বৃহস্পতিবার ১৫ এপ্রিল ২০২১
  • প্রচ্ছদ » Lead 2 » জামায়াতও উদযাপন করছে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী!



জামায়াতও উদযাপন করছে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী!


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
10.03.2021

একাত্তরে স্বাধীনতার বিরোধিতা করেছিল জামায়াত। অথচ তারাই আজ স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে কর্মসূচি শুরু করেছে। মূলত বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটে নিজেদের অবস্থান নড়বড়ে হওয়ায় এবং গুরুত্ব কমে যাওয়ায় তারা সরকারের অনুকম্পা পেতে এই পন্থা অবলম্বন করেছে বলে মন্তব্য, দেশের বিশিষ্টজনদের।

দায়িত্বশীল সূত্রের তথ্যমতে, একাত্তরের মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে মুক্তিযুদ্ধের বিরোধিতার পাশাপাশি মানবতাবিরোধী অপরাধেও শামিল ছিল জামায়াত। এমনকি স্বাধীনতা পরবর্তী সময় হতে অদ্যাবধি তারা তাদের সেই ঘৃণিত ও ন্যক্করজনক অপরাধ অস্বীকার করে আসছিল। পাশাপাশি ধর্মকে ব্যবহার করে তারা নিজেদের স্বার্থ হাসিলের জন্য দেশকে করে তুলেছিল জঙ্গিদের অভয়ারণ্য। তাদের মতো বিতর্কিত একটি রাজনৈতিক দলকে আশ্রয় দিয়েছিল বিএনপি। বানিয়েছিল ২০ দলীয় জোটের অন্যতম প্রধান মিত্র দল। তারই ধারাবাহিকতায় এই যুদ্ধাপরাধীরা তাদের গাড়িতে উড়িয়েছিল লাল-সবুজের পবিত্র জাতীয় পতাকা। সগর্বে বুক ফুলিয়ে বেড়িয়েছিল পুরো দেশ। সেই তারাই আবার অদৃশ্যভাবে ছিটকে পড়েছে বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোট থেকে। যা তাদের সাম্প্রতিক কর্মকাণ্ড দেখলেই পুরোপুরি পরিষ্কার হওয়া যায়।

এমতাবস্থায় সরকারের অনুকম্পা নিয়ে নিজেদের এজেন্ডা বাস্তবায়নে নতুন পরিকল্পনা নিয়েছে দলটি। তারা স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে কর্মসূচি শুরু করেছে। শুধু তাই নয়, দলটির নেতাকর্মীদের মুখে শোনা যাচ্ছে স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি হিসেবে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বন্দনা। হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে তারা নানামুখী বক্তব্য দিচ্ছেন। কিন্তু ক’দিন আগেও তারা বঙ্গবন্ধু ও আওয়ামী লীগ বিরোধী কথা বলতো।

জামায়াতের হঠাৎ এই পরিবর্তন ‘সন্দেহজনক’ উল্লেখ করে দেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, জামায়াতের চরিত্র বদলের কোন সুযোগ নেই। তারা পাল্টাবে না। বদল হবে না তাদের খাসলতেরও। তাই বলাই বাহুল্য, কয়লা ধুইলে যেমন ময়লা যায় না। জামায়াতও ঠিক তেমন। তারা যে কোনভাবেই নিজেদের পুরনো রূপে ফিরবে। সে কারণে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপনের নামে তারা নতুন নাটকের মঞ্চায়ন করছে। এর মাধ্যমে যে তারা পরোক্ষভাবে সরকারের অনুকম্পা চাইছে না, তার গ্যারান্টি কি! তাদের এই গতিবিধি সন্দেহজনক। সরকারসহ আমাদের সবাইকে এ ব্যাপারে সতর্ক থাকতে হবে।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি