সোমবার ২৬ অক্টোবর ২০২০
  • প্রচ্ছদ » other important » মনোনয়ন বাণিজ্য নিয়ে তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েছে বিএনপি



মনোনয়ন বাণিজ্য নিয়ে তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েছে বিএনপি


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
14.10.2020

নিউজ ডেস্ক: উপ-নির্বাচনে ঐক্যফ্রন্ট ও ২০ দলকে বাদ দিয়ে একক প্রার্থী দেয়ায় তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েছে বিএনপি। সূত্র জানিয়েছে, দুই জোটের নেতাদের সঙ্গে দর কষাকষি করে মনোনয়ন বাণিজ্য ব্যর্থ হওয়ায় এককভাবে প্রার্থী দিয়েছেন লন্ডনে পলাতক বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান।

জানা গেছে, মনোনয়ন নিয়ে দর কষাকষিতে ব্যর্থ হওয়ায় উপ-নির্বাচনে প্রার্থী দিতে রাজি নয় ঐক্যফ্রন্ট ও ২০ দলীয় জোট। বিশেষ করে ঢাকা-৫ আসনের উপ-নির্বাচনে জামায়াতকে মনোনয়ন দিতে প্রলুব্ধ করা হলেও অর্থের পরিমাণ বেশি হওয়ায় তারা বিএনপির ডাকে সাড়া দেয়নি। যার কারণে এককভাবে নির্বাচন করতে বাধ্য হচ্ছে দলটি।

বিএনপি সূত্রে জানিয়েছে, মনোনয়ন প্রার্থীরা বিপুল পরিমাণে অর্থ পরিশোধের ওয়াদা করায় তাদের প্রতিই ঝুঁকছেন দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান। ফলে উপ-নির্বাচনে জোট সঙ্গীদের এভাবে এড়িয়ে যাওয়ায় রাজনৈতিক অঙ্গনে শুরু হয়েছে নানা সমালোচনা।

তারেকপন্থী এক বিএনপি নেতা জানান, জোটের দুর্বল রাজনীতি থেকে বেরিয়ে আসতেই উপ-নির্বাচনকে টেস্ট কেস হিসেবে ব্যবহার করতে চান তারেক রহমান। আর এ কারণেই এখন পর্যন্ত ২০ দলীয় জোট কিংবা জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের কোনো প্রার্থীকে মনোনয়ন দেননি তিনি।

এ বিষয়ে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক দলটির সিনিয়র ও দায়িত্বশীল এক নেতা বলেন, দুই জোটের নেতাদের সঙ্গে দর কষাকষি করে মনোনয়ন বাণিজ্য ব্যর্থ হওয়ায় এককভাবে প্রার্থী দিচ্ছেন তারেক রহমান। কারণ বিএনপির ভোটের রাজনীতিতে বরাবরই মনোনয়ন বাণিজ্য নিয়ে নানা কথা শোনা যায়।

দলটির স্থায়ী কমিটির এক সদস্য বলেন, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ঐক্যফ্রন্ট ও ২০ দলীয় জোটের চরম ব্যর্থতায় হতাশ হয়েছি আমরা। এছাড়া ড. কামাল হোসেন ও জামায়াত ইস্যুতে দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন মহলে সমালোচিত হচ্ছিল বিএনপি। এই দুই জোট সাম্প্রতিককালে বিএনপির কোন কর্মসূচিতে অবদান না রাখায় তাদের ব্যাপারে চরম হতাশ বিএনপির নীতি-নির্ধারকরা।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি