মঙ্গলবার ১১ মে ২০২১
  • প্রচ্ছদ » Lead 4 » পুলিশ পরিচয়ে বিএনপি নেতাকে গুম করার চেষ্টা করলো ছাত্রদল নেতা!



পুলিশ পরিচয়ে বিএনপি নেতাকে গুম করার চেষ্টা করলো ছাত্রদল নেতা!


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
04.05.2021

নিউজ ডেস্ক: কুমিল্লার লাকসামে পুলিশ পরিচয়ে জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা মনির আহমেদ নামে এক বিএনপি নেতাকে তুলে নেয়ার চেষ্টা করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯-এ কল করে পুলিশের সহায়তায় রক্ষা পেয়েছেন।

এ ঘটনায় সোমবার (৩ মে) লাকসাম থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন তিনি। মনির আহমেদ লাকসাম পৌরসভা বিএনপির যুগ্ম-আহবায়কের পদে রয়েছেন।

মনির আহমেদের অভিযোগ, রোববার দিবাগত রাতে লাকসাম পৌর ছাত্রদল সভাপতি নূরে আলম মিন্টুর নেতৃত্বে তার বসত ঘরের দরজা-জানালায় এলোপাতাড়িভাবে পেটাতে থাকে স্থানীয় ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা। এ সময় তারা নিজেদের পুলিশ পরিচয় দিয়ে দরজা খুলতে বলে। মনির দরজা না খুলে জানালা খুলে তাদেরকে জানালার সামনে আসতে বলে, কিন্তু ওরা জানালার পাশে না এসে মনিরকে দরজা খুলতে হুমকি-ধমকি দিতে থাকে।

এ সময় আতঙ্কিত হয়ে মনির জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ নম্বরে কল দিয়ে পুলিশের সহায়তা কামনা করেন। লাকসাম থানা পুলিশ মনিরের বাড়িতে উপস্থিত হন। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে লাকসাম পৌর ছাত্রদল সভাপতি নূরে আলম মিন্টু ও তার অনুসারীরা বাড়ির পেছন দিয়ে পালিয়ে যায়।

সোমবার সন্ধ্যায় বিএনপি নেতা মনির গণমাধ্যমকে বলেন, ‘বিএনপির রাজনীতিতে প্রতিদ্বন্দ্বিতা থাকতেই পারে। এর আগেও আমার সাথে ছাত্রদলের কমিটি গঠন নিয়ে অনেকবার বিবাদে জড়িয়েছে লাকসাম পৌর ছাত্রদল সভাপতি নূরে আলম মিন্টু। আমার সাথে সে অনেকবার অশোভন আচরণ করেছে। বিএনপির রাজনীতি থেকে সরে যেতে একাধিকবার আমাকে নানানভাবে হুমকি ধমকি দিয়েছে সে। গত জাতীয় নির্বাচনের একদিন আগে আমার ঘরবাড়ি ভাঙচুর করেছে সায়েদুল ও তার অনুসারীরা। আমার ধারণা মিন্টুই আমাকে হত্যা কিংবা গুম করার উদ্দেশ্যেই এসেছিলো। তাৎক্ষণিক আমি ৯৯৯ নম্বরে কল দিলে লাকসাম থানা পুলিশ এসে আমাকে রক্ষা করে।’

লাকসাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি