সোমবার ২৬ অক্টোবর ২০২০
  • প্রচ্ছদ » Lead 2 » কোন্দল মেটাতে বছর যায়-ছাত্রদলে যোগ্যরা পায়না মূল্যায়ন!



কোন্দল মেটাতে বছর যায়-ছাত্রদলে যোগ্যরা পায়না মূল্যায়ন!


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
13.10.2020

নিউজ ডেস্ক: মনোনয়ন বাণিজ্য, কমিটি বাণিজ্য ও তদবির বাণিজ্যে পর্যদুস্ত বিএনপি। পদ দেয়ার বিনিময়ে ‘অনৈতিক লেনদেন ও পক্ষপাতিত্বের’ অভিযোগ এবং অন্তর্ঘাতে বেহাল হয়ে পড়েছে বিএনপির রাজনীতি। এবার বিএনপির ভ্যানগার্ডখ্যাত ছাত্রদলের কমিটি নিয়ে বিস্তর বাণিজ্যের অভিযোগ উঠেছে। জানা গেছে, যোগ্য, ত্যাগী ও পরীক্ষিত নেতাদের বাদ দিয়ে অনৈতিক লেনদেন ও পক্ষপাতিত্ব করে অযোগ্যদের পদ বিতরণ করা হচ্ছে বলে জানা গেছে। যা নিয়ে ক্ষোভ ছড়িয়ে পড়েছে ছাত্রদলের তৃণমূল রাজনীতিতে। অবস্থার পরিবর্তন না হলে আগামীতে ছাত্রদল দুর্বল হয়ে পড়বে বলেও শঙ্কা প্রকাশ করেছেন বঞ্চিতরা।

জানা গেছে, ছাত্রদলের সদ্যঘোষিত বিভিন্ন জেলা কমিটি বাতিলের দাবিতে অনেক জায়গায় বিক্ষোভ করছেন বঞ্চিত নেতারা। দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতাদের বিরুদ্ধে বিএনপির হাইকমান্ডের কাছে জমা পড়ছে অসংখ্য অভিযোগ। অন্তত ৪টি জেলার ছাত্রদলের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের অভিযোগ, কেন্দ্রীয় শীর্ষ নেতারা কমিটি গঠনে অনৈতিক লেনদেনসহ নানা অনিয়মের বিষয়ে মুখ খুলতে নিষেধ করেছেন। এ নিয়ে কথা বললে বহিষ্কারেরও হুমকি দেয়া হচ্ছে। এমনকি কোনো গণমাধ্যমে অনিয়মের খবর প্রকাশ হলেও তা মিথ্যা বলে কৌশলে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে বোঝানো হচ্ছে। তাকে ভুল তথ্য দিয়ে বিভ্রান্ত করছেন। চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, খুলনা, ফেনী, সিলেট, ঝিনাইদহ, মুন্সীগঞ্জসহ বেশ কয়েকটি জেলায় ছাত্রদলের পরীক্ষিত নেতাদের বাদ দিয়ে অনুগত ও আত্মীয়দের পদ দিতে কলকাঠি নেড়েছেন বিএনপির একাধিক কেন্দ্রীয় নেতা।

জানতে চাইলে ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন বলেন, এতো বড় সংগঠনে ভুল-ত্রুটি হওয়াটা স্বাভাবিক। কিছু জায়গায় আমাদেরও হাত-পা বাধা। ছাত্রদলকে স্বাধীনভাবে চলতে দেয়া হয় না। অনেক সিনিয়র নেতা অযাচিত মাথা ঘামিয়ে ছাত্রদলে প্রভাব বিস্তারের চেষ্টা করেন। এটি ঠিক না। অভ্যন্তরীণ কোন্দল মেটাতে মেটাতে আমাদের বছর পার হয়ে যায়। আমরা রাজপথে তাহলে সক্রিয় হবো কিভাবে? আমরা চেষ্টা করছি সিন্ডিকেট ভেঙে ছাত্রদলকে সক্রিয় করতে। আগামীতে যোগ্য ও পরীক্ষিত নেতাদের পদ দেয়া হবে।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি