সোমবার ১৮ জানুয়ারী ২০২১
  • প্রচ্ছদ » Breaking » পাবনা-৪ নির্বাচন: পরাজিত হাবিবের পুনঃমনোনয়নে ক্ষুব্ধ স্থানীয় বিএনপি নেতৃবৃন্দ



পাবনা-৪ নির্বাচন: পরাজিত হাবিবের পুনঃমনোনয়নে ক্ষুব্ধ স্থানীয় বিএনপি নেতৃবৃন্দ


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
01.09.2020

আগামী ২৬ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত হবে পাবনা-৪ আসনের উপ-নির্বাচন। জেলার আটঘরিয়া এবং ঈশ্বরদী উপজেলা নিয়ে গঠিত এই আসনের নির্বাচনে জেলা বিএনপির আহ্বায়ক ও চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য হাবিবুর রহমান হাবিবকে চূড়ান্ত প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা করেছে বিএনপি।

জানা গেছে, একাদশ সংসদ নির্বাচনে বিশাল ব্যবধানে পরাজিত এই প্রার্থীকে পুনরায় মনোনয়ন দেয়ায় উক্ত আসনের বিএনপি নেতারা অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন। পয়সার বিনিময়ে মনোনয়ন কিনেছেন হাবিব, এছাড়া বিএনপির রাজনীতিতে নতুনদের সুযোগ দেয়া হয় না-এমন অভিযোগও পাওয়া গেছে।

তথ্যসূত্র বলছে, ২০১৮ সালের একাদশ সংসদ নির্বাচনে পাবনা-৪ আসনে আওয়ামী লীগ নেতা প্রয়াত শামসুর রহমান শরীফ ডিলুর কাছে প্রায় দুই লাখ ভোটের বিশাল ব্যবধানে পরাজিত হন হাবিব। সেই নির্বাচনে স্থানীয় বিএনপি-জামায়াত কর্মীদের সাথে সমন্বয় না করা, ভোটারদের দ্বারে দ্বারে না পৌঁছানোর অভিযোগ ছিল হাবিবের বিরুদ্ধে। হাবিব এই আসনের জন্য উপযুক্ত প্রার্থী নন বলেও মনে করছেন খোদ স্থানীয় বিএনপি-জামায়াত নেতা-কর্মীরা। কিন্তু হাইকমান্ডের সাথে যোগাযোগ রাখা এবং অর্থের কারণে তার মতো অযোগ্য ব্যক্তি বারবার এই আসনের নির্বাচনে মনোনয়ন পাচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন স্থানীয় বিএনপির ক্ষুব্ধ নেতৃবৃন্দ।

পরিচয় গোপন রাখার শর্তে ঈশ্বরদী উপজেলা বিএনপির এক নেতা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, হাবিব সাহেব উঁচু সমাজের মানুষ। যার কারণে বারবার হেরেও তিনি মনোনয়ন পান। পয়সা খরচ করে তিনি মনোনয়ন বাগিয়ে নিচ্ছেন। অথচ স্থানীয় অনেক যোগ্য নেতাকে মূল্যায়ন করছে না দলের হাইকমান্ড। পয়সা ও লবিংয়ের জোরে অযোগ্যরা মনোনয়ন পান আর যোগ্য, পরীক্ষিতরা বিএনপিতে উপেক্ষিত। হাবিব সাহেবের মনোনয়ন প্রমাণ করে, বিএনপিতে যোগ্য নেতৃত্ব গড়ে ওঠার কোনো সুযোগ নেই, বিত্তশালীদের কদর করে বিএনপি-যোগ্য হওয়ার সত্ত্বেও তুলনামূলক দরিদ্র নেতাদের কোন দাম নেই বিএনপিতে।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি