শনিবার ১৫ মে ২০২১
  • প্রচ্ছদ » Lead 2 » করোনার উছিলায় ২৫ কোটি টাকা তুললেন তারেক রহমান



করোনার উছিলায় ২৫ কোটি টাকা তুললেন তারেক রহমান


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
13.04.2021

নিউজ ডেস্ক : সমগ্র বাংলাদেশে বিএনপির অন্তত ৫০ হাজার নেতা কর্মী করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। সর্বশেষ স্বয়ং বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াও করোনায় আক্রান্ত হলেন। ফলে বিএনপি উক্ত ৫০ হাজার কর্মী করোনা ভাইরাসের ফলে কর্মহীন হয়ে পড়েছেন। আর এ কারণে তাদের সহায়তা করতে ২৫ কোটি টাকার ফান্ড গঠন করেছেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসন তারেক রহমান।

উক্ত ২৫ কোটি টাকা মূলত বিএনপি সমর্থিত শিল্পপতিদের থেকে নেয়া হবে বলে জানা যায়, ইতিমধ্যে এ বিষয়ে একটি তালিকাও বিএনপির পক্ষ থেকে প্রকাশ করা হয়েছে। মূলত ব্যবসা-বাণিজ্য ও দলে প্রাপ্ত পদ অনুযায়ী নেতাদের এই তালিকা করা হয়েছে। সব মিলিয়ে প্রায় ৫০ হাজার নেতা-কর্মীদের সাহায্যের জন্য মোট ২৫ কোটি টাকার চাঁদা নির্ধারণ করেছেন তারেক। রোজা শুরুর এক সপ্তাহের মধ্যে রিজভী আহমেদের মাধ্যমে এই চাঁদা আদায় করারও আদেশ দেয়া হয়েছে। বার্তায় আরো বলা হয়, ২৫ কোটি টাকা থেকে যেন ৫ কোটি টাকা লন্ডনে পাঠিয়ে দেয়া হয়।

বার্তা অনুযায়ী, মির্জা আব্বাস, আব্দুল আউয়াল মিন্টু, তাবিথ আউয়াল, এম মোর্শেদ খান, আবুল খায়ের ভুঁইয়ার মতো ৫ জন বিত্তশালী নেতাদের জনপ্রতি আড়াই কোটি করে মোট ১৫ কোটি টাকা টাকা সহায়তা ফান্ডে জমা দেয়ার নির্দেশনা দিয়েছেন তারেক। উক্ত নির্দেশনায় দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য, জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য, সংসদে যোগদানকারী সাংসদদের বিভিন্ন হারে বাকি ১০ কোটি টাকা চাঁদা সহায়তা ফান্ডে জমা দিতে বলা হয়েছে।

করোনা ভাইরাসের উছিলা দিয়ে তারেক রহমানের নতুন উদ্যোগ সম্পর্কে দলের স্থায়ী কমিটির একজন সদস্য বলেন, রোজা উপলক্ষে বিএনপির তরফ থেকে গরিব-দুস্থ, কারাবন্দী নেতাকর্মীদের প্রতি বছর সহায়তা করা হয়ে থাকে। করোনা ভাইরাসের কারণে এবার তার ব্যতিক্রম ঘটলো। ২৫ কোটি টাকা সাধারণত দলের বিত্তশালী নেতারা দেন। তাই দলের বিত্তশালী-দয়াবান নেতাদের তালিকা তৈরি করা হয়েছে। বিত্তশালীরা এগিয়ে না আসলে তো আমরা দুস্থ-অসহায় নেতাকর্মীদের সহায়তা করতে পারবো না। এবং এটাও সত্যি, বরাদ্দকৃত টাকার ৫ ভাগের এক ভাগ টাকা তারেক রহমানকে পাঠানো হয়। এটা আমাদের দলের জন্য স্বাভাবিক বিষয়। সুতরাং এটি নিয়ে যারা আতঙ্ক ছড়াচ্ছেন তারা দলের ভালো চান না। মানুষকে দান করলে সম্পদ কমে না, বরং বাড়ে।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি