শুক্রবার ১৫ জানুয়ারী ২০২১
  • প্রচ্ছদ » other important » প্রেস ব্রিফিং ও মানববন্ধন করেই কেটে গেছে বিএনপির বিগত দুই বছর



প্রেস ব্রিফিং ও মানববন্ধন করেই কেটে গেছে বিএনপির বিগত দুই বছর


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
12.01.2021

নিউজ ডেস্ক: দুর্নীতির মামলায় দলের চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার কারাবাস, মুক্তি-জামিন নিয়ে দলের দোলাচল, প্রেস ব্রিফিং ও মানববন্ধন করেই কেটে গেছে বিএনপির বিগত দুই বছর।

এদিকে দরজায় কড়া নাড়ছে ২০২১ সাল। নতুন বছরে দল পুনর্গঠন নিয়ে তৃণমূল নেতা-কর্মীরা স্বপ্ন দেখার চেষ্টা করলেও আপাতত তা দুঃস্বপ্নে পরিণত হতে যাচ্ছে।

জানা গেছে, ২০২১ সাল জুড়ে তেমন কোনো কর্মসূচি বাস্তবায়নের পরিকল্পনা নেই বিএনপির। দেশীয় রাজনীতি গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করতে চান দলের হাইকমান্ডরা। অর্থাৎ আগামী বছরও অলস সময় পার করবেন বিএনপির নেতা-কর্মীরা।

দলীয় সূত্র জানায়, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে শোচনীয় পরাজয়ের পরপরই রাজনীতিতে বিএনপির অবনতি আরো ত্বরান্বিত হয়। দেশ-বিদেশে তদবির করেও কাউকে কাছে পায়নি বিএনপি। এমনকি খালেদা জিয়ার মুক্তিতেও কেউ এগিয়ে আসেনি। শেষ পর্যন্ত দোষ স্বীকার করে সরকারের বিশেষ বদান্যতায় জামিন পেয়েছেন দুর্নীতি মামলার আসামি বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক দলের নীতিনির্ধারণী ফোরামের এক নেতা বলেন, একাদশ সংসদ নির্বাচনের পর থেকেই বিএনপি রাজপথ বিমুখ হয়েছে। সংকুচিত ও সীমাবদ্ধ হয়ে পড়েছে দলের রাজনীতি। জামিন পেয়ে দলীয় কার্যক্রম থেকে নিজেকে দূরে সরিয়ে রেখেছেন খালেদা জিয়া। লন্ডন থেকে এককভাবে বিএনপির রাজনীতি নিয়ন্ত্রণ করছেন তারেক।

জানতে চাইলে তিনি আরো বলেন, নতুন বছরে বিএনপিকে চাঙ্গা করতে তারেক রহমান একাধিক মিনি প্যাকেজ গ্রহণ করলেও খালেদা জিয়া ২০২১ সালে রাজনীতিকে গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করতে চান। ফলে ধারণা করা হচ্ছে, ২০২১ সালেও বিএনপির শীর্ষ নেতারা অলস সময় পার করবেন। সে সময়েও বিএনপির রাজনীতি চার দেয়ালের মাঝেই আটকে থাকবে।

অবশ্য গুঞ্জন রয়েছে যে, সরকারকে খেপিয়ে নিজের জামিন বাতিল করতে চান না খালেদা জিয়া। এ কারণেও ২০২১ সালে দেশের রাজনীতিতে পলিটিক্যাল অবজারভার হিসেবেই বিএনপি নেতারা ভূমিকা রাখবেন বলে বিশেষজ্ঞদের পর্যবেক্ষণে উঠে এসেছে।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি