বৃহস্পতিবার ১৭ জুন ২০২১



খালেদার চিকিৎসা নিয়ে রাজনীতি
খোঁজ খবর রাখে না বিএনপি, অবহেলা পরিবারেরও


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
20.05.2021

নিউজ ডেস্ক: খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থার উন্নতি হওয়ায় ফুসফুসের পানি বের করার জন্য বুকের দুটি পাইপের মধ্যে বাম পাশেরটি খুলে দেয়। মেডিকেল বোর্ডের সূত্র দিয়ে গণমাধ্যমে এমন খবর আসলেও এ বিষয়ে কোনো তথ্যই নেই বিএনপির দফতরে, এমনকি জানেন না কোনো সিনিয়র নেতাও।

দলটির একাংশের নেতারা অকপটেই বলছেন, ‘ম্যাডামের চিকিৎসা নিয়ে রাজনীতি চলছে’।

বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইং সদস্য শায়রুল কবির খান জানান, খালেদা জিয়ার শারীরের সর্বশেষ অবস্থা সম্পর্কে চিকিৎসকদের পক্ষ থেকে তিনি এখনো কোনো তথ্য পাননি। কিছুই জানেন না।

খালেদা জিয়ার চিকিৎসক টিমের সদস্য অধ্যাপক ডা. এ জেড এম জাহিদ গণমাধ্যমকর্মীদের ফোন রিসিভ করছেন না। অন্যদিকে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের ফোন দুপুর ২টা থেকে রাত ১০টা অবধি বন্ধ পাওয়া গেছে।

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত দফতর সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স বলেন, ‘ম্যাডামের বিষয়ে আমার কাছে কোনো তথ্যই নেই।’

এদিকে বুধবার বেলা ১১টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত বেশ কয়েকবার কল দিয়ে এবং খুদেবার্তা পাঠিয়েও খালেদা জিয়ার বোন সেলিমা ইসলামের কোনো সাড়া পাওয়া যায়নি।

এদিকে বুধবার রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা এখন স্থিতিশীল বলে জানিয়েছেন ১০ সদস্যের মেডিকেল বোর্ড।

জানা গেছে, খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থার উন্নতি ঘটছে। তবে তার বয়স ও অন্যান্য জটিল রোগের কারণে শঙ্কা এখনও কাটেনি। শরীরে প্রোটিনের অভাব এবং অনিয়ন্ত্রিত ডায়াবেটিসের কারণে চিকিৎসায় ধীরে এগুতে হচ্ছে।

ফুসফুসে জমা পানি বের করার জন্য খালেদা জিয়ার বুকের দুই পাশে দুটি পাইপ বসানো হয়েছিল। ফুসফুসে পানি জমাটা অনেকটা নিয়ন্ত্রণ করতে সক্ষম হওয়ায় তারা আপাতত বাম পাশের পাইপটি খুলে নিয়েছেন। এখন তারা পর্যবেক্ষণ করবেন, আদৌ আর পানি জমা হয় কি-না। এটার ওপর নির্ভর করে অপর পাইপটিও তারা খুলে ফেলবেন।

দীর্ঘ ২৩ দিন ধরে খালেদা জিয়াকে হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে হচ্ছে। কিন্তু এখন অনেকটা আশঙ্কামুক্ত বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি