শুক্রবার ২৭ নভেম্বর ২০২০
  • প্রচ্ছদ » Lead 1 » ‘বিএনপি কর্মীরা চোর-বাটপার, মাদকাসক্ত-তাই কেউ আত্মীয়তা করে না’



‘বিএনপি কর্মীরা চোর-বাটপার, মাদকাসক্ত-তাই কেউ আত্মীয়তা করে না’


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
22.10.2020

নিউজ ডেস্ক: রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলেন, বিএনপি ও দুর্নীতি একে অপরের পরিপূরক শব্দ। বাংলাদেশে রাজনৈতিক দুর্বৃত্তায়ন বিএনপির হাত ধরেই শুরু। জানা গেছে, রাষ্ট্রীয় সম্পদ তছরুপ, চুরি-দুনীতি ও সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের জন্য সারা দেশে বিএনপির রাজনীতি মুখ থুবড়ে পড়েছে। বিএনপির নেতা-কর্মীদের চোর-বাটপার সন্ত্রাসী হিসেবে মনে করে দেশবাসী। অতীত অপকর্মের কারণে বিএনপি নেতারা সমাজে মুখ দেখাতে পারেন না।

যার কারণে বিএনপির নেতা-কর্মীদের সাথে মেয়ের বিয়ে দেয়াসহ অন্যান্য সম্পর্ক স্থাপন করতে চায় না দেশের বেশিরভাগ মানুষ। যা বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরও নিজ মুখে স্বীকার করেছেন। বুধবার (২১ অক্টোবর) ঠাকুরগাঁওয়ের নিজ বাসভবনে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় কালে মির্জা ফখরুল বলেছেন, ছেলে বিএনপির রাজনীতি করে শুনলে কেউ মেয়ের সাথে বিয়ে দিতে চায় না। অবশ্য কেনো দিতে চায় না সেটি পরিষ্কার করে খুলে বলেননি মির্জা ফখরুল। অপরাধ, অপকর্ম, চুরি-দুর্নীতি, মাদকাসক্ত বিএনপির নেতা-কর্মীরা জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ছেন। নানা সামাজিক অপরাধে জড়িয়ে পড়ার কারণে বিএনপির নেতা-কর্মীদের মানুষ ঘৃণা করে যার কারণে তাদের সাথে আত্মীয়তা করতে চায় না-এই বিষয়টি অবশ্য স্পষ্ট করে বলেননি মির্জা ফখরুল।

এদিকে মির্জা ফখরুলের এমন বক্তব্যের জেরে বিএনপি ছেড়ে আসা এক নেতা পরিচয় গোপন রাখার শর্তে বলেন, রাজনৈতিক কর্মসূচি না থাকায় বিএনপির বেশির ভাগ নেতা-কর্মী এখন চুরি, দুর্নীতি, সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড ও মাদকাসক্ত হয়ে পড়ছেন। যার কারণে তাদের সাথে কোনো ধরণের সম্পর্কে রাখতে চায় না সাধারণ মানুষ। এটিই বাস্তবতা, কিন্তু মির্জা ফখরুল বিষয়টিকে নিয়ে রাজনীতি করার চেষ্টা করছেন। মানুষের মেয়ে এতো বেশি বোঝা হয়ে যায়নি যে, চোর-বাটপারদের সাথে বিয়ে দিয়ে তাদের জীবন ধ্বংস করে দিবে। কারণ অপরাধীর কাছ থেকে সবাই দূরত্ব বজায় রাখতে চায়। আর সেটির বাস্তবতা বুঝতে পেরে বিষয়টিকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার চেষ্টা করছেন মির্জা ফখরুল।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি