শুক্রবার ১৮ জুন ২০২১



ফিলিস্তিনের মুক্তির ফাঁকে খালেদা জিয়ার মুক্তি চায় বিএনপি


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
19.05.2021

নিউজ ডেস্ক : দুর্নীতির দায়ে দণ্ডিত বেগম জিয়াকে আইনি উপায়ে মুক্ত করতে ব্যর্থ হয়ে এবার ভিন্ন কৌশল অবলম্বন করেছেন তারেক রহমান ও লন্ডনে অবস্থিত পাকিস্তান দূতাবাস। তারা চাচ্ছেন ফিলিস্তিনে শান্তি প্রতিষ্ঠার ইস্যুতে মুসলিম নেতাদের ওআইসি বৈঠকে সুযোগ বুঝে খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে সুপারিশ করাতে।

বিএনপির একাধিক দায়িত্বশীল সূত্রের বরাতে এই তথ্যের সত্যতা সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া গেছে।

লন্ডন ভিত্তিক একটি সূত্র বলছে, বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান বুঝতে পেরেছেন যে, আইনি ও রাজনৈতিক প্রক্রিয়ায় বেগম জিয়ার মুক্তি আদায় করা সম্ভব নয়। কারণ আন্দোলন করার মতো অবস্থায় বিএনপি নেই। এজন্য কূটনৈতিক তৎপরতা চালিয়ে যাওয়া ছাড়া বিকল্প অপশন আর নেই। সেই লক্ষ্যকে সামনে রেখে, ১৯ মে সন্ধ্যায় লন্ডনের স্থানীয় একটি হোটেলে পাকিস্তান দূতাবাসের দুজন কর্মকর্তার সঙ্গে দীর্ঘ ২ ঘণ্টা ব্যাপী বৈঠক করেন। আলোচনায় তারেক সৌদি সরকারকে বেগম জিয়ার মুক্তির জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে সুপারিশ করার বিষয়েও সিদ্ধান্ত নেন। সেক্ষেত্রে পাকিস্তানের লন্ডন দূতাবাস সৌদি দূতাবাসের সঙ্গে সমন্বয় সাধন করবে।

এছাড়া ওআইসি’র বৈঠকে পাকিস্তানি প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান সেখানে অবস্থান করছেন। ইমরান খানের সাথে আবার সৌদি প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমানের বিশেষ সখ্যতার বিষয়ে সকলেই জানে। তাই পাকিস্তানি লবিং মেইনটেইন করে বেগম জিয়ার মুক্তির জন্য সৌদিসহ মুসলিম দেশগুলোর সমর্থন আদায় করতে চান তারেক। মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলো বর্তমানে চাচ্ছে ফিলিস্তিনের নিরীহ মানুষের একটা সমাধান হোক। এর ফাঁকে তারেক রহমান চাচ্ছেন তার মায়ের মুক্তিটাও হয়ে যাক।

অন্য একটি সূত্র বলছে, কোরবানির ঈদের আগে বিএনপিকে সান্ত্বনা পুরষ্কার দিতেই পাকিস্তান কর্তৃপক্ষ শেষ এই প্রচেষ্টা চালাতে চায়। সৌদি আরব যদি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারে, তবেই তারেকের এই মিশন সফল হতে পারে।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি