সোমবার ১ মার্চ ২০২১
  • প্রচ্ছদ » Lead 1 » তারেক ও ফখরুলকে বহিষ্কার করতে গিয়ে উল্টো বাদ পড়ছেন গয়েশ্বর



তারেক ও ফখরুলকে বহিষ্কার করতে গিয়ে উল্টো বাদ পড়ছেন গয়েশ্বর


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
24.01.2021

নিউজ ডেস্ক : তারেক রহমানকে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসনের পদ থেকে বাদ দিতে চাইছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্যরা। মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের অনুপস্থিতিতে ২১ জানুয়ারি গয়েশ্বর চন্দ্র রায়ের বাসায় দলের স্থায়ী কমিটির এক গোপন বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে স্থায়ী কমিটির পাঁচজন সদস্য উপস্থিত ছিলেন বলে একাধিক দায়িত্বশীল সূত্র নিশ্চিত করেছে।

উক্ত বৈঠকে গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বিএনপি সম্পর্কে তার লুকায়িত ক্ষোভ ঝেরে বলেন, ১৪ বছর হতে চলল। এখনো বিএনপির রাজনীতিতে ভঙ্গুর অবস্থা বিরাজ করছে। মূলত সঠিক নেতৃত্বের অভাবে বিএনপি রাজনীতিতে ঘুরে দাঁড়াতে পারছে না বলেই মনে হয়। ফলে বিএনপির নেতৃত্বে পরিবর্তন প্রয়োজন বলে মনে করছি।

বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়, দলে আপাতত ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের প্রয়োজন নেই। বেগম খালেদা জিয়া গুলশানের ভাড়া বাসায় অবরুদ্ধ থাকলেও তিনি যে দল পরিচালনা করতে পারবেন না- এরকম কোনো বিধান বিএনপির গঠনতন্ত্রে নেই। কাজেই, বেগম খালেদা জিয়াই চেয়ারপারসন হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন। আপাতত ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের কোনো প্রয়োজনীয়তা নেই বলে বৈঠকে অভিমত ব্যক্ত করা হয়।

তবে গয়েশ্বরের বাসায় অনুষ্ঠিত হওয়া গোপন বৈঠকের সিদ্ধান্তের বিষয়ে বৈঠকে উপস্থিত থাকা এক নেতা তারেক রহমান ও মির্জা ফখরুলের কানে পৌঁছে দেন। ফলে এই দুই নেতা তেলে বেগুনে জ্বলে উঠে উল্টো গয়েশ্বর চন্দ্র রায়কে বহিষ্কার করতে যাচ্ছেন বলে খবর পাওয়া গেছে।

বিএনপির বিভিন্ন দায়িত্বশীল সূত্রগুলো বলছে, তারেক রহমান ও মির্জা ফখরুলের পদত্যাগ চাওয়ার কারণে বহিষ্কার করা হচ্ছে গয়েশ্বর চন্দ্র রায়কে। নেতৃত্ব পরিবর্তনের দাবি তোলায় কথিত শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগ এনে এই নেতাকে বহিষ্কার করা হচ্ছে। এদিকে পরিবর্তন চাওয়া গয়েশ্বর চন্দ্র রায়ের দাবিকে উসকানিমূলক বলে চালিয়ে দিচ্ছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির অন্য সদস্যরা।

এ প্রসঙ্গে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেন, সিনিয়র নেতাদের পদত্যাগ চাওয়ার কারণে হয়তো বহিষ্কার হতে পারেন গয়েশ্বর চন্দ্র রায়। বলে রাখা ভালো, এর আগে তারেক রহমান ও মির্জা ফখরুলের পদত্যাগ চাওয়ায় দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের তৃণমূল বিএনপির ৪৪ নেতাকে বহিষ্কার করা হয়েছিলো।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি