রবিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১



বহিষ্কার হচ্ছেন বিএনপির এমপি হারুন অর রশীদ!


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
23.02.2021

নিউজ ডেস্ক: বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার জামিন ইস্যুতে কোনো আন্দোলন গড়ে তুলতে না পারায় তারেক রহমানকে দায়ী করে ২২ই ফেব্রুয়ারি ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেন বিএনপির সংসদ সদস্য হারুন অর রশীদ।

উক্ত স্ট্যাটাসে তিনি লিখেন, বলতে দ্বিধা নেই, একমাত্র তারেক রহমানের কারণেই বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করা যাচ্ছে না। ২১শে ফেব্রুয়ারি ভাষা শহীদ দিবসের মধ্যে জামিন না দিলে আমাদের আন্দোলন করার কথা ছিলো, কিন্তু তারেক রহমানের সিদ্ধান্তের কারণে আমরা আন্দোলন থেকে সরে আসি। এটি দুঃখজনক। মাঝে মাঝে মনে হয়, দলে তারেক রহমান না থাকলে এতদিনে আমরাই হয়তো সরকার চালাতাম।

হারুন অর রশীদের এমন কথা লন্ডন পর্যন্ত পৌঁছালে বিব্রত হয়ে পড়েন তারেক রহমান। জানা যায়, এ কারণে দল থেকে বহিষ্কার হতে পারেন বিএনপির এই নেতা। যদিও জনসাধারণকে বলা হচ্ছে, নেতৃত্ব পরিবর্তনের দাবি তোলায় শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগ এনে তাকে বহিষ্কার করা হতে পারে। এদিকে পরিবর্তন চাওয়া হারুন অর রশীদের দাবিকে উসকানিমূলক বলে চালিয়ে দিচ্ছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির অন্য সদস্যরা। তবে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ বলছেন ভিন্ন কথা।

মওদুদ আহমেদ বলছেন, ইদানীং কিছু নেতা বিএনপির নেতৃত্বে পরিবর্তন চাচ্ছেন। তারা চাইছেন না, বিএনপির নেতৃত্বে তারেক রহমান কিংবা মির্জা ফখরুল থাকুক। তবে এই অভিযোগে কিন্তু কাউকে বহিষ্কার করা হয়নি। যদি ভবিষ্যতে কাউকে বহিষ্কার করা হয়, সেটা শুধুমাত্র শৃঙ্খলা ভঙ্গের কারণেই হবে। আর কেউ যদি দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের পরিবর্তন চায়, সে কখনোই বিএনপির সমর্থক হতে পারে না। এটাও মাথায় রাখতে হবে।

এ প্রসঙ্গে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেন, সিনিয়র নেতাদের পদত্যাগ চাওয়ার কারণে হয়তো বহিষ্কার হতে পারেন হারুন অর রশীদ। বলে রাখা ভালো, এর আগে তারেক রহমানের পদত্যাগ চাওয়ায় দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের তৃণমূল বিএনপির ৪৪ নেতাকে বহিষ্কার করা হয়েছিলো।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি