শনিবার ১৫ মে ২০২১



খালেদার বাসভবন এখন ‘মিনি হাসপাতাল’!


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
12.04.2021

স্বাস্থ্যবিধির তোয়াক্কা না করায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। শুধু তিনি একাই নন, রাজধানীর গুলশান এভিনিউস্থ তার বাসভবন ‘ফিরোজা’র ৯ সদস্যও করোনায় আক্রান্ত। সবমিলিয়ে বাসাটি এখন একটি ‘মিনি হাসপাতালে’ পরিণত হয়েছে।

বিশ্বস্ত সূত্রের তথ্যমতে, ১০ এপ্রিল (শনিবার) দুই দফায় বিএনপি নেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নমুনা সংগ্রহ করা হয়। সেই সংগ্রহ করা নমুনায় তার রিপোর্ট করোনা ‘পজিটিভ’ আসে। পরবর্তীতে মিডিয়ার মাধ্যমে খবরটি সবাই জানতে পারে রোববার (১১ এপ্রিল)।

তবে করোনায় আক্রান্ত খালেদার বর্তমান অবস্থা স্থিতিশীল আছে বলে জানিয়েছেন তার ব্যক্তিগত চিকিৎসক ও বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ডা. জাহিদ হোসেন। তিনি বাংলা নিউজ ব্যাংকের এই প্রতিবেদককে বলেন, এখন পর্যন্ত ম্যাডামের (খালেদার) শরীরে করোনার কোনো উপসর্গ নেই। স্বাভাবিকভাবেই তিনি শ্বাস-প্রশ্বাস নিচ্ছেন। শুধু তিনি নন, করোনা আক্রান্ত তার অন্য স্টাফদের অবস্থাও ভালো। তাছাড়া ২৪ ঘণ্টাই ম্যাডামের (খালেদার) শারীরিক অবস্থার খোঁজ রাখা হচ্ছে। এখন পর্যন্ত তিনি সুস্থ আছেন।

এর আগে রোববার (১১ এপ্রিল) রাতে বিএনপি নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে দেখে এসে তার ব্যক্তিগত চিকিৎসক ড. মামুন জানান, ম্যাডামের (খালেদার) বাসা ফিরোজাকে একটি মিনি হাসপাতাল বানানো হয়েছে। সেখানে অক্সিজেন সিলিন্ডার থেকে শুরু করে দরকারি সব চিকিৎসা-সরঞ্জাম আছে। তারপরও বাড়তি সর্তকতা হিসেবে রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে তার জন্য আইসিইউসহ কেবিন বুকিং দেওয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে দেশের রাজনৈতিক বিজ্ঞজনদের ভাষ্য, সরকার বয়স ও শারীরিক অবস্থা বিবেচনা করে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে কারামুক্তি দিলো। কিন্তু তিনি ‘ডোন্ট কেয়ার’ মনোভাব নিয়ে চলাফেরা করে স্বাস্থ্যবিধির তোয়াক্কা না করায় সংক্রমিত হয়েছেন করোনায়। এটা তার যেমন কর্ম, তেমনই ফল বয়ে এনেছে।

রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা আরও বলেন, এর পেছনে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ও খালেদার জ্যেষ্ঠপুত্র তারেক রহমানও কম দায়ী নন। কারণ, দেশবাসীর পাশাপাশি যখন বিএনপি নেতাকর্মীরাও সরকার প্রদত্ত করোনার টিকা নিচ্ছিলেন, তখনই খালেদা টিকা নেওয়ার ইচ্ছা পোষণ করেন। কিন্তু তাতে উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে বাগড়া দেন তারেক। হয়তো সে সময় তিনি টিকা নিলে এখন সংক্রমিত হতেন না। তাই বলাই বাহুল্য, তারেক রহমানও এর দায় কোনভাবেই এড়াতে পারেন না।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি