রবিবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১



‘ভয়ঙ্কর’ মিশন নিয়ে আবারও মাঠে শিবির!


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
14.01.2021

নিউজ ডেস্ক: অতীতে দেশের মধ্যে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে মিত্র দল বিএনপির হয়ে নানা অপকর্ম করেছে জামায়াতে ইসলামের ছাত্রসংগঠন শিবির। সংগঠনটি সম্প্রতি আবারও নতুন মিশন নিয়ে মাঠে নেমেছে। তবে এবার তাদের পন্থাটা ভিন্ন বলে বিশ্বস্ত সূত্রে খবর পাওয়া গেছে।

সূত্রটির তথ্যমতে, অনেকদিন ধরে মাঠের রাজনীতিতে অদৃশ্য জামায়াত ও তাদের ছাত্রসংগঠন শিবির। তবে সম্প্রতি তারা শহর ছেড়ে গ্রামের দিকে তাদের পরবর্তী মিশন নিয়ে অগ্রসর হচ্ছে। এর কারণ, করোনাভাইরাসের জন্য বর্তমানে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ। শিক্ষার্থীরা যে যার আদি নিবাসে। ফলে তাদের ‘গোপনে করা’ রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডও কার্যত মুখ থুবড়ে পড়েছে। পুনরায় তা চাঙ্গা করতে শিবিরের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা এখন গ্রামের দিকে দৃষ্টি দিয়েছেন। আর এ কাজে তাদের সহায়তা করছে জামায়াতে ইসলামী বাংলাদেশের তৃণমূলের নেতৃবৃন্দ।

বাংলা নিউজ ব্যাংকের অনুসন্ধানে জানা গেছে, আন্ডারগ্রাউন্ডের রাজনীতিতে অভ্যস্ত জামায়াত এতদিন চোরাগুপ্তাভাবেই তাদের কর্মযজ্ঞ সম্পাদন করে আসছিল। হাঁটি হাঁটি পা পা করে একটু একটু করে অগ্রসর হচ্ছিল নিজেদের দলীয় এজেন্ডা বাস্তবায়নে। কিন্তু বাধ সাধলো করোনাভাইরাস। তাই এবার ভিন্ন পথে হাঁটছেন দলটির নেতৃবৃন্দ ও তাদের ছাত্রসংগঠন ইসলামী ছাত্রশিবির।

তারই অংশ হিসেবে শিবিরকর্মীরা এখন গ্রামে গ্রামে অবস্থান করছেন। পাড়া-মহল্লার মসজিদগুলোতে তাবলীগের নামে নিজেদের দলীয় স্বার্থ সিদ্ধির উদ্দেশে অবস্থান করছেন। করছেন কৌশলে এলাকার অল্পবয়সী সরলপ্রাণ মানুষ ও কোমলমতি শিক্ষার্থীদের মগজ ধোলাইও।

এর নেপথ্যে কারণ হিসেবে রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, বয়স্ক মানুষকে বশে আনা কঠিন। এমনকি তার মাধ্যমে গোপন পরিকল্পনা ফাঁসেরও সম্ভাবনা বেশি। তাই তাদের থেকে মুখ ফিরিয়ে অল্পবয়সী ও কোমলমতি শিক্ষার্থীরাই এবার শিবিরের টার্গেটে। এ লক্ষ্যে তারা নতুন ষড়যন্ত্রের জাল বিছিয়েছেন। করছেন দেশের মধ্যে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টির পাঁয়তারা।

রাজনৈতিক বিজ্ঞজনরা আরও বলছেন, এমতাবস্থায় স্বাধীনতাবিরোধীদের রুখে দিতে সরকারের পাশাপাশি আমাদের সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে, নতুবা তারা যে কোন মূল্যেই তাদের এজেন্ডা বাস্তবায়নে সফলকাম হবে।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি