শুক্রবার ২১ জানুয়ারী ২০২২



ঐক্যফ্রন্টে অনাস্থা, নেতারা ফিরতে চান আওয়ামী লীগে


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
09.03.2019

নিউজ ডেস্ক: নির্বাচন কেন্দ্রিক জোট জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের প্রতি শরিক দলগুলোর নেতাদের অনাস্থা দিনে দিনে বেড়েই চলেছে। গত ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী ও সমমনা অনেকেই জাতীয় ঐক্যফ্রন্টে যোগ দিয়েছিলেন। কিন্তু ড. কামাল ও বিএনপির স্বেচ্ছাচারিতা এবং জোটের পরাহত ভবিষ্যৎ দেখে তাদের অনেকেই আওয়ামী লীগে ফেরার মনোভাব প্রকাশ করেছেন। ঐক্যফ্রন্টের দায়িত্বশীল সূত্রের বরাতে তথ্যের সত্যতা সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া গেছে।

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের একাধিক সূত্র বলছে, আওয়ামী ঘরানার বেশ কজন নেতা ঐক্যফ্রন্টে যোগ দিয়ে ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে নির্বাচনও করেছিলেন। কিন্তু নির্বাচনে তাদের ভরাডুবি হয়েছে। এদের কেউ কেউ চেয়েছিলেন যে, জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট থেকে একটা আন্দোলন বা সংগ্রাম গড়ে তোলা হবে এবং নির্বাচনকে চ্যালেঞ্জ করা হবে। কিন্তু জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের রাজনৈতিক স্থবিরতায় ক্রমশ হতাশ হয়ে পড়েছেন নেতারা। হতাশায় তারা আওয়ামী লীগের দিকে আবার হাত বাড়াচ্ছেন। আওয়ামী লীগে ফিরে আসার জন্য তারা বিভিন্ন মহলে যোগাযোগ করছেন বলেও গুঞ্জন উঠেছে। এদের মধ্যে অন্যতম রয়েছেন সাবেক তথ্য প্রতিমন্ত্রী অধ্যাপক আবু সাইয়িদ ও আওয়ামী লীগ সরকারের সাবেক অর্থমন্ত্রী শাহ এএমএস কিবরিয়ার ছেলে রেজা কিবরিয়া।

নির্বাচনের আগে অধ্যাপক আবু সাইয়িদ পাবনা-১ আসন থেকে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন চেয়েছিলেন। কিন্তু মনোনয়ন বঞ্চিত হওয়ার পর তিনি গণফোরামের যোগ দেন। পরে ঐক্যফ্রন্ট থেকে ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে পরাজিত হন। ফলে পরাজয়ের পর তিনি কিছুদিন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের কর্মকাণ্ডে তৎপর থাকলেও ক্রমশ হতাশ হয়ে পড়েছেন বলে জানা গেছে। ইদানিং তিনি আওয়ামী লীগের বিভিন্ন মহলে যোগাযোগ করছেন বলে জানা গেছে। আওয়ামী লীগের সঙ্গে তিনি আবার নতুন করে গাঁটছড়া বাধার জন্য উদগ্রীব হয়ে আছেন বলে জানা যাচ্ছে।

এ প্রসঙ্গে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক আওয়ামী লীগের নীতি নির্ধারণী পর্যায়ের এক নেতা জানান, জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের বেশ কয়েকজন নেতা দলের সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করছেন। কিন্তু তাদের দলে নেয়া হবে কিনা সে ব্যাপারে সিদ্ধান্ত হয়নি। ওবায়দুল কাদের অসুস্থ হওয়ার আগ পর্যন্ত তারা দুই দফা যোগাযোগ করেছেন।

অন্য দিকে আওয়ামী লীগ সরকারের সাবেক অর্থমন্ত্রী শাহ এএমএস কিবরিয়ার ছেলে রেজা কিবরিয়াও একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট থেকে মনোনয়ন নেন। নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে বিপুল ভোটে পরাজিত হন। রেজা কিবরিয়াও এখন আওয়ামী লীগে যোগ দেওয়ার জন্য তৎপরতা চালাচ্ছেন। আওয়ামী লীগের বিভিন্ন মহলের সঙ্গে তিনি যোগাযোগ করছেন বলে আওয়ামী লীগের একাধিক সূত্র নিশ্চিত করেছে।

আওয়ামী লীগের একাধিক সূত্র বলছে, কেবল ঐক্যফ্রন্টের নেতা নন, বিএনপিসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের মনোনয়ন বঞ্চিত নেতারা আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে সম্পৃক্ত হওয়ার জন্য অধীর হয়ে আছেন। তারা যার যার অবস্থান থেকে দলের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ নেতাদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছেন।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি