সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২



তারেক রহমান থেকে বাঁচতে প্রধানমন্ত্রীর সহায়তা চাইলেন সুলতান মনসুর


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
09.03.2019

নিউজ ডেস্ক: বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণের ঐতিহাসিক দিনে সংসদ সদস্য হিসেবে শপথ নিতে চেয়েছিলেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট তথা গণফোরাম থেকে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের নির্বাচিত দু’জন প্রার্থী সুলতান মনসুর ও মোকাব্বির খান। তবে তারেক রহমানের হুমকিতে ভয় পেয়ে এখনো মোকাব্বির খান শপথ না নিলেও সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমেদ ঠিকই শপথ নিয়েছেন। আর যার কারণে যেকোনো সময়ে তিনি বিএনপির সন্ত্রাসী বাহিনীর আক্রমণে মারা যেতে পারেন বলে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রীর কাছে সহায়তা চেয়েছেন সুলতান মনসুর।

এ প্রসঙ্গে মোকাব্বির খান বলেন, ৬ ফেব্রুয়ারি ভোর ৫টার দিকে মোকাব্বির খানকে ফোন দিয়েছিলেন তারেক রহমান। ফোনে তারেক রহমান বলেন, যদি প্রাণে বাঁচতে চান তবে শপথ নিতে যাবেন না। এসময় তারেক রহমান তাকে ১০ কোটি টাকা ঘুষ দেয়ারও প্রস্তাব দেন। যার কারণে শপথ নেয়ার সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনায় নিয়েছি। একইভাবে সুলতান মনসুরকেও ফোন দিয়েছিলেন তারেক রহমান, কিন্তু তিনি তারেক রহমানের হুকুম অমান্য করে শপথ নিলেন। জানি না, সুলতান মনসুরের কপালে কী আছে! হয়তো তিনি আর বেশিদিন বাঁচবেন না।

এদিকে বৃহস্পতিবার (৭ মার্চ) শপথ নিয়েই জাতীয় সংসদের অধিবেশনে যোগ দিয়ে সুলতান মনসুর বলেন, সরকারবিরোধী রাজনৈতিক জোট থেকে নির্বাচিত হয়ে সংসদে এলেও আদর্শ বিচ্যুতি হয়নি। ‘জয় বাংলা’ ‘জয় বঙ্গবন্ধু’ প্রশ্নে কোনো আপস হবে না।’

সংসদে দাঁড়িয়ে সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আরো বলেন, ‘অপ্রিয় হলেও সত্য, এই সংসদে আজ যারা আছেন তারা একই জোটের পক্ষ থেকে নির্বাচিত হয়েছেন। আমিই বোধহয় একজন নীলমণি, যে এই জোটের বাইরে গিয়ে অন্য জোটের পক্ষ থেকে নির্বাচিত হয়েছি। শত প্রতিকূলতার মধ্যেও নির্বাচনী এলাকার মানুষের ভোটে নির্বাচিত হয়ে এসেছি।’

সংসদে তিনি প্রধানমন্ত্রী ও সংসদ নেতা শেখ হাসিনার কাছ থেকে যাবতীয় সহায়তা পাবেন বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন। তিনি বলেন, আমি গত ১৮ বছর রাজনৈতিক কারাগারে ছিলাম। এমপি না থাকলেও রাজনীতিতে নিষ্ক্রিয় ছিলাম না। বঙ্গবন্ধুর আদর্শ থেকে কখনো বিচ্যুত হইনি আমি। হয়তো আমার নেতাদের কিংবা সাবেক সহকর্মীদের সাথে সেই সম্পর্ক নেই। কিন্তু যে বিশ্বাস নিয়ে রাজনীতি শুরু করেছিলাম সেই জায়গাতেই আছি। স্কুলছাত্র থাকা অবস্থায় যার নামে স্লোগান দিয়ে রাজনৈতিক জীবন শুরু করেছিলেন, সেই বিশ্বাস থেকে বিচ্যুত হইনি।’

এছাড়া সংসদ থেকে বেরিয়ে সুলতান মনসুর সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে বলেন, তারেক রহমান আমাকে মেরে ফেলতে পারে। তাই আমি আপনাদের মাধ্যমে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে এই বিষয়ে সহায়তা চাচ্ছি। আশা করি তিনি আমাকে নিরাশ করবেন না।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি