রবিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১
  • প্রচ্ছদ » Lead 3 » বিএনপি প্রতারক, জিয়া নিজেও বঙ্গবন্ধুকে ‘জাতির পিতা’ বলে সম্বোধন করতেন!



বিএনপি প্রতারক, জিয়া নিজেও বঙ্গবন্ধুকে ‘জাতির পিতা’ বলে সম্বোধন করতেন!


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
13.03.2021

নিউজ ডেস্ক: এতোদিন জিয়াউর রহমানকে মহান স্বাধীনতার ঘোষক মেনে বিএনপির পক্ষ থেকে যে অপপ্রচার চালানো হচ্ছিল, এবার তাদের মুখে ছাই দিয়ে বেরিয়ে এলো আসল তথ্য। বেরিয়ে এলো থলের বিড়াল। একটি পত্রিকা মারফৎ জানা গেলো, বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান খোদ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে ‘জাতির পিতা’ নামে সম্বোধন করতেন। কিন্তু বিষয়টি গোপন করে উপরন্তু বিএনপির প্রতারক নেতৃবৃন্দ ঘোর আপত্তি জানিয়ে বলে আসছিল, স্বাধীনতা কিংবা দেশ গঠনে জিয়াই সর্বসবা, বাকি সব মিথ্যে।

বিশ্বস্ত সূত্রের তথ্যমতে, স্বাধীনতা পরবর্তী সময় হতে অদ্যাবধি বিএনপি উঁচু গলায় বলে আসছিল, জিয়াউর রহমানই দেশের জন্য সব করেছেন। বঙ্গবন্ধুর অবদান নেই বললেই চলে। এ কারণে দলটির নেতৃবৃন্দ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে ‘জাতির পিতা’ ডাকতেও নারাজ। বিভিন্ন সময় এ নিয়ে তারা নেতিবাচক বক্তৃতা-বিবৃতিও দিয়েছেন। কিন্তু এবার পাওয়া গেলো এক অকাট্য প্রমাণ।

বিএনপি ১৯৭১ সালের ৭ মার্চ বঙ্গবন্ধুর ভাষণের দিনটি নিয়ে ব্যাঙ্গাত্মক ও উদাসীনমূলক বক্তব্য দিলেও দলটির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান স্বীকার করেছেন দিনটির ঐতিহাসিক গুরুত্বের কথা। যার খোঁজ পাওয়া গেছে ১৯৭৪ সালে সাপ্তাহিক বিচিত্রায় প্রকাশিত জিয়ার এক লেখায়। সেখানে তিনি নিজেই লেখেন, বঙ্গবন্ধুর ভাষণই ছিল তার স্বাধীনতা সংগ্রামে ঝাঁপিয়ে পড়ার প্রেরণা। শুধু তাই নয়, পাকিস্তান সেনাবাহিনীতে বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামের নায়ক বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে বিষোদগার করা হতো। যেটা ছিল অনুচিত।

ওই লেখার একাংশে তিনি আরও লিখেছেন, এলো ১ মার্চ। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের উদাত্ত আহ্বানে সারাদেশে শুরু হলো ব্যাপক অসহযোগ আন্দোলন।

কিন্তু বিএনপি এখনও ইতিহাস বিকৃতির ঐতিহ্য লালন করে বঙ্গবন্ধুকে জাতির পিতার স্বীকৃতি দিতে আপত্তি জানায়। অথচ পরিস্কারভাবে দলটির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান নিজেই নিজের লেখায় শেখ মুজিবুর রহমানকে জাতির পিতা বলে উল্লেখ করেছেন।

এ বিষয়ে রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, বিকৃত মনোভাব নিয়ে ইতিহাস বিকৃতি, জাতির পিতাকে অস্বীকার ও সরকারের বিরুদ্ধাচারণই বিএনপির রাজনীতির মূলমন্ত্র। অথচ তাদের প্রতিষ্ঠাতা এমন ছিলেন না। তিনি বঙ্গবন্ধুকে সগর্বে-সহাস্যে ‘জাতির পিতা’ বলেই সম্বোধন করতেন। যার অদ্বিতীয় প্রমাণ সাপ্তাহিক বিচিত্রায় প্রকাশিত এই লেখা। তবুও বিএনপি নেতৃবৃন্দের ঘুম ভাঙবে না। দূর হবে না বঙ্গবন্ধু ও সরকারের বিরুদ্ধে মিথ্যাচার করা। এ থেকেই তাদের হীন চারিত্রিক বৈশিষ্ট্যের প্রমাণ মেলে। প্রমাণ মেলে বিকৃত রাজনৈতিক আদর্শেরও।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি