শুক্রবার ২৭ নভেম্বর ২০২০
  • প্রচ্ছদ » Lead 3 » উপ-নির্বাচনে হেরে দিশেহারা হয়ে পড়েছে বিএনপি



উপ-নির্বাচনে হেরে দিশেহারা হয়ে পড়েছে বিএনপি


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
24.10.2020

নিউজ ডেস্ক: সর্বশেষ অনুষ্ঠিত জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভরাডুবি হয় বিএনপির। ৩০০ আসনে নির্বাচন করে দলের নির্বাচিত প্রতিনিধির সংখ্যা শুধুই ৫ জন। সম্প্রতি ঢাকা-৫ ও নওগাঁ-৬ আসনের উপ-নির্বাচনসহ একাধিক স্থানীয় পর্যায়ের নির্বাচনে ফের শোচনীয়ভাবে পরাজিত হয়েছে বিএনপি। এ পরিস্থিতিতে দিশেহারা হয়ে পড়েছে দলের হাইকমান্ডসহ নেতা-কর্মীরা।

সংশ্লিষ্ট সূত্র মতে, ভোটের রাজনীতিতে দলের এমন শোচনীয় অবস্থা ভাবিয়ে তুলেছে বিএনপির হাইকমান্ডকে। জনগণ বিএনপিকে পছন্দ করছে না কেন? বিএনপির ডাকে সাড়াও দিচ্ছে না কেন? জনগণ বিএনপিকে আর ক্ষমতায় দেখতে চায় না কেন?- এমন একাধিক প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে গিয়ে রীতিমতো হিমশিম খাচ্ছেন দলের শীর্ষ নেতারা।

পরিচয় গোপন রাখার শর্তে বিএনপির এক সিনিয়র নেতা বলেন, জাতীয় ও স্থানীয় নির্বাচনে বিএনপির শোচনীয় পরাজয়ে হতাশ হয়েছে দলের হাইকমান্ড। দিন দিন মানুষের আস্থা হারাচ্ছে দলটি।

তিনি বলেন, আগামীতে বিএনপি কোনো ধরনের নির্বাচনে অংশ নেবে কিনা, তা নিয়েও শুরু হয়েছে সংশয়। প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে এমন শোচনীয় অবস্থায় কখনো পড়েনি বিএনপি। তাই নির্বাচনের নামে দলীয় নেতাদের পকেট খালি না করে দল গঠনে হাইকমান্ডকে মনোযোগী হতে হবে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক দলের আরেকজন সিনিয়র নেতা বলেন, দল গোল্লায় গেলেও নিজের অর্থের যোগান বন্ধ করতে নারাজ তারেক। কারণ নির্বাচনে অংশগ্রহণের নামে মনোনয়ন বিক্রি ও অন্যান্য সহযোগিতার নামে পাওয়া অর্থের লোভ পেয়ে বসেছে তাকে। তাই এ বিষয়ে হয়তো তারেক মত দেবে না।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বিএনপিপন্থী একাধিক রাজনৈতিক বিশ্লেষক ও বুদ্ধিজীবী বলেন, ভোটের রাজনীতিতে বিএনপি এখন ক্ষয়িষ্ণু শক্তি। দলের ক্রমাগত পরাজয়ে তৃণমূল থেকে কেন্দ্র পর্যন্ত বিপর্যস্ত। এমন অবস্থা চলতে থাকলে গণপদত্যাগের শঙ্কা রয়েছে।

তাদের মতে, নির্বাচন করে লজ্জাজনক পরাজয় বরণ করা বাদ দিয়ে আপাতত জনগণের আস্থা অর্জন করা প্রয়োজন বিএনপির। তবে বর্তমানে দলের শীর্ষ নেতাদের পক্ষে তা সম্ভব নয় বলেই মনে হচ্ছে।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি