মঙ্গলবার ১১ মে ২০২১



জামায়াতকে উপযুক্ত শিক্ষা দিতে চাচ্ছেন তারেক রহমান


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
03.05.2021

নিউজ ডেস্ক : পাক প্রেমী রাজনৈতিক দল জামায়াতে ইসলাম জোট দল বিএনপির সঙ্গে থাকলেও কার্যত নিষ্ক্রিয় রয়েছে বলে বিবেচিত। জামায়াতের অনেক নেতা বলছেন, একাধিক সময়ে জামায়াতে ইসলামকে অবজ্ঞা করার কারণে তার প্রতিশোধ স্বরূপ বিএনপি থেকে দূরে থাকছেন জামায়াত নেতারা। তবে বিষয়টি আন্দাজ করতে পেরে শাস্তি দেয়ার নামে এড়িয়ে চলা জামায়াতে ইসলামীর নেতাদের শায়েস্তা পরিকল্পনা গ্রহণ করছে বিএনপি। ইতিমধ্যে এই মর্মে জামায়াতে ইসলাম থেকে বহিষ্কৃত নেতাদের ব্যবহার করছেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান।

জানা গেছে, জামায়াতের বখে যাওয়া নেতাদের সক্রিয় করতে এবং বিএনপির অনুশাসন মেনে চলতে জামায়াতের সাবেক কেন্দ্রীয় নেতা মো. মজিবুর রহমান মঞ্জুকে দিয়ে নতুন দল গঠনের পাঁয়তারা করছেন লন্ডনে পলাতক বিএনপি নেতা তারেক রহমান।

সাম্প্রতিক সময়ে ‘জনআকাঙ্খার বাংলাদেশ’ নামক ধর্মনিরপেক্ষ দল গঠনের প্রস্তাব দেন ছাত্রশিবিরের সাবেক সভাপতি এবং জামায়াতের সাবেক কেন্দ্রীয় নেতা মঞ্জু। গঠিতব্য দলটির আধ্যাত্মিক নেতা হিসেবে জামায়াতের সাবেক সহকারী জেনারেল ব্যারিস্টার আব্দুর রাজ্জাকের নামও এসেছে গণমাধ্যমে। তবে গুঞ্জন উঠেছে, মঞ্জুর মাধ্যমে নতুন রাজনৈতিক দল গঠন করে জামায়াতকে শায়েস্তা করতে আর্থিক অনুদান দিচ্ছে তারেক রহমান। বিএনপিকে রাজনীতিতে একা ফেলে দেয়ার শাস্তি হিসেবে জামায়াতের সাবেক নেতাদের নিয়ে এমন ষড়যন্ত্র করছেন তারেক, এমনটাই মনে করছেন জামায়াতের একাধিক সিনিয়র নেতা।

দলের বহিষ্কৃত ও নিষ্ক্রিয় নেতাদের নিয়ে তারেক রহমানের নতুন রাজনৈতিক সিন্ডিকেট গঠনের বিষয়ে জানতে চাইলে জামায়াতের কেন্দ্রীয় সেক্রেটারি জেনারেল ডা. শফিকুর রহমান বলেন, অতীতে বিএনপির বিপদের দিনে জামায়াত পাশে থাকলেও জামায়াতের বিপদে বিএনপি পাশ কাটিয়ে চলছে। নিবন্ধন হারানোয় জামায়াতকে আর সঙ্গী হিসেবে মূল্যায়ন করছে না বিএনপি। যার কারণে আমরাও কিছুটা পিছুটান দিয়েছি। জামায়াতকে রাজনৈতিক স্বার্থে ব্যবহার করেছে বিএনপি। অথচ আমরা যখন বিএনপির সহযোগিতা চাইলাম তখন যুদ্ধাপরাধ ও আন্তর্জাতিক শক্তির চাপের কথা বলে জামায়াতকে ত্যাজ্য করেছে বিএনপি। এটি তো আমাদের জন্য অপমানজনক।

তিনি আরো বলেন, এখন শুনছি-জামায়াত থেকে বহিষ্কৃত নেতা মঞ্জুকে উসকানি দিয়ে নতুন রাজনৈতিক দল গঠনের নেপথ্যে কাজ করছেন তারেক রহমান। লন্ডন থেকে বিএনপির এই নেতা ব্যারিস্টার আব্দুর রাজ্জাককে বুদ্ধিদাতা হিসেবে ব্যবহার করছেন। জামায়াতকে শাস্তি দিতে এই অপকৌশল অবলম্বন করেছেন তিনি। বিষয়টি নিন্দনীয় এবং অগ্রহণযোগ্য। ইট মারলে যে পাটকেল খেতে হয়, সেটি হয়তো ভুলে গেছেন বিএনপির নেতৃবৃন্দ। তবে জামায়াতকে ভাঙ্গার অপচেষ্টা করার জন্য তারেক রহমানকে আগামীতে প্রায়শ্চিত্ত করতে হবে, এটি আমি নিঃসন্দেহে বলতে পারি।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি