
পুলিশ কর্মকর্তাদের বিশেষ অ্যাসাইনমেন্ট দেওয়া হয়েছে।
এলিট ফোর্স কমান্ডোদের গুরুত্বপূর্ণ ভবনের ছাদে ও সংবেদনশীল পয়েন্টে নিয়োগ করা হয়েছে।
সড়কপথগুলোর পুরোপুরি নিরাপত্তার দায়িত্বে রয়েছেন আইন প্রয়োগকারী সংস্থার লোকজন।
দুই দিন প্রধান প্রধান সড়কে যানবাহন বেশি চলাচল করবে না।
যুবরাজ যখন অবতরণ করবেন, তখন পুরোনো বিমানবন্দর সড়ক বন্ধ থাকবে।
যানবাহনগুলোকে অন্য সড়ক দিয়ে পরিচালিত করতে ১০০ ট্রাফিক ওয়াড্রেন মোতায়েন করা হয়েছে।
দুটি শহরে গেস্ট হাউস ও ব্যক্তিমালিকানাধীন হোস্টেলগুলোতে তল্লাশি চালানো হচ্ছে।
তল্লাশির সুবিধার্থে জনসাধারণকে জাতীয় পরিচয়পত্র বা অন্যান্য পরিচয়পত্র সঙ্গে রাখতে বলা হয়েছে।
যেকোনো ধরনের ড্রোন বা উড়ন্ত খেলনা দেখলেই গুলি করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।
সৌদি নিরাপত্তা ও গোয়েন্দা কর্মকর্তারা থাকবেন রাজধানীতে।
ভিভিআইপি চলাচলের জন্য ইসলামাবাদ এক্সপ্রেসওয়ে বন্ধ করে দেওয়া হবে। কোরাল চক থেকে ফয়সাল অ্যাভিনিউ ১৫ যেতে ইউ-টার্ন বেশ কয়েকবার বন্ধ রাখা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরও দেখুন

জঙ্গিদের মতোই সংগঠিত হচ্ছে জামায়াত

Share this… Facebook 0 Twitter Telegram Linkedin জামায়াতে ইসলামীর শীর্ষনেতা ও মানবতাবিরোধী হিসেবে দণ্ড পেয়ে ফাঁসিতে মৃত্যুবরণকারী মতিউর রহমান নিজামী ও মাওলানা আব্দুস সোবহানের বাড়ি পাবনা জেলায়। বিএনপি-জামায়াত জোট ক্ষমতায় থাকাকালীন মতিউর রহমান নিজামী মন্ত্রী ছিলেন এবং পুরো পাবনা জেলায় দলকে সংগঠিত করেছিলেন। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর যুদ্ধাপরাধীদের বিচার শুরু হয় এবং জামায়াতের বড় […]

বিস্তারিত

কঠিন সিদ্ধান্ত নিতে পারে জামায়াত

Share this… Facebook 0 Twitter Telegram Linkedin বিএনপি চাইলেই জামায়াতে ইসলামী তাদের সঙ্গ ত্যাগ করবে। ২০-দলীয় জোটে জামায়াতের প্রয়োজন নেই- এ কথা বিএনপিকেই আগে বলতে হবে। তবেই জোট ছেড়ে যাবে যুদ্ধাপরাধীর দায়ে অভিযুক্ত দলটি। জামায়াত নিজে ২০-দলীয় জোট থেকে বেরিয়ে আসবে না। তারা জোট ভাঙার দায় নেবে না। এছাড়া পরিবর্তিত পরিস্থিতি মোকাবেলায় দলের বর্তমান নাম […]

বিস্তারিত

জাতীয় নির্বাচন নিয়ে চাপে বিএনপি

Share this… Facebook 0 Twitter Telegram Linkedin বাংলাদেশের জাতীয় নির্বাচন এগিয়ে আসছে দ্রুত। সাংবিধানিকভাবে সংসদীয় নির্বাচন অনুষ্ঠান হওয়ার কথা ২০২৩ সালের শেষ দিকে। কিন্তু এ নির্বাচনে অংশ না-নিতে টালবাহানা করছে প্রধান বিরোধী দল বিএনপি। ভোট থেকে দূরে থাকতে তাদের ওজর-আপত্তির শেষ নেই। বিশ্লেষকরা বলছেন, বিএনপি নেতৃত্বের আস্থাহীনতা ও গণবিরোধী কর্মসূচির কারণে তারা নির্বাচনে অংশ নেয়ার […]

বিস্তারিত