সোমবার ২৫ জানুয়ারী ২০২১
  • প্রচ্ছদ » Lead 2 » সংশয়-সংকটে উদ্বিগ্ন খালেদা, তারেকের ‘চওড়া হাসি’!



সংশয়-সংকটে উদ্বিগ্ন খালেদা, তারেকের ‘চওড়া হাসি’!


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
13.01.2021

নিউজ ডেস্ক: দলীয় প্রধানের পদ থেকে পদচ্যুতি, দল নিয়ে হতাশা, সম্পদের ভবিষ্যৎ ও তারেক রহমানের স্বৈরতান্ত্রিক আধিপত্যসহ নানা বিষয় নিয়ে সংশয়-সংকটে রয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। তবে এসব নিয়ে মাথা না ঘামিয়ে বরং ‘বিন্দাস মুডে’ আছেন লন্ডনে পলাতক ফেরারি আসামি ও বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান। দলের নিয়ন্ত্রণ সম্পূর্ণ নিজের হাতে নিয়ে হাসছেন পৈশাচিক হাসি। সম্প্রতি বিশ্বস্ত এক সূত্রের মাধ্যমে এ তথ্য নিশ্চিত হওয়া গেছে।

সূত্রের তথ্যমতে, আসন্ন জাতীয় কাউন্সিলকে কেন্দ্র করে বর্তমানে বিএনপিতে অস্থিরতা বিরাজ করছে। কে কাকে মাইনাস করে নিশ্চিত করবে নিজের পদ-পদবী তা নিয়ে চলছে দৌঁড়ঝাঁপ। তারই অংশ হিসেবে বেপরোয়া হয়ে উঠেছেন খালেদা পুত্র ও বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান। তিনি লন্ডনে বসে সূক্ষ্ম ম্যাকানিজমের মাধ্যমে ‘দলীয় প্রধানের’ পদ বাগিয়ে নিতে ইতোমধ্যে বিএনপির জ্যেষ্ঠ নেতাদের বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে নিজের দলে ভিড়িয়েছেন। শেষ খেলাটা খেলেছেন দলীয় মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে বিএনপি চেয়ারপারসন থেকে আলাদা করে।

বাংলা নিউজ ব্যাংকের অনুসন্ধানে জানা গেছে, সাম্প্রতিককালে বেগম খালেদা জিয়ার সঙ্গে সব ধরনের যোগাযোগ বন্ধ রেখেছেন বিএনপি মহাসচিব ও বিএনপি নেত্রীর ‘স্নেহ ধন্য’ মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। এমনকি নেত্রী বারবার ফোন দিলেও কিংবা লোক পাঠিয়ে যোগাযোগের চেষ্টা করলেও তা প্রত্যাখ্যান করছেন এই জ্যেষ্ঠ নেতা। উপরন্তু তিনি সোমবার (১১ জানুয়ারি) এক ফেসবুক লাইভে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে দলের ‘চেয়ারম্যান’ বলে সম্বোধন করে নিজের বর্তমান অবস্থান পরিস্কার করেছেন। পাশাপাশি ঝড় তুলেছেন দল ও রাজনৈতিক অঙ্গণে।

ফখরুলের এই হঠাৎ পরিবর্তনে ‘সতর্ক’ থাকার অভিব্যক্তি দলের একাধিক জ্যেষ্ঠ নেতার। তাদের ভাষ্য, সামনে দলের জাতীয় কাউন্সিল বলেই ফখরুল খোলস বদল করেছেন। জিয়াউর রহমান পরবর্তী দলের কাণ্ডারি ও দীর্ঘদিনের রাজনৈতিক সঙ্গী ম্যাডামকে (খালেদা জিয়া) স্বীয় স্বার্থে ত্যাগ করে এখন ভিড়েছেন তারেক রহমানের দিকে। কারণ, গোপনে তিনি জেনেছেন দলের সবকিছুই এখন তিনিই নিয়ন্ত্রণ করেন। এমনকি পরবর্তী মহাসচিব হিসেবে তিনি নিজের ‘ডান হাত’ ও দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীকেই ভাবছেন। কিন্তু এতে কোন কাজ হবে না। তারেক ঠিকই জানেন, মুখে মুখে ফখরুল তারেকপন্থী হিসেবে নিজেকে জাহিরের চেষ্টা করলেও আদতে সে ‘পিওর খালেদাপন্থী’।

এ ব্যাপারে তারেক রহমানের মনোভাব জানার চেষ্টায় এই প্রতিবেদক যোগাযোগ করেন লন্ডনের কিংস্টন ভিত্তিক একটি সূত্রের সঙ্গে। সূত্রটি জানায়, পরবর্তী দলীয় প্রধান হিসেবে নিজের আসন নিশ্চিতে তারেক রহমান তেমন কিছুই করছেন না। তবে দলের নেতাকর্মীরা যদি চান, তবে তাতে তার কোন আপত্তি নেই। বরং তিনি সেই অর্পিত দায়িত্ব মাথা পেতে নেবেন। আর সে লক্ষ্যেই তিনি দলীয় নেতৃবৃন্দের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করছেন।

তবে ভিন্ন কথা জানালেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। তারা বলছেন, দল ও তারেক উভয় ক্ষেত্রেই নিয়ন্ত্রণ হারিয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। পাশাপাশি নিজের নামে-বেনামে থাকা সম্পদের ভবিষ্যৎ নিয়েও আছেন দুশ্চিন্তা-দোলাচলে। আর এই সুযোগটাকেই কাজে লাগিয়েছেন তারেক। দলের পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ নিজের হাতে নিয়ে পরবর্তী দলীয় প্রধান হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করার খেলায় মেতেছেন তিনি। হাসছেন ক্ষমতাহরণ ও দল নিয়ন্ত্রণের মোহে পৈশাচিক হাসি। এমতাবস্থায় পদচ্যুতির মায়ায় মির্জা ফখরুলের মতো অনেক খালেদাপন্থী নেতাই এখন লোভে পড়ে ভিড়ছেন তারেকের তরীতে। তবে মনে রাখা ভালো, অতি লোভে তাঁতী নষ্ট।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি