রবিবার ২৫ অক্টোবর ২০২০



ভালো উদ্যোগের সাথে বিএনপি নেই!


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
11.10.2020

নিউজ ডেস্ক: দেশে হঠাৎ করে বেড়ে গেছে ধর্ষণ, নারী ও শিশু নির্যাতনের ঘটনা। এসব ন্যক্কারজনক অপরাধের রাশ টানতে ধর্ষণের সর্বোচ্চ সাজা করে আইন সংশোধনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। আর সরকার যখনই জনবান্ধব কোনো কর্মকাণ্ডের সিদ্ধান্ত নেয়, তখনই বিএনপি ও এর দোসররা না জেনেই বিরোধিতা শুরু করে। এবার ধর্ষণের আসামির ফাঁসির আইন করতে সরকারি উদ্যোগকে ‘ধাপ্পাবাজি’ উল্লেখ করে জলঘোলা করার অপচেষ্টায় লিপ্ত হয়েছেন বিএনপিপন্থী বুদ্ধিজীবী ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী। এদিকে সমাজের বিভিন্ন মহলে সমালোচনা শুরু হয়েছে, ভালো কাজে বিএনপি থাকে না। ভালো উদ্যোগকে বাধাগ্রস্ত করাই বিএনপির রাজনীতির মূলমন্ত্র।

তথ্যসূত্র বলছে, ১০ অক্টোবর জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে ভাসানী অনুসারী পরিষদ আয়োজিত মানববন্ধনে ধর্ষণের আসামিদের ফাঁসির সাজা দেয়ার সরকারের প্রাথমিক সিদ্ধান্তে কঠোর সমালোচনা করেছেন জাফরুল্লাহ। যদিও জাফরুল্লাহর এমন মন্তব্যে চরম সমালোচনা করছেন রাষ্ট্রের বিভিন্ন স্তরের মানুষ।

এদিকে গোপন সূত্র বলছে, সরকারের ভালো উদ্যোগের সমালোচনা করাকে রাজনীতির মূলমন্ত্র হিসেবে বেছে নিয়েছে বিএনপি। সাম্প্রতিক ধর্ষণ রোধে সরকারের এমন সময়োপযোগী উদ্যোগ সর্বমহলে প্রশংসনীয় হলেও বিএনপিপন্থী বুদ্ধিজীবীরা এর প্রতিবাদ করছেন। জানা গেছে, তারেক রহমানের পরামর্শেই ধর্ষণরোধে সরকারের এমন উদ্যোগকে বিতর্কিত করতেই কৌশলে মাঠে নেমেছেন জাফরুল্লাহ। সরকারের ভালো কাজগুলোকে প্রশ্নবিদ্ধ করতেই জাফরুল্লাহরা এমন বিতর্কের জন্ম দিচ্ছেন। নিজের নাক কেটে অন্যের যাত্রা ভঙ্গ করার চেষ্টা করছে বিএনপি।

যদিও আরেকটি সূত্র বলছে, ধর্ষণের ঘটনায় ছাত্রদল-যুবদলের কর্মীদের সম্পৃক্তা বেশি থাকায় ধর্ষণবিরোধী উদ্যোগকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার চেষ্টা করছে বিএনপি। তারেকের শেখানো বুলি আওড়াচ্ছেন জাফরুল্লাহ। ধর্ষণরোধে সরকারের প্রশংসনীয় উদ্যোগের বিরোধিতা করে রাষ্ট্র ও সমাজের সাথে বিরোধিতা করছে বিএনপি, এমনটাই মনে করছেন রাজনৈতিক বিজ্ঞজনরা।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি