শনিবার ১৫ মে ২০২১
  • প্রচ্ছদ » Lead 1 » খালেদার চিকিৎসা ইস্যুতে নিরব পুত্রবধূ জোবাইদা, তারেকের ‘চওড়া হাসি’!



খালেদার চিকিৎসা ইস্যুতে নিরব পুত্রবধূ জোবাইদা, তারেকের ‘চওড়া হাসি’!


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
12.04.2021

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। কিন্তু তার চিকিৎসার বিষয়ে লন্ডনে অবস্থানরত বড় ছেলে তারেক রহমানের স্ত্রী ডা. জোবাইদা রহমানের কাছ থেকে এখন অবধি আসেনি কোন সিদ্ধান্ত। বিষয়টি নিয়ে গোপনে পৈশাচিক চওড়া হাসি হাসছেন তারেক। কারণ, তার মা সরে গেলেই দলের সর্বময় ক্ষমতার অধিকারী হবেন তিনি, মন্তব্য দেশের রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের।

নির্ভরযোগ্য সূত্রের তথ্যমতে, বিএনপি নেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার করোনা আক্রান্তের খবরটি সঙ্গে সঙ্গেই লন্ডনে তারেক রহমান ও তার স্ত্রী ডা. জোবাইদা রহমানের কাছে দেওয়া হয়। এ সময় জোবাইদা বলেন, কাগজপত্র দেখে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে কোথায় তার চিকিৎসা হবে। তবে হাসপাতাল কিংবা বাসা যেখানেই চিকিৎসা দেওয়া হোক না কেন, তার আগে খালেদার পাশাপাশি তার চিকিৎসক টিমের মতামতও নেওয়া হবে।

এরপর জোবাইদার কথা অনুযায়ী খালেদার বর্তমান অবস্থা ও সকল কাগজপত্র ইতোমধ্যে লন্ডনে পাঠানো হলেও এখন অবধি মেলেনি কোন সাড়া। এমনকি তারেক রহমানের সঙ্গে যোগাযোগ করলেও তিনি বলেন, কাগজপত্র দেখে এবং ঢাকার মেডিক্যাল টিমের চিকিৎসকদের সঙ্গে কথা বলে সব সিদ্ধান্ত জোবাইদা-ই নেবেন। এবং তা যথাসময়েই।

এদিকে খালেদার পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, খালেদার চিকিৎসক টিমের কয়েকজন সদস্য তাকে একটি হাসপাতালে রেখে চিকিৎসার পরামর্শ দিয়েছেন। এজন্য গুলশানে তার বাসার কাছেই ইউনাইটেড হাসপাতালের করোনা ইউনিটে আইসিইউ সুবিধা সম্পন্ন একটি কেবিনও বুক করে রাখা হয়েছে। শারিরীক অবস্থার অবনতি হলে দ্রুতই তাকে সেখানে স্থানান্তরিত করা হবে। তবে এসবের চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত আসবে লন্ডন থেকে। তারেক ও তার স্ত্রী জোবাইদা দেবেন সেই সিদ্ধান্ত। সবাই এখন তারই অপেক্ষায় আছে।

এ বিষয়ে রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, অনেক আগে থেকেই তারেক পরোক্ষভাবে চাইছেন না, তার মা খালেদা বেঁচে থাকুক। এ কারণে তিনি তার কারান্তরীণ অবস্থা থেকে মুক্তিতে ফলপ্রসূ কোন পদক্ষেপ নেননি। এমনকি তার মুক্তির পরও সেভাবে খোঁজখবর রাখেননি। পরবর্তীতে সরকার করোনার টিকা দেওয়া শুরু করলে তা নিতে ইচ্ছা পোষণ করেন খালেদা। কিন্তু তারেক কৌশলে তার মাকে করোনার টিকা নিতে নিষেধ করেন। ফলশ্রুতিতে তিনি করোনা আক্রান্ত হন। এখন তার চিকিৎসা প্রশ্নেও স্ত্রী ডা. জোবাইদার মাধ্যমে নানা টালবাহানা করছেন। এ থেকেই স্পষ্টত যে, তিনি তার গর্ভধারিনী মাকে ‘পথের কাঁটা’ ভাবেন এবং সে কারণেই তিনি এমনটা করছেন।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি