মঙ্গলবার ২০ এপ্রিল ২০২১



হরতালে ৫’শ বাস পোড়ানোর পরিকল্পনা ছিলো বিএনপির


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
29.03.2021

নিউজ ডেস্ক : ধীরে ধীরে জঙ্গি সংগঠনে রূপ নেয়া ইসলামী সংগঠন হেফাজতে ইসলামের ডাকা অনৈতিক হরতালে অন্তত ৫০০ বাস পোড়ানোর টার্গেট ছিলো বিএনপির। তবে উপযুক্ত পরিকল্পনার অভাব এবং আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর কঠোর অভিযানে ভেস্তে যায় বিএনপির এই নাশকতার পরিকল্পনা।

ইতিমধ্যে বাসে আগুন লাগানোর অপরাধে আটক হয়েছেন বিএনপি নেত্রী নিপুণ রায়। যিনি একটি সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে তার কেরানীগঞ্জ এলাকায় বাস পোড়ানোর কাজ করিয়েছেন। ইতিমধ্যে উক্ত সন্ত্রাসী বাহিনীর প্রধান আরমানকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। অতঃপর হামলার ঘটনা স্বীকার করে আরমান জানান, শুধু কেরানীগঞ্জ নয় সমগ্র বাংলাদেশেই বাস পোড়ানোর টার্গেট ছিলো বিএনপির। তবে উপযুক্ত পরিকল্পনার অভাবে তা সম্ভব হয়নি।

এ বিষয়ে বিএনপিপন্থী বুদ্ধিজীবী গয়েশ্বর চন্দ্র রায়ের সঙ্গে কথা হলে তিনি বলেন, বিএনপির কাছে এর চেয়ে ভালো কিছু আশা করা যায় না। আমি আসলে বুঝি না, তারা কি করতে যাচ্ছে। তাহলে জঙ্গি বাহিনী আর বিএনপির মধ্যে তফাৎ থাকলো কোথায়? মানুষের এতো কষ্টের টাকা দিয়ে ক্রয় করা বাস পুড়িয়ে তারা প্রমাণ করেছে, মানুষের জান মাল নয়, তাদের কাছে ক্ষমতাই মুখ্য বিষয়।

এদিকে অনুসন্ধানে জানা যায়, সন্ত্রাসী আরমানের সঙ্গে মাত্র ৫ লাখ টাকার কন্ট্রাকে ৫০০ বাস পোড়ানোর চুক্তি হয় বিএনপির। তবে বিএনপির কিছু নেতা তারেক রহমানের পাঠানো এই টাকা নিজেদের মধ্যে ভাগ করে নিয়ে আরমানকে মাত্র ২০ হাজার টাকা দেয়াতেই আরমান পুরো কাজ করতে অস্বীকৃতি জানায়। সঙ্গে নিপুণ রায়ের ফোনালাপ ফাঁস হলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী দ্রুত পদক্ষেপ নিয়ে বিষয়টির উপযুক্ত সমাধান করে।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি