সোমবার ২৪ জানুয়ারী ২০২২



ডাকসুর উত্তেজনাকে পুঁজি করে বিশৃঙ্খলা ঘটাতে ঐক্যফ্রন্টের জরুরি বৈঠক!


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
11.03.2019

নিউজ ডেস্ক: ডাকসু নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করতে পূর্ব-পরিকল্পিতভাবে নির্বাচনে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করা হয়েছে বলে গণমাধ্যমের খবরে জানা যাচ্ছে। এমন প্রেক্ষাপটে বিশৃঙ্খলাকে পুঁজি করে দেশের চলমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিরূপণ পূর্বক আন্দোলন কর্মসূচি ঠিক করতে বৈঠকে বসেছেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের স্টিয়ারিং কমিটির সদস্যরা।

সোমবার (১১ মার্চ) বিকেল ৪টায় শুরু হওয়া ড. কামালের মতিঝিল চেম্বারের ওই বৈঠকে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম, আ স ম আব্দুর রব, মাহমুদুর রহমান মান্না, বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী, ডা. জাফরুল্লাহসহ জোটটির স্টিয়ারিং কমিটির সদস্যরা উপস্থিত আছেন বলে জানা গেছে।

সূত্র বলছে, খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য সর্বাত্মক আন্দোলন গড়ে তোলা, নতুন নির্বাচন আদায় করতে দেশব্যাপী জ্বালাও-পোড়াও আন্দোলন শুরু এবং ডাকসু নির্বাচনে সাধারণ শিক্ষার্থীদের আবেগকে কাজে লাগিয়ে সরকার পতন আন্দোলনের দিক নির্দেশনা ঠিক করতেই এই জরুরি বৈঠকের আয়োজন করা হয়। মূলত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অসন্তোষকে পুঁজি করে সারা দেশব্যাপী সরকারবিরোধী তীব্র আন্দোলন গড়ে তুলে সরকারকে আলোচনায় বসতে বাধ্য করতেই এই বৈঠক বলেও সূত্রটি জানিয়েছে।

বৈঠকের বিষয়ে জানতে চাইলে বিএনপি নেতা ব্যারিস্টার মওদুদ বলেন, বৈঠকের আলোচ্য বিষয় আসলে খালেদা জিয়ার মুক্তির এজেন্ডা। পাশাপাশি ডাকসু নির্বাচন নিয়ে ঐক্যফ্রন্টের অবস্থান, সম্ভাব্য ছাত্র আন্দোলনে একাত্মতা প্রকাশ করার মতো গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিয়ে আলোচনা হবে। দলীয় মহাসচিবের কাছ থেকে ফোনে আপাতত এতটুকু জানতে পেরেছি। তীব্র আন্দোলন গড়ে তোলা ছাড়া আমাদের বিকল্প কিছু নেই আর।

এদিকে ঐক্যফ্রন্টের স্টিয়ারিং কমিটির জরুরি বৈঠককে নতুন করে সরকারবিরোধী ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে দাবি করেছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। তাদের মতে, ডাকসু নির্বাচনকে নিয়ে একটি মহলের চক্রান্তে ছাত্রদের মাঝে যে অসন্তোষ সৃষ্টি হয়েছে, সেই অসন্তোষকে দেশব্যাপী সহিংসতার রূপ দিতেই এই বৈঠক বলে মনে হচ্ছে। সরকারকে এই মুহূর্তে সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি