বুধবার ২১ এপ্রিল ২০২১
  • প্রচ্ছদ » Lead 1 » এ কী বললেন ডা. জাফরুল্লাহ, মামুনুল ‘জঘন্য লোক’!



এ কী বললেন ডা. জাফরুল্লাহ, মামুনুল ‘জঘন্য লোক’!


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
05.04.2021

শত চেষ্টা করেও আর চুপ থাকতে পারলেন না। অবশেষে মুখ খুললেন বিএনপিপন্থী বুদ্ধিজীবী এবং গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী। তিনি হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হককে জঘন্য লোক বলে অভিহিত করেছেন। সোমবার (৫ এপ্রিল) সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ মন্তব্য করেন।

নির্ভরযোগ্য সূত্রের তথ্যমতে, স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী ও চলমান মুজিববর্ষ উপলক্ষে বন্ধু প্রতিম রাষ্ট্র ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশে আসার সফরসূচি ঘোষণার আগ থেকে অদ্যাবধি ঢাকাস্থ পাকিস্তান দূতাবাসের অর্থায়নে দেশজুড়ে তাণ্ডব চালায় হেফাজত। এসব কর্মকাণ্ডে তাদের সঙ্গী-সাথী ছিলো ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর গং। সম্প্রতি সেই দেশবিরোধী চক্রের অন্যতম হোতা মামুনুল হক আপত্তিকর অবস্থায় নারায়ণগঞ্জের একটি রিসোর্টে নারীসহ ধরা পড়েছে। এ ঘটনায় দেশজুড়ে সমালোচনার ঝড় বইছে।

এমতাবস্থায় সব নীরবতা ভেঙে ‘দলীয় চোখ রাঙানি’ উপেক্ষা করে মুখ খুললেন মামুনুল-নুর গংদের নেপথ্য মদদদাতা জামায়াত-বিএনপি চক্রের অন্যতম পরামর্শদাতা গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী।

তিনি বলেন, সাম্প্রদায়িক উস্কানিমূলক কথা বলার জন্য মামুনুলের বিচার হওয়া উচিত। তিনি ইসলামের কথা বলে নোংরামি করেছে, রিসোর্টে থাকা নারী তার স্ত্রী কিনা-তা তদন্ত করতে হবে।

একইসঙ্গে বিএনপিপন্থী এই বুদ্ধিজীবী আরও বলেন, হেফাজত নেতাদের দুর্নীতির তদন্ত ও বিচার হওয়া উচিত। হেফাজত ইস্যুতে সরকারকে আরও কঠোর হতে হবে।

এ বিষয়ে দেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, শেষ পর্যন্ত জাফরুল্লাহও বিএনপি-জামায়াতের ছায়াতলে থেকে দেশজুড়ে তাণ্ডব চালানো হেফাজতের বিরুদ্ধে মুখ খুললেন। এ থেকে আবারও প্রমাণিত হলো, সত্য যেমন চাপা থাকে না। তেমনি পাপ বাপকেও ছাড়ে না। এখন সরকারের উচিত হেফাজতের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থানে যাওয়া।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি