শনিবার ২৮ নভেম্বর ২০২০
  • প্রচ্ছদ » Lead 3 » ঢাকা-১৮ নির্বাচন: কোন্দল ও বিভেদে শোচনীয় পরাজয় ঘটবে বিএনপির!



ঢাকা-১৮ নির্বাচন: কোন্দল ও বিভেদে শোচনীয় পরাজয় ঘটবে বিএনপির!


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
25.10.2020

নিউজ ডেস্ক: নিয়ম অনুযায়ী, দিন গড়ানোর সাথে সাথে বিএনপির আরো ঐক্যবদ্ধ হওয়ার কথা। কিন্তু বিএনপির ক্ষেত্রে ঘটছে উল্টোটা। দলীয় কোন্দল, বিভেদ, মনোনয়ন নিয়ে অসন্তোষের জেরে বারবার নেতিবাচক শিরোনামে উপস্থাপিত হচ্ছে বিএনপি। ২৩ অক্টোবর (শুক্রবার) আসন্ন ঢাকা-১৮ আসনের উপনির্বাচনে আনুষ্ঠানিক প্রচারে নেমেই দলের বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীদের প্রতিবাদের মুখে পড়েন বিএনপিপ্রার্থী এস এম জাহাঙ্গীর। এ সময় দুই পক্ষের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনাও ঘটে। নির্বাচনে ঐক্যবদ্ধ না থেকে উল্টো বিরোধে জড়ানোর ফলে বিএনপি প্রার্থীর শোচনীয় পরাজয় ঘটতে পারে বলে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।

তথ্যসূত্র বলছে, শুক্রবার (২৩ অক্টোবর) প্রতীক পাওয়ার পর জুমার নামাজ শেষে প্রচারে নামেন বিএনপির প্রার্থী যুবদল নেতা এস এম জাহাঙ্গীর। কিন্তু একই জায়গায় কালো পতাকা মিছিল বের করে গুলশানে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকারের দিন সংঘর্ষের ঘটনায় বহিষ্কৃতরা। এসময় বিক্ষুব্ধদের উপর হামলা চালায় জাহাঙ্গীরের লোকজন। দুই পক্ষের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার কারণে অত্র এলাকার মানুষের মাঝে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।

এদিকে বিএনপির এই ঘটনাকে অভ্যন্তরীণ কোন্দল ও মনোনয়ন বাণিজ্যের কুফল বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। তারা বলেছেন, মনোনয়ন বাণিজ্য, কোন্দল ও বিভেদের কারণেই বিএনপি আজ এলোমেলো। যার ফলে বিএনপি নেতারা ছন্নছাড়া হয়ে পড়েছেন। তাদের এমন কোন্দলে জনগণও অসন্তুষ্ট। যার ফলশ্রুতিতে নির্বাচনগুলোতে শোচনীয় পরাজয়ের পাশাপাশি জামানত হারিয়ে কলঙ্কের জন্ম দিচ্ছেন বিএনপির প্রার্থীরা। ঢাকা-১৮ আসনেও বিএনপির একই অবস্থা হয়েছে। শুরুতেই কোন্দল, হানাহানির ঘটনা দেখেছে জনগণ। যে দলের নেতা-কর্মীরা একত্রিত নন, তারা কোনদিনই জনগণকে একত্রিত করে তাদের ভোট আদায় করতে পারবেন না। এই আসনেও বিএনপি প্রার্থীর জামানত হারানোর শঙ্কা প্রকাশ করেছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি