সোমবার ২৬ অক্টোবর ২০২০
  • প্রচ্ছদ » Lead 3 » এখনই ব্যবস্থা না নিলে বিলুপ্ত হবে রাখাইন সম্প্রদায়



এখনই ব্যবস্থা না নিলে বিলুপ্ত হবে রাখাইন সম্প্রদায়


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
12.10.2020

নিউজ ডেস্ক: মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর হাত থেকে রাখাইন সম্প্রদায় মুক্তি চায়। তাদের বাঁচাতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সহযোগিতা চেয়েছে বাংলাদেশে বসবাসকারী রাখাইন সম্প্রদায়ের সংগঠন রাখাইন কমিউনিটি অব বাংলাদেশ।

রোববার (১১ অক্টোবর) বেলা ১১টায় রাজধানীর শাহবাগে জাতীয় জাদুঘরের সামনে মানববন্ধনের আয়োজন করেন তারা। মানববন্ধনে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর নির্যাতন, হত্যা, লুট ও মানবাধিকার লঙ্গনের সব কর্মকাণ্ডের নিন্দা জানানো হয়।

মানববন্ধনে কক্সবাজার, টেকনাফ, বান্দরবনসহ দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে রাখাইন সম্প্রদায়ের নাগরিকরা অংশ নেন। এ সময় তাদের হাতে প্ল্যাকর্ড, ব্যানার ও গায়ে সাদা টি শার্ট পরা ছিল।

টি-শার্টে মিয়ানমারের নেত্রী অং সান সূ চি ও সেনা প্রধান মং ওয়ানের ছবি সংযুক্ত করে সেখানে প্রতিবাদকারীরা লিখেছেন, ‘দ্য মোস্ট ডেঞ্চারাস ভাইরাস।’

মানববন্ধনে রাখাইন কমিউনিটি অব বাংলাদেশের আহ্বায়ক ক্যাঞিং বলেন, রাখাইন স্টেট থেকে সব ধর্ম ও বর্ণের মানুষকে নিশ্চিহ্ন করতে দীর্ঘদিন ধরে সেনাবাহিনী ও সরকার নিপীড়ন চালিয়ে আসছে। লাখ লাখ রোহিঙ্গা, রাখাইন সম্প্রদায়কে নির্যাতন করে বাস্তুচ্যুত করা হয়েছে। লাখ লাখ রোহিঙ্গা বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছে। অবিলম্বে এসব রোহিঙ্গাদের নাগরিকত্ব দিয়ে রাখানাইনে ফিরিয়ে নিতে হবে বলে দাবি জানান তিনি।

ক্যাঞিং বলেন, মিয়ানমার রাষ্ট্রের বর্তমান সামগ্রিক পরিস্থিতি অত্যন্ত নাজুক। বর্তমানে আরাকান রাজ্যে মিয়ানমার সরকার ও দেশটির সেনাবাহিনী ধর্ষণ, লুণ্ঠন, অগ্নি সংযোগ, নির্যাতন, নিপীড়ন ও মানুষ পুড়িয়ে হত্যাসহ আন্তর্জাতিক গণহত্যা ঘটিয়েছে।

তিনি বলেন, বর্তমানে রাখাইন প্রদেশের গত এক বছরের অধিক সময় ধরে সকল প্রকার ইন্টারনেট সেবা বন্ধ রাখা হয়েছে। রাখাইনে সকল প্রকার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম বন্ধ রেখে গণহত্যার সংবাদ গোপন করা তাদের একমাত্র তাদের উদ্দেশ্য।

মানববন্ধন থেকে ইউরোপিয়ান কমিশনসহ রাশিয়া, চীন, আশিয়ানসহ সকল আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে অনুরোধ জানিয়ে তিনি বলেন, এ অত্যাচারের বিরুদ্ধে আপনারা দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিন। অন্যথায় রাখাইন প্রদেশের মানুষ অচিরেই পৃথিবী থেকে বিলুপ্ত হয়ে যাবে।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি