শুক্রবার ১৮ জুন ২০২১



এবার বিএনপি ছাড়ছেন আরও দুই নেতা!


বাংলা নিউজ ব্যাংক :
24.05.2021

নিউজ ডেস্ক : অস্তিত্ব সংকটে রয়েছে বিএনপি। একের পর এক নির্বাচনে শোচনীয় পরাজয়, বেগম জিয়ার মুক্তি আদায়ে কোন আন্দোলন করতে না পারায় দলীয় নেতা-কর্মীদের প্রতি নতুন করে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন আহমেদ।

রাজধানীর একটি অনুষ্ঠানে রাজনৈতিক ব্যর্থতা, হাইকমান্ডের নিষ্ক্রিয়তা নিয়ে কথা বলতে গিয়ে এসব কথা বলেন হাফিজ উদ্দিন।

তিনি বলেন, কি ধরণের দল করি আমরা! দলীয় নেতা-কর্মীদের মধ্যে নেই কোনো ঐক্য। দলের ঐক্য হবে অনেকটা রশুনের মতো। মাথা চতুর্দিক হলেও গোঁড়া এক জায়গায়। প্রতিটি নির্বাচনে হারছি। আন্দোলন তো দূরের কথা, এখন তো আমরা রাস্তায় নেমে একটা কথাও বলি না। এমন করে কিভাবে হয়?

তিনি আরো বলেন, বিএনপির কর্মীরা অনেক অলস সময় পার করছে। বিএনপির মহিলা কর্মীদেরকেও এখন আর সভা-সেমিনারে পাওয়া যায় না। নানা অজুহাতে তারা দলীয় জনসভা থেকে শুরু করে মিছিল-মিটিং-এ অনুপস্থিত থাকে। সুতরাং বুঝতেই পারছেন, দলের প্রতি বিএনপি নেতাকর্মীদের ভালোবাসা কতটুকু। দলের এই করুন অবস্থা দেখে সত্যিই আমার দুঃখ হয়।

এসময় অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকা গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বিএনপির নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, নূরুল হক নূরের অনেক ছোট দল। তারা যে কাউন্সিল মিটিংটা করেছে তা ইমপ্রেসিভ, এটা আমার সোজা কথা। তারা যদি করতে পারে, বিএনপি কি আজকে ইমারজেন্সিতেও করতে পারে না?

এদিকে বিএনপির রাজনৈতিক দুর্দশায় সিনিয়র নেতাদের অসন্তোষের বিষয়ে জানতে চাইলে দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, দীর্ঘদিন ক্ষমতায় না থাকার ফলে বিভিন্ন অজুহাতে দলের সিনিয়র পর্যায় থেকে তৃণমূলের অনেক নেতাকর্মী ইতোমধ্যে বিএনপি থেকে পদত্যাগ করেছেন। বিএনপিতে পদত্যাগ নতুন বিষয় নয়। মেজর হাফিজ ও ডা. জাফরুল্লাহ সম্ভবত অজুহাত দেখিয়ে বিএনপি ছাড়ার ইঙ্গিত দিচ্ছেন। কেউ যখন কোনো দল বা সংগঠন ছাড়তে চায় তখন সেই দলের নানা দোষ-ত্রুটি জনসাধারণের উদ্দেশ্যে তুলে ধরে। নিজেদেরকে দোষমুক্ত রেখে কোন দল বা সংগঠন থেকে নিরাপদে বেরিয়ে আসার এর থেকে ভালো উপায় আর নেই। তাদের প্রতি আমার একটাই অনুরোধ, দল ছাড়ুন ভালো কথা কিন্তু দলকে কলঙ্কিত করবেন না।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি