সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০



কোটি টাকার মনোনয়ন-বাণিজ্য করলেন তারেক!


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
16.09.2020

নিউজ ডেস্ক: রাজনৈতিক বিবেচনায় গুরুত্বহীন হলেও উপ-নির্বাচনে অংশগ্রহণ করছে বিএনপি। এ লক্ষ্যে এরইমধ্যে মনোনয়নপত্র ক্রয় ও জমা দেয়ার কার্যক্রম শেষ করেছে দলের নেতা-কর্মীরা। তবে এতেও পলাতক আসামি বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে ঘিরে কয়েক কোটি টাকার মনোনয়ন-বাণিজ্যের গুঞ্জন উঠেছে দলটিতে।

এদিকে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের ভাষ্য, নির্বাচন কমিশনের ব্যর্থতা উন্মোচন করার জন্য তারা নির্বাচন করছেন। তবে এ বক্তব্য নিয়ে সুশীল সমাজ ও নিজ দলের নেতা-কর্মীদের মধ্যে সমালোচনার ঝড় বয়ে যাচ্ছে।

বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও এখন বেশ ট্রল হয়ে দাঁড়িয়েছে। কারণ একটি সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ জাতীয় নির্বাচনের পর নির্বাচন কমিশনের সাফল্য ও ব্যর্থতা নতুন করে দেখার কিছু নেই।

বর্তমান নির্বাচন কমিশন সম্পর্কে এর আগেও বিএনপি মহাসচিব বলেছিলেন, এই নির্বাচন কমিশনের অধীনে কোনো নির্বাচনে বিএনপি অংশগ্রহণ করবে না। নির্বাচন নিয়ে বিএনপি বারবার নিজেদের অবস্থান পরিবর্তন করায় রাজনৈতিকভাবেও গুরুত্ব তলানিতে ঠেকেছে দলটির।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, বেশ কয়েকদিন আগেও মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এই উপ-নির্বাচনে অংশ নেয়ার বিষয়ে বলেছিলেন, এই ধরনের নির্বাচনে যাওয়ার জন্য বিএনপির কোনো আগ্রহ নেই, কিন্তু এর কয়েকদিন পরেই সুর পাল্টে নির্বাচনে যাওয়ার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে বিএনপি।

জানা গেছে, লন্ডনে পলাতক বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের আগ্রহের কারণেই উপ-নির্বাচনে অংশগ্রহণ করছে বিএনপি। আর এ উপ-নির্বাচনে অংশগ্রহণ করাকে কেন্দ্র করে তারেক রহমানকে ঘিরে প্রার্থীদের কাছ থেকে মোটা অংকের চাঁদা নেয়া হবে বলে গুঞ্জন উঠেছে।

বিএনপির সিনিয়র কয়েকজন নেতার কাছ থেকে ঢাকার দুটি আসনে (ঢাকা-৫ ও ঢাকা-১৮) মনোনয়ন নিয়ে চাঞ্চল্যকর তথ্য শোনা গেছে। এই দুটি আসনে মনোনয়ন দিতে তারেক রহমান প্রতিটি আসনের জন্য ৫ কোটি টাকা দাবি করেছেন বলে শোনা যাচ্ছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিএনপির সিনিয়র এক নেতা বলেন, মনোনয়নপ্রত্যাশীরা লন্ডনে অবস্থানরত তারেক রহমানের সঙ্গে টেলিফোনে যোগাযোগ করছেন এবং কথা বলছেন। সেখানে ঢাকার একটি আসনের মূল্য ৫ কোটি টাকা পর্যন্ত উঠেছে।

তিনি বলেন, ঢাকার আসনের জন্য পাঁচ কোটি টাকা চাওয়ায় নির্বাচনে অংশগ্রহণে আগ্রহ হারিয়ে ফেলছেন প্রার্থীরা। ফলে ধারণা করা হচ্ছে, আলোচিত বা পরিচিত কোনো প্রার্থী নয়, ঢাকার এ দুটি আসনে আন্ডারওয়ার্ল্ডের প্রার্থীরাই বিএনপির মনোনয়ন পেতে পারেন।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি