শনিবার ২৮ নভেম্বর ২০২০
  • প্রচ্ছদ » other important » বিএনপির এমপি জিএম সিরাজের ৫ রেস্তোরাঁয় ভ্যাট ফাঁকির মামলা



বিএনপির এমপি জিএম সিরাজের ৫ রেস্তোরাঁয় ভ্যাট ফাঁকির মামলা


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
20.10.2020

ডেস্ক রিপোর্ট: বিএনপির সংসদ সদস্য জিএম সিরাজের মালিকানাধীন এসআর গ্রুপের আরও তিনটি রেস্তোরাঁয় মোট ৭ কোটি ১৩ লাখ টাকার ভ্যাট ফাঁকির অভিযোগে মামলা হয়েছে। জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) ভ্যাট গোয়েন্দা অধিদফতর সোমবার (১৯ অক্টোবর) ঢাকা উত্তর ও ঢাকা দক্ষিণ কমিশনারেটের কাছে ভ্যাট ফাঁকির অভিযোগ নিষ্পত্তির জন্য মামলা করে।

সোমবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে। সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে ভ্যাট গোয়েন্দা অধিদফতর জানায়, ভ্যাট ফাঁকির সুনির্দিষ্ট অভিযোগে ১৪ সেপ্টেম্বর রাজধানীর নিকুঞ্জ ১-এর ৪৬ নম্বরের লেক ড্রাইভের এসআর গ্রুপের কার্যালয়ে অভিযান চালানো হয়।

অভিযানে রাজধানীর বিজয়নগরে অভিজাত রেস্তোরাঁ সুং ফুড গার্ডেন এবং ধানমন্ডির ইম্পেরিয়াল আমিন আহাম্মেদ সেন্টারে ও যমুনা ফিউচার পার্কে গার্লিক এন জিঞ্জারের দুই শাখা মিলে মোট ৩২ কোটি ২৫ লাখ টাকার বিক্রি গোপন করে ৭ কোটি ১৩ লাখ টাকার ভ্যাট ফাঁকির প্রমাণ মিলেছে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে, দীর্ঘ অনুসন্ধান শেষে ১৯ অক্টোবর এই ৩টি রেস্তোরাঁর ফাঁকির হিসাব চূড়ান্ত করে ভ্যাট আইনে পৃথক ৩টি মামলা দায়ের করা হয়েছে।’

এর আগে একই গ্রুপের ফুড ভিলেজ ও ফুড ভিলেজ প্লাস নামে দুটি হাইওয়ে রেস্তোরাঁয় ২৬ কোটি টাকার ভ্যাট ফাঁকি এবং গুলশান-২, যমুনা ফিউচার পার্ক ও ধানমন্ডির ‘দি গ্রেট কাবাব ফ্যাক্টরি’র ৩টি অভিজাত রেস্তোরাঁয় প্রায় ৩ কোটি টাকার ভ্যাট ফাঁকির মামলা হয়।

এর মাধ্যমে এসআর গ্রুপ ৩টি রেস্টুরেন্টে ৭ কোটি ১৩ লাখ টাকার ভ্যাট ফাঁকি ও এ পর্যন্ত মামলা দায়েরকৃত অন্যান্য ৫টি রেস্টুরেন্টে মোট বিক্রির তথ্য গোপন পাওয়া গেছে ২৪৭ কোটি ২৫ লাখ টাকার। এতে ভ্যাট ফাঁকি হয়েছে সাড়ে ৩৬ কোটি টাকা।

বগুড়া-৬ আসনের সংসদ সদস্য গোলাম মোহাম্মদ সিরাজ (জিএম সিরাজ) এসআর গ্রুপের মালিক। রেস্তোরাঁ ছাড়াও পরিবহন, টেলিযোগাযোগ, লজিস্টিকস, খাদ্য প্রক্রিয়াজাতকরণ ও গার্মেন্টসের সহযোগী পণ্যসহ বিভিন্ন খাতে তার ব্যবসা রয়েছে।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি